বাংলাদেশি ইন্টারনেট তারকা হিরো আলমকে নিয়ে মৃত্যুর গুজব

ফেসবুকে চরম ভাবে শেয়ার হয় আলমের মৃত্যুয়র খবর, জানুয়ারি ২৪ থেকে। এবং সঙ্গে সঙ্গে দুঃখের ঝড় নেবে আসে আলমের ভক্তদের মধ্যে।

ফের মৃত্যুর গুজব। এবার শিকার হলেন বাংলাদেশি মডেল এবং অভিনেতা হিরো আলম। তিনি গত সপ্তাহে সোশ্যাল মিডিয়াতে একটি মৃত্যুর গুজবের শিকার হন। ফেসবুকে চরম ভাবে শেয়ার হয় আলমের মৃত্যুয়র খবর, জানুয়ারি ২৪ থেকে। এবং সঙ্গে সঙ্গে দুঃখের ঝড় নেবে আসে আলমের ভক্তদের মধ্যে।

প্রচুর পরিমাণে শেয়ার হওয়া পোস্টগুলি দাবি করে যে হিরো আলম আর আমাদের মধ্যে নেই। শুধু ফেসবুক নয়, বার্তা নিয়ে বেশ কিছু ইউটিউব ভিডিও পর্যন্ত আপলোড হয় গত সপ্তাহে। ফেসবুকের কিছু পোস্ট এখানে দেখুন। পোস্টের সাথে একটি শোকবার্তা - হিরো আলম। ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাহি রাজিউন। হিরো আলম আর নেই এই হত্যাকান্দের বিচার চাই। কিছু পোস্টের আর্কাইভ দেখতে এখানে ক্লিক করুন।

কিন্তু সোশ্যাল মিডিয়াতে ছড়ানো গুজবটি একেবারেই ভুয়ো বলে জানা যায়। বাংলাদেশের ‘মিম গড’ হিরো আলম, যিনি পূর্বে একজন ছোট ব্যাবসায়ী ছিলেন, একটি বিশেষ অনুষ্ঠানের জন্যে ঢাকা মহানগর মীরপুরে যান। সেখানে তাঁকে সম্বর্ধনা দেওয়ার কথা ছিল। কিন্তু তিনি হঠাৎ অজ্ঞান হয়ে যান। মূল প্রতিবেদনটি পড়তে এখানে ক্লিক করুন।

গুজব শোনার পর, আলম নিজেই একটি সংবাদ মাধ্যমকে টেলিফোন করে তাঁর সুস্থতার ব্যাপারে জানান। ফেসবুক পোস্টে যেই ছবি গুলি ভাইরাল হচ্ছে সেগুলি আলমের অজ্ঞান হওয়ার সময়কার। শোনা যাচ্ছে যে হিরো আলম নিজের মৃত্যুর গুজবে বেশ চটে গেছেন। এছাড়া নিজেই বুধবার দুপুরে একটি অনলাইন নিউজকে ফোন করে জানিয়েছেন ‘খবরটি সম্পূর্ণ মিথ্যা ও গুজব। কোন একটি মহল গুজবটি ছড়িয়েছে। আমিও তো একজন মানুষ, যে যেকোন মুহূর্তে অসুস্থ হতেই পারি, তাই বলে জীবিত মানুষকে ইন্তেকাল দেখিয়ে মিথ্যা গুজব কেন?’ প্রশ্ন রাখেন এই অভিনেতা।

ঘটনার বিবরণ দিয়ে হিরো আলম একটি পোস্ট শেয়ার করেন, যেটিতে পরিষ্কার উল্লেখ আছে যে সোমবার (২১ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের অর্ধশত নেতৃবৃন্দসহ সংসদ ভবনের পাশেই নব থিয়েটারে ঘুরতে যান তিনি। সেখানে প্রবেশের আগেই ছবি তুলতে তাঁর ভক্তরা ছুটে আসে। এসময় হঠাৎ তিনি অচেতন হয়ে পড়লে উপস্থিত পুলিশ সদস্যদের সহায়তায় প্রথমে তাঁকে আল রাজি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। পরে জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউট হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে সঙ্গে সঙ্গে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা যথাযথ ব্যবস্থা নেয়ায় তিনি দ্রুত সুস্থ হয়ে ওঠেন। এবং পরদিন সকালেই বাড়ি ফিরে যান। “বর্তমানে আমি ভালো এবং সুস্থ আছি। তবে আমার সম্পর্কে কিছু মানুষ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে গুজব ছড়াচ্ছে, যা একেবারেই বোধগম্য নয়। মানুষের মৃত্যু নিয়ে মিথ্যা বানোয়াট কথাবার্তা খুবই দুঃখজনক," যোগ করেন হিরো আলম।

Show Full Article
Next Story