বেলজিয়ামে ইসলামিক পার্টির শরিয়া আইন লাগু করতে চাওয়ার ৭ বছরের পুরনো ভিডিও সাম্প্রতিক বলে ভাইরাল

ইসলামিক পার্টি ২০১২ সালে জানিয়েছিল যে, তারা চায় বেলজিয়াম ইসলামীয় রাষ্ট্রে পরিণত হোক।

২০১২ সালের রাশিয়া টুডে চ্যানেলের একটি প্রতিবেদনে বলা হয় যে বেলজিয়ামের ইসলামিক পার্টি সে দেশটিকে ইসলামিক রাষ্ট্রে পরিণত করার দাবি জানিয়েছে। পুরানো এই ভিডিওটি নতুন করে প্রচার করা হল। দাবি করা হল, ঘটনাটি সাম্প্রতিক।

একই মিথ্যা দাবির সঙ্গে ২.১৫ মিনিটের ভিডিওটি পোস্টকার্ডের প্রতিষ্ঠাতা মহেশ হেগড়ে টুইট করেছেন। পোস্টকার্ড নিয়মিত ভাবে বিভিন্ন মিথ্যে এবং ভুয়ো তথ্য পোস্ট করে থাকে। হেগড়ে তার টুইটে দাবি করেছেন: “ইতিমধ্যেই ব্যাপক প্রতিবাদ শুরু হয়েছে।” এবং, তিনি এই ঘটনাটি থেকে ভবিষ্যদ্বাণী করেছেন যে “ভারতেও এই একই ঘটনা ঘটতে চলেছে।”



টুইটটি দেখা যাবে এখানে। টুইটটি আর্কাইভ করা আছে এখানে

হেগড়ে তার সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্ট থেকে নিয়মিত বিভিন্ন ধরনের ভুয়ো খবর এবং মিথ্যে তথ্য শেয়ার করে থাকেন। এমনকি তাকে আগে সাম্প্রদায়িক স্পর্শকাতর বিষয়ে ভুয়ো খবর শেয়ার করার জন্য গ্রেফতারও করা হয়েছে।

আরও পড়ুন: পোস্টকার্ডের প্রতিষ্ঠাতা ম্যাঙ্গালোরের মলের ভিডিও শেয়ার করলেন ভুয়ো 'ইভ টিজিং'-এর দৃষ্টিভঙ্গি জুড়ে



টুইটটি দেখা যাবে এখানে। টুইটটি আর্কাইভ করা আছে এখানে

এই একই ভিডিও ফেসবুকে শেয়ার করা হয়েছে।

পোস্টটি দেখা যাবে এখানে। পোস্টটি আর্কাইভ করা আছে এখানে

এই একই ভিডিও একই ক্যাপশন সহ ফেসবুকে শেয়ার করা হয়েছে।

ফেসবুক পোস্টগুলি।

তথ্য যাচাই

আমরা বেলজিয়াম, ইসলামিক পার্টি এবং রাশিয়া এই সব কিওয়ার্ড দিয়ে সার্চ করে দেখতে পাই ওই চ্যানেলটি ইউটিউবে তাদের অ্যাকাউন্টে একটি ভিডিও আপলোড করেছে। ইউটিউবে তারা ভিডিওটি ২০১২ সালের ৩০ অক্টোবর আপলোড করেছিল।



নীচে হাইলাইট করা নিউজ টিকারে খবরটি দেখা যাচ্ছে।

আমরা পুরো প্রতিবেদনটি দেখি এবং লক্ষ্য করি যে নীচে টিকারে ২০১২ সালের বিভিন্ন ঘটনার খবর দেওয়া হচ্ছে। একটি টিকারে লেখা রয়েছে, “পুলিশ এবং প্রতিবাদীদের মধ্যে সংঘর্ষ বেড়ে যাওয়ায় বাহরিনে জনসমাবেশ নিষিদ্ধ করা হল।” আল জাজিরার প্রতিবেদন অনুযায়ী ঘটনাটি ২০১২ সালের অক্টোবর মাসের।

বিভিন্ন সংবাদ প্রতিবেদন থেকে জানা যায় যে ওই দল ২০১৮ সালের ভোটের আগেও একই দাবি করেছিল। তারা সে সময় বেলজিয়ামে মহিলা এবং পুরুষদের জন্য আলাদা আলাদা যানবাহনের দাবি করে। ২০১৮ সালের পুর নির্বাচনে এই দল তাদের দুটি আসনেই হেরে যায়।

অল্ট নিউজ আগে এই ভুয়ো খবরটির তথ্য যাচাই করেছে

Show Full Article
Next Story