মহিলা রাজনৈতিক কর্মীর উপর নির্যাতনের পুরনো স্ক্রিন গ্র্যাব ভুল ব্যাখ্যা দিয়ে ফের ভাইরাল

বিজেপির ডাকা বন্ধে তৃনমূল কর্মী দ্বারা আক্রান্ত হন এক মহিলা। দিনহাটায় ছাত্রমৃত্যুর প্রতিবাদে রাজ্যজুড়ে বিজেপির হরতাল ডেকেছিল ওই দিন।

একজন সোস্যাল মিডিয়া ব্যবহারকারী ১২ এপ্রিল ২০১৯ একটি ফেসবুক পোস্টে বিজেপির উপর আঙ্গুল তুলে দাবি করেছেন যে দলের কর্মীরা মহিলাদের সম্মান করতে জানেন না । ছবিটির দৃশ্যে একজন পুরুষকে একজন মহিলার পিঠে লাথি মারতে দেখা যাচ্ছে। পাশে কয়েক জন পুলিশ কর্মীকেও দেখা যাচ্ছে। পোস্টটি ১০৪ জন লাইক ও ৩৫৪ জন শেয়ার করেছেন। পোস্টটি এখানে আর্কাইভ করা আছে।

ফেসবুক ইউজার ক্যাপশনে লিখেছেন, “মহিলাদের সম্মানে বিজেপি।” যা প্রকৃতপক্ষে বিজেপি দলকে কটাক্ষ করছে এবং বিরোধী দলের মহিলাদের সুরক্ষার উপর প্রশ্ন তুলছে।

ছবিটিতে সংবাদমাধ্যম ইনাডু বাংলার লোগো রয়েছে । এটি একটি পুরনো ভাইরাল ভিডিওর স্ক্রিন গ্র্যাব।

তথ্য যাচাই

বুম ছবিটি যাচাই করে দেখেছে। ভিডিওটি ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮ বারাসাতের। উত্তর দিনাজপুর জেলার দিনহাটায় দুজন ছাত্রমৃত্যুর প্রতিবাদে বিজেপি রাজ্যজুড়ে ১২ ঘন্টা হরতাল ডাকে। রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় রেল অবরোধ হয়।

অবরোধ চলাকালীন বারাসাতে নীলিমা দে সরকার নামের একজন বিজেপি কর্মী তৃণমূল কর্মী-সমর্থক দ্বারা আক্রান্ত হন। কিছুক্ষন পর তিনি টেলিভিশন চ্যানেলে বাইট দিতে গেলে আবারও আক্রান্ত হন। নীচে ভিডিওটির ইউটিউব লিঙ্ক দেওয়া হল।





এনডিটিভিতে প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী, তৃনমূলের দখলে থাকা স্থানীয় পঞ্চায়েত প্রধান আসাদুজ্জামানের নেতৃত্বে ওই হামলার ঘটনা ঘটে। নীলিমা দে সরকার পরে অভিযুক্তদের শাস্তির দাবিতে স্থানীয় আদালতের দারস্থ হন। ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসে এব্যপারে প্রকাশিত প্রতিবেদন পড়া যাবে এখানে

Claim Review :   মহিলাদের উপর নির্যাতন চালাচ্ছে বিজেপি
Claimed By :  FACEBOOK POSTS
Fact Check :  MISLEADING
Show Full Article
Next Story