তাওয়াং-এর বিমান দুর্ঘটনার অস্বস্তিকর ছবি পুলওয়ামায় জঙ্গি হামলা বলে শেয়ার করা হচ্ছে

তাওয়াঙে ২০১৭ সালে একটা হেলিকপ্টার ভেঙে পড়ার ছবিকে পুলওয়ামায় সাম্প্রতিক জঙ্গি হামলার সময়ের ছবি বলে চালানো হচ্ছে

জম্মু-কাশ্মীরের পুলওয়ামা জেলায় জঙ্গি হামলার কয়েক ঘন্টার মধ্যেই সোশাল মিডিয়ায় ভুয়ো খবর ও ভুল তথ্যের বান ডেকেছে । এ রকমই একটি ভুয়ো তথ্য হল পুড়ে খাক হয়ে যাওয়া একটি মৃতদেহের চারপাশে দাঁড়িয়ে থাকা জওয়ানদের ভাইরাল হওয়া ছবি । হিন্দিতে লেখা ছবিটির ক্যাপশন হলঃ “আজ আরও একবার এক মায়ের হৃদয় কেঁদে উঠছে, আরও একবার এক প্রেমিকা তার প্রেমিককে হারাচ্ছে ।”

নীচের ফেসবুক পোস্টটি বড় রোমহর্ষকঃ

ফেসবুকের বেশ কয়েকটি পেজ এই ছবিটি শেয়ার করেছে একই ক্যাপশন দিয়ে, যার আর্কাইভ বয়ানটি এখানে দেখতে পারেন।

তথ্য যাচাই

বুম যখন ছবিটির খোঁজ চালালো, তখন দেখা গেল, আরও অনেকেই ছবিটি টুইট করেছে । ভাইরাল হওয়াছবিটিতে পোড়া মৃতদেহের পাশে পড়ে থাকা কার্ডবোর্ডের বাক্সগুলির জন্য ছবিটির উৎস শনাক্ত করা সহজ হয় । ২০১৭ সালে একটি হেলিকপ্টার দুর্ঘটনায় প্রাণ হারানো ৭ জন সামরিক বাহিনীর জওয়ানের মৃতদেহ বিমানঘাঁটিতে নিয়ে আসার জন্য ভারতীয় বিমান বাহিনী তীব্র তিরস্কারের সম্মুখীন হয় ।

সে দিনের কার্ডবোর্ড বিতর্ক মিডিয়ায় ব্যাপকভাবে আলোচিত হয় এবং টুইটারে শেয়ার হওয়া কিছু ছবি (ভাইরাল হওয়া ছবিটি সহ) ২০১৭ সালের ৭ অক্টোবরের সেই হেলিকপ্টার দুর্ঘটনা থেকেই নেওয়া ।

এর আগে বুম অন্য একটি প্রসঙ্গে ভাইরাল হওয়া ওই ছবিগুলি সম্পর্কে রিপোর্ট করেছিল । রিপোর্টটি এখানে দেখুন।

ফেসবুকের ভাইরাল হওয়া পোস্ট থেকে আমরা ওই ছবিটি পাইনি, তবে টুইটারে অন্যান্য ছবির সঙ্গে ভাইরাল হওয়া ওই ছবিটির সন্ধান পেয়েছি ।

ইতিমধ্যে আমরা মেঘালয়ের একটি অনলাইন ওয়েব-পোর্টাল উইর্তা (Wyrta) থেকেও ওই ছবিটি খুঁজে পেয়েছি । রিপোর্টটি পনার ভাষায় লেখা, যা মেঘালয়ের জয়ন্তিয়া জনজাতির পনার গোষ্ঠীর মুখের ভাষাl রিপোর্টটি এখানে দেখতে পারেন।

Claim Review :   Image of burnt body of a soldier circulated as that from Pulwama attack
Claimed By :  Facebook pages
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story