সত্যিই কি আমির, সলমন ও শাহরুখ খান ঝাড়খণ্ডে গণপিটুনিতে নিহতের স্ত্রীর সঙ্গে দেখা করেছেন?

বুম এই অভিনেতাদের প্রতিনিধি এবং তাবরেজ আনসারির পরিবারের সঙ্গে কথা বলেছে এবং ভাইরাল হওয়া পোস্টের এই দাবি তাঁরা নাকচ করে দিয়েছেন।

সোশ্যাল মিডিয়ায় বেশ কিছু ভিডিয়ো ঘুরছে, যেগুলিতে দাবি করা হচ্ছে যে বলিউডের প্রথম সারির কয়েকজন অভিনেতা ঝাড়খণ্ডে গণপ্রহারে মৃত তাবরেজ আনসারির পরিবারের সঙ্গে দেখা করেছেন। দাবিটি ভিত্তিহীন।

এই ভিডিওগুলি কিছু অন্য ঘটনার ফুটেজ দিয়ে নিউজ বুলেটিনের আকারে তৈরি করা হয়েছে। ভিডিওগুলিতে দেখানো হয়েছে কী ভাবে অভিনেতা আমির খান, সলমন খান এবং শাহরুখ খান ঝাড়খণ্ডে গিয়ে নিহতের শোকাহত পরিবারের সঙ্গে দেখা করে তাঁদের দুঃখ ভাগ করে নেন।

বুম আমির খান প্রোডাকশনস-এর প্রতিনিধির সঙ্গে যোগাযোগ করলে তিনি এই গুজবগুলিকে নস্যাৎ করে জানান, “এটা একেবারেই মিথ্যে। মিস্টার খান নিজের কাজের প্রয়োজনে সফর করছেন, সুতরাং এই সাক্ষাতের কোনও সম্ভাবনাই ছিল না।”

২০১৯-এর ১৮ জুন ঝাড়খণ্ডে তাবরেজ আনসারি নামে এক দিনমজুরকে খুঁটির সঙ্গে বেঁধে গণপ্রহার করা হয়। তাঁকে ‘জয় শ্রীরাম’ ‘জয় হনুমান’ বলতে বাধ্য করা হয়। আনসারিকে চুরির অভিযোগে গ্রেফতার করা হয় ও পুলিশ হেফাজতে পাঠানো হয়। আঘাতের কারণে পরে হাসপাতালে তাঁর মৃত্যু হয়।

ভাইরাল হওয়া ভিডিওটি দাবি করেছে যে বলিউড তারকা সলমন খান, শাহরুখ খান এবং আমির খান তাবরেজ আনসারির স্ত্রী শাইস্তা পারভিনের সঙ্গে দেখা করেন। ১১ মিনিটের ভিডিওটিতে আমির খানের একটি ছবি জুড়ে দেওয়া হয় শোকাহত পারভিনের পাশে, যাতে মনে হয় যে আমির সত্যিই এই পরিবারটির সঙ্গে কথা বলেছেন।

এই প্রতিবেদনটি লেখার সময় এই ভিডিওটি প্রায় ৪ লক্ষ বার দেখা হয়েছে।

ভিডিওটি আর্কাইভ করা আছে এখানে

বুম যাচাই করে নিশ্চিত হয়েছে যে ভিডিওতে ব্যবহৃত আমির খানের ছবিটি পুরানো এবং এই ঘটনার সঙ্গে ওই ছবিটির কোনও সম্পর্ক নেই। আমরা দেখেছি, আমির খানের গোলাপি টি-শার্ট পরিহিত ছবিটি ২০১২ সাল থেকে ইন্টারনেটে দেখা যাচ্ছে এবং আমির খানের এখনকার দাড়ি সমেত চেহারার সঙ্গে ছবির চেহারার কোনও মিল নেই।

