ওয়েবসাইটের মতে, ট্রাকের নীচে পিষে প্রাণ প্রায় হারালেন অভিনেত্রী কমলিকা

পুরো প্রতিবেদনটিকে একটি নাটকীয় রূপ দেওয়া হয়েছে। অথচ প্রতিবেদনে কোনও তথ্য দেওয়া নেই - ঘটনাটি কোথায়, কখন এবং কবে হয়েছে এ বিষয়ে।

ওয়েবসাইটের নাম ‘বেঙ্গলি রিয়েল নিউজ’ কিন্তু তাদের এই খবরটি নিছকই ভুয়ো। একটি প্রতিবেদন দাবি করে যে বাংলা চলচ্চিত্র এবং ছোট পর্দার অভিনেত্রী কমলিকা ব্যানার্জিকে চাকায় পিষে খুন করার চেষ্টা করেছে একজন ট্রাকচালক। প্রতিবেদনের শিরোনাম – ‘বাঙালি এই জনপ্রিয় টেলি অভিনেত্রীকে চাকায় পিষে খুন করার চেষ্টা! গ্রেফতার ট্রাকচালক।‘

পুরো প্রতিবেদনটিকে একটি নাটকীয় রূপ দেওয়া হয়েছে। অথচ প্রতিবেদনে কোনও তথ্য দেওয়া নেই - ঘটনাটি কোথায়, কখন এবং কবে হয়েছে এ বিষয়ে কোন উক্তি নেই। প্রায় অন্তিম পর্যন্ত অভিনেত্রীর নাম প্রকাশ নেই শুধু আছে এক বীভৎস ট্রাক এবং গাড়ির চালকের রেষারেষির বর্ণনা। একদম শেষ পর্যায় কমলিকার ছবি এবং তার সাথে একটি বাক্য - এই মুহূর্তে আশঙ্কাজনক অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি ওই অভিনেত্রী ৷

প্রতিবেদনের লিঙ্ক এখানে দেখুন।

প্রতিবেদনের আর্কাইভ লিঙ্ক এখানে দেখুন।

বুম কমলিকার সঙ্গে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন – “প্রায় ১৫দিন আগে আমার এক বান্ধবী আমেরিকা থেকে ফোন করে জানতে চায় আমি কেমন আছি কারণ তার মা আমার ব্যাপারে একটি খবর পড়ে চিন্তিত ছিলেন। আমি তখন পাত্তা দি নি। পরে প্রায়শই আমার আত্মীয়রা আমাকে উদ্বেগ সহ ফোন করে আমার খবর নেন। তখন আমি লিঙ্কটা দেখে অবাক হই। শুধু মৃত্যুর গুজব নয়। আমার নাকি, খবর অনুযায়ী, একটি মর্মান্তিক দুর্ঘটনা হয়। এবং সবটাই মিথ্যা।“

কমলিকা ফেসবুকে একটি পোস্টের মাধ্যমে জানান যে এরকম কোনও ঘটনা ঘটেনি এবং খবরটা সম্পূর্ণ ভাবে ভুয়ো। কমলিকা প্রথম দিকে ব্যাপার টি এড়িয়ে যান, কিন্ত যখন তাঁর আত্মীয় স্বজন চিন্তিত হয়ে তাঁকে ফোনের পর ফোন করেন তখন তিনি নড়েচড়ে বসেন।তাঁর পোস্ট টি এখানে দেখুন।

ওয়েবসাইটকে কটাক্ষ করে তিনি লেখেন 'কলমে মলম লাগান'। বেঙ্গলী রিয়েল নিউজের ফেসবুক পেজ কলমে কে তিনি উল্লেখ করে এই বক্তব্য করেন। তিনি বুমকে আরও বলেন, “এই ধরণের গুজবে আমার কিছু এসে যায় না। এগুলি সাংবাদিকতার মধ্যে পড়ে না। কিন্তু আমার হিতাকাঙ্ক্ষীদের এরকম বিভ্রান্তিতে আমি ফেলতে পারব না।“

এমনকি কমলিকার একটি হিন্দি সিনেমা মেরি প্যায়ারি বিন্দুর অংশ ব্যবহার করা হয়েছে ছবি হিসেবে। ছবিটিতে আয়ুষ্মান খুরানা ও আছেন।

বুম আনুসাঙ্গিক ভাবে নানাবিধ খবরের ওয়েবসাইট সার্চ করে এই খবরের অন্য কোনও প্রতিবেদনের জন্য। কিন্ত এই সম্পর্কিত কোন খবরই বুম পায়নি। কমলিকা বলেন যে তিনি পুরোপুরি ভাবে সুস্থ এবং তাঁর কোনও দুর্ঘটনা হয়নি।

বুম কলমের সম্পাদককে তাদের ফেসবুকে দেওয়া নম্বরের মাধ্যমে যোগাযোগ করার চেষ্টা করে। কিন্তু এখনও কোনও উত্তর পাওয়া যায়নি।

Next Story