ইন্টারনেটের মতে বাবা-মা ইদানীং উইং কমান্ডার অভিনন্দনের নামে নবজাতকের নাম রাখছে - সত্য কি?

বুম আলাদা করে শিশুদের ছবিগুলি যাচাই করতে পারেনি, তবে অনেক টুইটেই যে একই শিশুর ফোটো দেওয়া হয়েছে, সে বিষয়ে সন্দেহ নেই ।

উইং কমান্ডার অভিনন্দন বর্তমানের মুক্তির এক সপ্তাহ পরে বায়ুসেনার ভাষায় এই ‘আকাশ-নায়ক’-এর নাম এখন ঘরে-ঘরে । এই বীর আকাশ-যোদ্ধার দৃষ্টান্তে অনুপ্রাণিত হয়ে অনেকেই তাঁদের নবজাতকের নাম অভিনন্দন রাখছেন—বিশেষত টুইটার ব্যবহারকারীদের মতে তাই সত্য। অভিনন্দনের রেহাইের পর টুইটারে প্রচুর মানুষ দাবি করে যে তাদের পরিবারের নবজাতকদের নাম অবিলম্বে অভিনন্দন রাখা হচ্ছে। সেই দাবির সহ আছে একটি ছোট শিশুর ছবি।



এমনই একজন টুইটার ব্যবহারকারী স্বাতী রানি । যদিও ছবিটি এখন সরিয়ে নেওয়া হয়েছে, ফেসবুকে টুইটের একটি স্ক্রিনশট আছে।

এ ভাবে নবজাতকের নাম রাখার প্রবণতার কথা জনপ্রিয় বাংলা ওয়েব-পোর্টাল সংবাদ প্রতিদিনও উল্লেখ করেছে একটি বিশেষ প্রতিবেদনে।

এ সংক্রান্ত লিংকটি এখানে দেখুন । ফেসবুকে এ সংক্রান্ত পোস্টটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন । প্রতিবেদনটির আর্কাইভ বয়ান দেখতে পারেন এখানে । এবং ফেসবুক পোস্টের আর্কাইভ এখানে দেখুন।

ওয়েব পোর্টাল যেটা খেয়াল করেনি, তা হল, অনেক টুইটার ইউজারই একই বিবরণী ব্যবহার করেছেন, যেমন—“আমার কাকিমা/পিসিমা/মাসি/মামিমা এক নবজাতক প্রসব করেছেন এবং আমরা তার নাম রেখেছি অভিনন্দন । আমাদের উদ্দীপনা এখনও তুঙ্গে । বলুন, নামটা কেমন হয়েছে!”

সেই বিষয়ে বিস্তারিত টুইট দেখুন এখানে ।



বেশ কয়েকটি টুইটে কাকিমা, পিসিমা, মামিমা ইত্যাদির জায়গায় বসানো হয়েছে ভাই-এর নাম এবং সঙ্গে কোনও মহিলার কথা, কিন্তু বাকি কথাগুলি হুবহু এক ।

শুধু কি তাই! নবজাতকের ফোটো হিসাবে যা প্রকাশ করা হয়েছে, তার অনেকগুলোই কোনও সদ্যোজাতের ছবিই নয়, বরং বেশ খানিকটা বড় হয়ে যাওয়া শিশুর ছবি বলে বেশ কয়েকজন টুইটার ব্যবহারকারীই খেয়াল করেছেন ।

বুম আলাদা করে শিশুদের ছবিগুলি যাচাই করতে পারেনি, তবে অনেক টুইটেই যে একই শিশুর ফোটো দেওয়া হয়েছে, সে বিষয়ে সন্দেহ নেই ।

২৭ ফেব্রুয়ারি ভেঙে পড়তে থাকা জেট বিমাল থেকে পাক-অধিকৃত কাশ্মীরের আকাশে প্যারাশুটে বেরিয়ে ভারতীয় বায়ুসেনার উইং কমান্ডার অভিনন্দন বর্তমান পাক সেনার হাতে বন্দি হন । শান্তির বার্তা দিতে পাকিস্তান সরকার ৫৮ ঘন্টা পরে তাঁকে মুক্তি দেয় ।

Claim Review :   Newborns named after Wing Commander Abhinandan
Claimed By :  Tweets
Fact Check :  MISLEADING
Show Full Article
Next Story