ওই পোস্টের স্ক্রিনশট (নীচে) আমির খানের মায়ের জন্মদিনে তাঁর টুইট করা ছবি।


ভিডিওটির একটি ক্লিপে আমির খানকে বলতে শোনা যায়, “আমি মানসিক ভাবে আহত কারণ আমার রাগ হচ্ছে, আমি অসহায় বোধ করছি এবং সব কিছু ছেড়ে আমি তাকে সাহায্য করতে চাইছি। আমার পক্ষে এটা দেখা খুবই কঠিন...” এবং বলতে বলতে তিনি খুব আবেগতাড়িত হয়ে পড়ছেন। এই অংশটি খুব কুশলতার সঙ্গে ভিডিওটিতে ঢোকানো হয়েছে যাতে এটি দেখে বোঝা যায় ঘটনাটি তাঁর উপর কতটা প্রভাব ফেলেছে।

বুম অনুসন্ধান করে দেখেছে যে ভিডিওটি আসলে ‘সত্যমেব জয়তে’র ৩য় পর্বের সূচনা অনুষ্ঠান থেকে নেওয়া।



ভিডিওটিতে এই ঘটনার সঙ্গে সম্পর্কহীন একটি মন্তব্য “যে ধর্ম বা জাতিরই মানুষ হোন না কেন, যদি এরকম ঘটনা কোনও ব্যক্তির সঙ্গে ঘটে, তবে তা আমাদের দেশের জন্য অত্যন্ত দুঃখজনক ঘটনা।” এই মন্তব্যটিকে আমির খানের উক্তি বলে দেখানো হয়েছে।

সলমন খান ও শাহরুখ খান সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলছেন, এই রকম ভিডিওক্লিপও এই পোস্টটিতে জুড়ে দেওয়া হয়েছে, এবং দাবি করা হয়েছে যে তাঁরা তাবরেজ আনসারি সম্পর্কে কথা বলছেন।

সত্যিই কি সলমন খান তাবরেজ আনসারির পরিবারকে ২ লক্ষ টাকা দিয়েছেন?

ইতিমধ্যে গতমাসে ইন্টারনেটে আরও কিছু ভাইরাল পোস্ট দেখা গেছে যাতে দাবি করা হয়েছে যে সলমন খান তাবরেজের পরিবারের দিকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন এবং আইনি কাজের সমস্ত খরচ তিনি বহন করবেন।



বুম বোকারোর বাসিন্দা আফজল আনিস নামে তাবরেজের এক দূরসম্পর্কের আত্মীয়ের সঙ্গে যোগাযোগ করলে তিনি এইসব দাবি অস্বীকার করেন এবং জানান, “সলমন খানের অফিস থেকে আমাদের সঙ্গে এরকম কোনও যোগাযোগ করা হয়নি। আমরা তাবরেজের মামলার আইন সংক্রান্ত বিষয়টি দেখছি এবং আমাদের কাছে এরকম কোনও তথ্য নেই। শাহরুখ খান তাবরেজের পরিবারের সঙ্গে দেখা করেছেন, এই গুজবটিও মিথ্যে।” আমরা পুলিশ সুপার কার্তিক এস-র সঙ্গেও কথা বলেছি। তিনিও এইসব দাবি নস্যাৎ করে দিয়েছেন। বুম সলমন খানের ম্যানেজারের মাধ্যমে বার বার তাঁর সঙ্গে কথা বলার চেষ্টা করেছে।  সলমন খানের কাছ থেকে কোনও উত্তর এলে তা এই প্রতিবেদনের মাধ্যমে জানানো হবে।

আরও পড়ুন: ঝাড়খণ্ডে গণপ্রহারে মৃতের স্ত্রী আত্মহত্যা করার চেষ্টা করলেন, ভাইরাল ভিডিয়োর এই দাবিকে নস্যাৎ করল পরিবার

Claim Review :  আমির খান তাবরেজ আনসারির পরিবারের সঙ্গে দেখা করে
Claimed By :  FACEBOOK POSTS
Fact Check :  FALSE
Show Full Article
Next Story