Connect with us
You are here:

আমাদের পরিচিতি

বুম একটি স্বতন্ত্র ডিজিটাল সাংবাদিকতার উদ্যোগ। আমরা ভারতের প্রথম এবং প্রধান তথ্য যাচাইয়ের / ফ্যাক্ট চেকের ওয়েবসাইট। মতামতের পরিবর্তে পাঠকদের যাচাই করা তথ্য পেশ করা আমাদের মূল উদ্দেশ্য। আমরা একটি দাবি যাচাই করে, মিথ্যা বা সত্য, তা প্রমাণ করি।

যারা বাকস্বাধীনতা, ভাব প্রকাশের অধিকার এবং স্বাধিকারের জন্য লড়াই করেন, আমরা তাঁদের কথাও লিখি।

বুম পিং ডিজিটাল নেটওয়ার্ক (www.pingnetwork.in) এর অংশ এবং ভারতের একটি রেজিস্টার্ড প্রাইভেট লিমিটেড কোম্পানি। খাবার থেকে রোজকার জীবনযাপন, পিং ডিজিটাল ভিডিও নেটওয়ার্ক একটি সম্পূর্ণরূপে ডিজিটাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম। বুম নেটওয়ার্কটির সংবাদ বিভাগ এবং ২০১৪  সাল থেকে অস্তিত্বশীল। নভেম্বর ২০১৬ সাল থেকে পূর্ণসংখ্যায় তথ্য যাচাইয়ের বা ফ্যাক্ট চেকের উদ্যোগ হিসাবে বুম আরেকটি বিভাগ শুরু করে।

আন্তর্জাতিক সার্টিফিকেশন:

বুম সাউথ এশিয়ার এবং দেশের দুটি অন্যতম ফ্যাক্ট চেকিং সংস্থার মধ্যে একটি। (www.factchecker.inও একই প্রতিষ্ঠাতা দ্বারা চালু।)  দুটি সংস্থাই প্রতিষ্ঠিত  ইন্টারন্যাশনাল ফ্যাক্ট চেকিং নেটওয়ার্ক – পোয়েন্টার ইনস্টিটিউট দ্বারা প্রত্যয়িত। এই সার্টিফিকেশনটি একটি সম্পাদকীয় শক্তিশালী স্বতন্ত্র ফ্যাক্ট চেকিং ওয়েবসাইট তৈরি করার জন্য নেওয়া প্রাথমিক পদক্ষেপগুলির প্রতিফলন – যা মিথ্যা সংবাদ খারিজ করার এবং এটির বিস্তারকে রোধ করার চেষ্টা করছে।

এখানে আমাদের সার্টিফিকেশন এবং প্রক্রিয়ার একটি লিঙ্ক  https://www.poynter.org/international-fact-checking-network-fact-checkers-code-principles

পদ্ধতি:

১) তথ্য যাচাইয়ের জন্য একটি দাবি বেছে নেওয়া

আমরা সক্রিয় ভাবে খবরের উপর নজর রাখি। এবং যথাযথ ভাবে সোশ্যাল মিডিয়াতে রাজনীতিবিদ এবং প্রশাসনের সাথে যুক্ত ব্যক্তিদের জনসাধারণের উদ্দেশ্যে ব্যক্ত করা বক্তব্য, দাবি, রাজনৈতিক পর্যবেক্ষণের উপর যাচাইয়ের প্রচেষ্টা করি। আমাদের কাছে একটি হোয়াটসঅ্যাপ হটলাইন নম্বর (7700906111) রয়েছে যেখানে পাঠকেরা আমাদের বার্তাগুলি পাঠাতে পারেন যা ভাইরাল এবং সত্য যাচাইয়ের প্রয়োজন। উপরন্তু আমাদেরকে পাঠকেরা টুইটার এবং ফেসবুকেও ট্যাগ করেন নানাবিধ দাবি কে ফ্যাক্ট চেক করার জন্য। একটি দাবি উদাহরণস্বরূপ কয়েকটি কারণের উপর ভিত্তি করে নির্বাচন করা হয় – এটি কি খবরযোগ্য? এটি কি মানুষের একটি বড় সংখ্যাকে প্রভাবিত করে? বিষয়বস্তু কি উত্তেজক বা সংবেদনশীল? এবং যদি যাচাই না হয়, বিষয়টি কি মানুষের ক্ষতি করার সম্ভাবনা রাখে?

