দিল্লিতে মুসলমানরা কি কাশ্মীরের প্রতি সমর্থন জানাতে জড়ো হয়েছিলেন? একটি তথ্য যাচাই

বুম দেখে যে, গণপিটুনিতে হত্যার বিরুদ্ধে কড়া আইন আনার দাবিতে ওই সমাবেশ হয়েছিল।

একটি ভিডিওতে মুসলমানদের এক মিছিলকে রাস্তা দিয়ে যেতে দেখা যাচ্ছে। বলা হচ্ছে তাঁরা নাকি জম্মু ও কাশ্মীরে ৩৭০ ধারা বাতিল এবং ওই রাজ্যকে কড়া নিরাপত্তা বলয়ের মধ্যে রাখার প্রতিবাদে রাস্তায় নেমেছেন। দাবিটি মিথ্যে।

টুইট

টুইটটি দেখা যাবে এখানে। টুইটটি আর্কাইভ করা আছে এখানে

ওই পোস্টে বলা হয়েছে, "কলোম্বাস স্কুল থেকে শঙ্কর রোডের দু ধারে, ইউপি ও হরিয়ানা থেকে আসা বাস দু'টো লাইন করে দাঁড় করানো হয়েছে…তালকাটোরা স্টেডিয়ামের চারপাশে ২/৪ লাখ মুসলমান জমায়েত হচ্ছে।"

ফেসবুক পোস্ট

ফেসবুক পোস্ট

তথ্য যাচাই

ওই পোস্টের কিছু প্রধান শব্দ দিয়ে বুম গুগুল সার্চ করে। তার ফলে, সামনে আসে 'টাইমস অফ ইন্ডিয়ার' একটি প্রতিবেদন। সেখানে বলা হয়, ৫ অগস্ট, ২০১৯ তারিখে, মুসলমানদের একটা সমাবেশ হয়। গণপিটুনির বিরুদ্ধে কড়া আইন প্রণয়নের দাবি তোলা হয় ওই সমাবেশে।

টিওআই-এর প্রতিবেদন।

দিল্লির তালকাটোরা স্টেডিয়ামে এক 'শান্তি ও একতা সম্মেলন'এর আয়োজন করে জামিয়াত উলেমা-ই-হিন্দ (জেইউএইচ)। তাতে বিভিন্ন ধর্মের নেতারা অংশ নেন।

তাছাড়া, 'তালকাটোরা স্টেডিয়াম', এই দুই শব্দ দিয়ে ফেসবুকে সার্চ করলে, আমরা ৫ অগস্ট ২০১৯ তারিখের ওই অনুষ্ঠানের কিছু ভিডিওর সন্ধান পাই।

যে কেউ ওই একই ধরনের পতাকা লক্ষ করতে পারবে। পোস্টটির ক্যাপশনে ফেসবুক ব্যবহারকারী ওই স্টেডিয়ামেরই নাম উল্লেখ করেন এবং তাতে এটাও বলা হয় যে, গণপিটুনির নানা ঘটনার প্রতিবাদে ওই সমাবেশ করা হয়। পোস্টটিতে বলা হয়, "আজ দিল্লির তালকাটোরা স্টেডিয়ামে, জামিয়াত উলেমা-ই-হিন্দ শান্তি একতা সম্মেলনের আয়োজন করে। সেখানে দেশজুড়ে গণপ্রহার, ধর্মের নামে মারপিট, আর তিন তালাকের মতো বিষয় সম্পর্কে সরকারের দৃষ্টি আকর্ষণ করা হয়।"

জামিয়াত উলেমা-ই-হিন্দের ফেসবুক পেজেও ওই সমাবেশের বেশ কিছু ছবি পাওয়া যায়। সেগুলির সঙ্গে ভাইরাল ভিডিওটি মিলে যায়। কারণ, তাতেও জামিয়াত উলেমা-ই-হিন্দের পতাকাগুলি স্পষ্ট দেখা যাচ্ছিল।

Updated On: 2020-09-14T14:42:34+05:30
Claim Review :   কাশ্মীর নিয়ে দিল্লীতে মুসলিমদের প্রতিবাদ
Claimed By :  FACEBOOK POSTS
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story