জয় শ্রী রাম বলে জেলে যাওয়া যুবকদের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী কী সম্বর্ধনা দিয়েছেন?

পোস্টের নীচে কমেন্টে গোপাল গয়ালি নামে একজন কে ট্যাগ করে একজন ব্যবহারকারী লিখেছেন "তুই কবে জেলে গেল?" সেখানে গোপাল গয়ালি রিপ্লাই দিয়েছেন, "আমি ও জানি না।"

একটি ফেসবুক গ্রুপের পোস্টে দাবি করা হয়েছে জয় শ্রী রাম বলে জেলে যাওয়া পশ্চিমবঙ্গের যুবকদের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি দেখা করেছেন। পোস্টটিতে তিনটি ছবি দেওয়া হয়েছে। পোস্টটিতে দেওয়া একটি ছবিতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে একজন নীল জামা পরিহিত এক যুবককে করমর্দন করতে দেখা যাচ্ছে।

অন্য আর একটি ছবিতে সাদা জামা পরিহিত এক যুবকের কাঁধে হাত রেখেছেন প্রধানমন্ত্রী। ওই ছবিটিতে নীল জামা পরিহিত যুবককে প্রধানমন্ত্রীর সামনে নমস্কারের ভঙ্গিমাতে দেখা যাচ্ছে। তৃতীয় ছবিটির সঙ্গে ভঙ্গিমা সদৃশ্য রয়েছে প্রথম ছবিটির। প্রথম ছবিটি তৃতীয় ছবি থেকে কেটে নেওয়া বলে অনুমান করা যায়। ওই পোস্টটিতে ক্যাপশন লেখা হয়েছে, "যে ভায়েরা জয় শ্রী রাম বলে জেলে গিয়েছিল তাদের সাথে দেখা করলেন স্বয়ং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি জি….!! জয় শ্রী রাম। ভারত মাতা কি জয়।"

এই প্রতিবেদনটি লেখার সময় প্রর্যন্ত পোস্টটি ১৪ হাজার লাইক পেয়েছে ও ৫৮০ জন শেয়ার করেছেন। পোস্টটি এখানে আর্কাইভ করা আছে। একটি ব্লগেও এই বিষয় নিয়ে লেখা হয়েছে।

ভাইরাল হওয়া পোস্টটির স্ক্রিনশট।

তথ্য যাচাই

ওই পোস্টের নীচে কমেন্টে গোপাল গয়ালি নামে একজন কে ট্যাগ করে একজন ব্যবহারকারী লিখেছেন "তুই কবে জেলে গেল?" সেখানে গোপাল গয়ালি রিপ্লাই দিয়েছেন, "আমি ও জানি না।"

ফেসবুকে ওই পোস্টে গোপাল গয়ালির দেওয়া রিপ্লাই।

বুম এখান থেকে গ‍োপাল গয়ালির ফেসবুক প্রোফাইলের হদিস পায়। ফেসবুক প্রোফাইলের ছবিতে গোপাল গয়ালিকে থিঙ্ক ইন্ডিয়া সম্মেলনে বক্তব্য পেশ করতে দেখা যাচ্ছে। যেখানে লেখা রয়েছে, "আই সাপোর্ট সিটিজেনশিপ অ্যামেন্ডমেন্ড বিল ২০১৬।" থিঙ্ক ইন্ডিয়া ২০০৭ সালে বিজেপির ছাত্র সংগঠন এবিভিপির মতাদর্শে গঠিত হয়।

২০১৯ এর ১৪ মে একটি পোস্টে গোপাল গয়ালি লিখেছেন,

কদিন আগে আমি মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে একটা ফটো পোস্ট করেছিলাম কিন্তু সোশ্যাল মিডিয়া তে আমার ফটো ভাইরাল হয়েছে এবং লিখেছে আমি নাকি জয় শ্রী রাম বলে জেলে গিয়েছিলাম তাই প্রধানমন্ত্রী আমার সঙ্গে দেখা করেছে।
এটা সম্পূর্ণ গুজব আমি কোন দিন জেলে যায়নি। আমার বন্ধুরা জানে আমি অনেক ছোট থেকে রাজনৈতিক ভাবে সক্রিয় তাই হয়তো সুযোগটা পেয়েছি। আপনাদের কাছে অনুরোধ এইসব ভুল পোস্টে দেখলে প্রতিবাদ করুন। আর যে নিউজ লিঙ্ক গুলো বেরিয়েছে, না জেনে নিউজ করার জন্য তাদের কে ধিক্কার জানাই। শেয়ার করে সবাইকে জানিয়ে দেওয়ার জন্য অনুরোধ করছি, ধন্যবাদ।


২০১৯ এর ১৪ মে লেখা গোপাল গয়ালির ফেসবুক পোস্ট। পোস্টটি আর্কাইভ করা আছে এখানে
গোপাল গয়ালির ফেসবুক পোস্টটির স্ক্রিনশট।


বুমের তরফে গোপাল গয়ালির ফেসবুকে মেসেজ করা হয়েছে। তার মন্তব্য পাওয়া গেলে প্রতিবেদনটি পরিমার্জন করা হবে।

তার সঙ্গে ছবিতে থাকা যুবক যার কাঁধে প্রধানমন্ত্রী হাত রেখেছেন তার পরিচিতি বুমের পক্ষে যাচাই করা সম্ভব হয়নি।

উল্লেখ্য, পশ্চিম মেদিনীপুরের চন্দ্রকোনা যাবার পথে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কনভয়ের সামনে কয়েকজন ব্যক্তির 'জয় শ্রী রাম' বলার ভিডিও ভাইরাল হয়েছিল। পুলিশ তাদের আটক করলেও পরে তাদের ছেড়ে দেওয়া হয়।

যদিও নির্বাচনী প্রচারে এসে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেন ভগবান রামের নাম ও জয় শ্রী রাম বলার জন্য জেলে ভরা হচ্ছে।

অবশ্য, শুধুমাত্র জয় 'শ্রী রাম' বলে জেলে যেতে হয়েছে এপর্যন্ত এরকম কোনও খবর বুম খুজে পায়নি।

Updated On: 2020-09-10T10:22:22+05:30
Show Full Article
Next Story