সাংবাদিক রবীশ কুমার কী মুসলিমদের আবেগময় কিছু বার্তা দিয়েছেন?

বুম রবীশ কুমারের সাথে যোগাযোগ করলে, তিনি জানান, যে খবরটা সম্পূর্ণ ভাবে ভুল।

সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া একটি বার্তায় দাবি করা হয়েছে, এনডিটিভির সাংবাদিক রবিশ কুমার ভারতের মুসলিমদের প্রতি আবেগময় আবেদন করেছেন তারা যেন বিজেপি ও আরএসএসের বিরুদ্ধে সমালোচনা না করে।

ওই পোস্টটির সত্যতা সম্পর্কে জানতে বুম বাংলার একজন পাঠক আমাদের হোয়াটসঅ্যাপ নম্বর ৭৭০০৯০৬১১১ এ বার্তাটি পাঠিয়েছেন। বার্তাটি হল,

“… ১) আপনারা বিজেপি ও আরএসএসের সমালোচনা করা বন্ধ করুন।…মুসলিম যারা নির্বাচনে আসন জিততে চান তাদের লড়তে হবে বিজেপি ও আরএসএসের বিরুদ্ধে। আপনাদের বিরোধিতার ফলে বিজেপি সক্ষম হয়েছে মাত্র ১৮% মুসলিমের বিরুদ্ধে হিন্দুদের মধ্যে ভয় সঞ্চার করতে। যে ভয়টাকে মূলধন করে বিজেপি ৮০% হিন্দু ভোট টানতে সক্ষম হয়েছে। আর এই নির্বাচনী খেলাটার নিয়ন্ত্রক হলো মাত্র ৩% ভোট!..আপনাদের যে দলকে পছন্দ সেই দলকে ভোট দিন, কিন্তু কখনই সরবে বিরোধিতা করবেন না বিজেপি, আরএসএস ও মোদির।…’’

(সংক্ষিপ্ত, মূল বার্তাটির স্ক্রিনশট ছবি নীচে দেওয়া আছে)
বুমের হোয়াটসঅ্যাপ হেল্পলাইনে আসা বার্তাটি। (প্রথম অংশ)
বুমের হোয়াটসঅ্যাপ হেল্পলাইনে আসা বার্তাটি। (শেষ অংশ)

তথ্য যাচাই

বুম বাংলার তরফে রবিশ কুমারের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়েছিল। তিনি বুম বাংলাকে বলেন,

“ ভুল এটা। কারও আলোচনা করার আবেদন আমি করতে পারিনা। আমি একরম কিছু আহ্বান করিনি। আমার নামে এই সব মিথ্যে প্রাচারিত হচ্ছে।’’

“ ग़लत है। किसी की भी आलोचना नहीं करने की अपील मैं नहीं कर सकता। मैंने ऐसी कोई अपील नहीं की है। झूठ चल रहा है मेरे नाम से।’’

রবীশ কুমার, সাংবাদিক

‘রবিশ কুমার আপিলস টু মুসলিম’ লিখে সার্চ করলে এই প্রসঙ্গে অনেক ভুয়ো খবর ভেসে ওঠে।

গুগুল সার্চের ফলাফল।

সিয়াশাতকাশ্মীর পেন-এ এই ব্যপারটি নিয়ে খবর প্রকাশিত হয়। সিয়াশাত-এর ফেসবুক পোস্ট-এ খবরটির লিঙ্ক প্রকাশ করা হয়। পোস্টটি আর্কইভ করা আছে এখানে। ২২,০০০ এর বেশি লাইক ও ৫৮৩ জন শেয়ার করেছিল পোস্টটি।

সিয়াশাত-এর ফেসবুক পোস্ট-এর স্ক্রিনশট।

বুম আরও দেখেছে ওই বার্তাটি সে সময় ইংরেজি এবং বাংলা ভাষতে ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছিল।

ফেসবুকে ভাইরাল হওয়া ভুয়ো বার্তাটি।
ফেসবুকে ভাইরাল হওয়া ভুয়ো বার্তাটি।
ফেসবুকে ভাইরাল হওয়া ভুয়ো বার্তাটি।

Claim Review :   এনডিটিভির সাংবাদিক রবীশ কুমারের মুসলিমদের উদ্দেশ্যে আবেগময় বার্তা
Claimed By :  SOCIAL MEDIA
Fact Check :  FAKE
Show Full Article
Next Story