২) দাবির উৎস কে খুঁজে বের করা

একটি দাবিকে ফ্যাক্ট চেকের জন্যে বেছে নেওয়ার পর, আমরা দাবির উৎস কোথায়, তা খুঁজি।  প্রায়শই উৎসটি বিশ্বাসযোগ্য কি না তা প্রতিষ্ঠার ক্ষেত্র একটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ দিক। উদাহরণস্বরূপ, সংবাদ প্রতিবেদনগুলির ক্ষেত্রে, আমরা প্রথমে সেগুলি একটি নির্ভরযোগ্য সাইট থেকে কিনা তা নির্ধারণ করি। ছবিগুলির ক্ষেত্রে, চিত্রটি পুরানো কিনা বা এটি কোনও উপায়ে ব্যবহার করা হয়েছে বা প্রসঙ্গের বাইরে ব্যবহার করা হয়েছে কিনা তা বোঝার জন্য আমরা গুগুল (Google) এর রিভার্স ইমেজ সার্চ পদ্ধতি ব্যবহার করি। একক উৎস দাবি এবং প্রত্যক্ষদর্শী অ্যাকাউন্টের ক্ষেত্রে আমরা, যে ব্যক্তি দাবি করেছেন, তাঁর তথ্য অ্যাক্সেস করার  সুযোগ আছে কিনা তা নির্ধারণ করার চেষ্টা করি।

৩) উৎস কে যোগাযোগ করা

কোন জনপ্রিয় ব্যক্তি জড়িত দাবির ক্ষেত্রে, আমরা তাঁদের পক্ষকে বোঝার জন্য সংশ্লিষ্ট ব্যক্তির কাছে বা তাদের অফিসে যোগাযোগ করি। ঠিক কি বলা হয়েছিল এবং কোন প্রেক্ষাপটে তা জানার জন্য আমরা ভিডিও প্রমাণ বা প্রকাশ্যে উপলব্ধ ট্রান্সক্রিপ্টগুলি সন্ধান করি। রিপোর্ট বা ডেটা পয়েন্টের ক্ষেত্রে, আমরা এমন সংস্থার সাথে যোগাযোগ করি, যারা সেই প্রসঙ্গে প্রতিবেদনগুলির সন্ধান দিতে পারে।

৪) একটি দাবি সমর্থন বা নস্যাৎ করার জন্য প্রমাণ এবং তথ্য সন্ধান করা:

আমরা বিষয়ের উপর পূর্বে লিখিত সামগ্রীর মাধ্যমে বিষয়টিতে সমস্ত প্রকাশ্যে উপলব্ধ তথ্য সন্ধান করি। আমরা সরকারি ডেটাবেস, গ্লোবাল থিঙ্ক ট্যাংক, গবেষণা সংস্থা এবং অন্যান্য বিশ্বাসযোগ্য উৎসগুলির মধ্যে ডেটা অনুসন্ধান করি যা দাবি সমর্থন বা বাতিল করতে পারে। যদি আমরা তথ্য খুঁজে পেতে অক্ষম হই তবে আমরা তা প্রকাশ করি প্রতিবেদন দ্বারা।

৫) বিশেষজ্ঞদের / ব্যক্তিদের থেকে বিষয় সম্পর্কে জানা

বুম পৃথিবীতে প্রতিটি বিষয়ে দক্ষতা দাবি করে না। আমরা প্রায়ই একটি নির্দিষ্ট ক্ষেত্রে বিশেষজ্ঞদের জ্ঞাণের উপর নির্ভর করি। আমরা যতটা সম্ভব সোর্স ভিত্তিক নিবন্ধগুলি এড়াতে চেষ্টা করি এবং শুধুমাত্র যারা অন-রেকর্ড কথা বলতে ইচ্ছুক তাদের উদ্ধৃত করি।

৬) একটি ফ্যাক্ট চেক লেখা:

আমরা উপরে বিস্তারিত পদক্ষেপের উপর ভিত্তি করে আমাদের প্রতিবেদন উপস্থাপনা করি। আমরা আমাদের প্রতিবেদনগুলিতে উল্লেখ্য সুত্রের লিঙ্ক প্রদান করি। উদাহরণস্বরূপ যদি আমরা কোনও দাবি প্রমাণ করতে বা নস্যাৎ করতে অক্ষম হই, আমরা স্পষ্টভাবে তা স্বীকার করি আমাদের নিবন্ধতে এবং অনুসরণ করা সমস্ত স্টেপ তালিকাবদ্ধ করি।

৭) আমরা অবিলম্বে এবং খোলাখুলি ভাবে ভুল সংশোধন করি

বুম রিয়েল টাইম ভিত্তিতে ভুয়ো নিউজ ডিবাঙ্ক করার জন্য প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। আমরা স্বীকার করি যে কখনও কখনও আমরা ভুল হতে পারি। আমাদের ভুল হয়ে গেলে, আমরা আমাদের ভুল থেকে সরে আসি না এবং আমরা লজ্জিত হই না। কিন্তু আমাদের প্রতিবেদন অবিলম্বে সংশোধন করা হয় এবং সংশোধন সম্পর্কে আমাদের পাঠকদের অবহিত করা হয়। সংশোধন করা হয়েছে যে প্রতিবেদনগুলি, তাতে একটি উপদেষ্টা থাকে। বুম টুইটার এবং ফেসবুকের মতো সামাজিক মিডিয়া প্ল্যাটফর্মগুলিতে সক্রিয়। আমরা গঠনমূলক প্রতিক্রিয়া এবং সমালোচনা, দুটি কেই গ্রহণ করি।

Most Popular

ফেক নিউজ

To Top