হ্যাঁ, Myanmar-এ সেনা অভ্যুত্থানের সময়ে নাচছিলেন এই এরোবিকস প্রশিক্ষক

বুম দেখে ভাইরাল হওয়া এই ভিডিওটি আসল, কোনও কারিকুরি করে সম্পাদনা করা হয়নি।

এক অদ্ভূত কারণে মায়ানমারের (Myanmar) এক এরোবিকস (Aerobics) প্রশিক্ষকের ৩ মিনিটের একটি ভিডিও সোশাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে— সামরিক অভ্যুত্থান (Military Coup) জারি করতে ব্যস্ত মায়ানমারের মিলিটারির সাঁজোয়া বাহিনীর কনভয় ছবির প্রেক্ষাপটে থাকলেও প্রশিক্ষকটি সে সম্পর্কে সম্পূর্ণ উদাসীন হয়ে তাঁর শারীর শিক্ষার নৃত্যভঙ্গিমা চালিয়ে যাচ্ছেন।

এই ভিডিওর দৃ্শ্যটি নিয়ে জোর বিতর্ক শুরু হয়েছেবলা হচ্ছে, একটা সবুজ রঙের পর্দা পিছনে টাঙিয়ে দিয়ে এই নৃত্যভঙ্গিমার ভিডিও তার ওপর সুপারইম্পোজ করা হয়েছে। বুম অবশ্য যেখানে ছবিটি তোলা হয়েছে, সেই স্থানটিকে সনাক্ত করেছে এবং দেখেছে, মায়ানমারের রাষ্ট্রপতি-নিবাসের সামনেই ব্যাপারটা ঘটেছে এবং খুব সম্ভবত এই ছবিটির মধ্যে কোনও জালিয়াতি নেই।
১ ফেব্রুয়ারি সামরিক বাহিনী মায়ানমারের শীর্ষ নেত্রী আউন সান সু চি (Aung San Suu Kyi) সহ নবনির্বাচিত গোটা মন্ত্রিসভাকেই বন্দি করে রাষ্ট্রক্ষমতা দখলে এনে এক বছরের জন্য দেশে জরুরি অবস্থা (Emergency) জারি করেl সেই দিনই খিং নিন ওয়াই নামে জনৈক ফেসবুক ব্যবহারকারী এই ভিডিওটি পোস্ট করেনl এটি পত্রপাঠ ১৯ হাজার জন শেয়ার করে এবং ৩ হাজার জন মন্তব্য করেl খিং নিন ওয়াই-এর প্রোফাইলে তাঁকে মায়ানমার সরকারের শিক্ষা মন্ত্রক নিয়োজিত শারীর শিক্ষার প্রশিক্ষক বলে বর্ণনা করা হয়েছে।
এর কিছু ক্ষণ পরেই লোকে এই ভিডিওটির সত্যতা নিয়ে প্রশ্ন তুলতে শুরু করেl হিন্দুস্তান টাইমস-এর বিদেশ সংক্রান্ত খবরের সম্পাদক রেজাউল হাসান লস্কর দাবি করেন, একটি সবুজ পর্দা জুড়ে সামরিক কনভয়ের ছবির সঙ্গে এরোবিকস প্রশিক্ষকের ছবি জুড়ে এটি বানানো হয়েছে, কেননা নৃত্যরত ওই মহিলার ছায়া পর্দার জোড়ের কাছে দেখা যাচ্ছে না।
অদৃশ্য হয়ে যাওয়া ছায়া?
ফেসবুক ও টুইটারে প্রকাশিত বহু পোস্ট ঘেঁটে বুম-এর মনে হয়েছে, ছবিটি তোলা হয়েছে মায়ানমারের রাজধানীতে পার্লামেন্টের কাছে রেইজড লোটাস রাউন্ডঅ্যাবাউটে। গুগল মানচিত্রের ছবিতে এলাকার যে সিড়িগুলো দেখানো হয়েছে, তার সঙ্গে আমরা নৃত্যরত মহিলার নাচের জায়গার সিড়িগুলো মিলিয়ে দেখেছিl গুগল-এর মানচিত্রটি ২০১৮ সালের, তাই তাতে ভাইরাল ভিডিওয় দেখানো ইস্পাতের বেড়া দেখা যাচ্ছে না, যা হয়তো পরে লাগানো হয়।
ছায়াটি অদৃশ্য হয়ে যাওয়ার কারণ হয়তো সিড়িগুলোর উপস্থিতিl ভিডিওর একটি স্ক্রিনশট নিয়ে আমরা দেখেছি যে তাতে সিড়ির একপাশে এক চিলতে ছায়া দৃশ্যমান, বিশেষত নৃত্যরতা যখন একটু ডান দিকে সরছেন।
আমরা ভাইরাল ভিডিও দেখানো পটভূমির সঙ্গে রাষ্ট্রপতির প্রাসাদের দিকের রাস্তার তুলনা করেও দেখেছি, দুই ছবির মধ্যে সাদৃশ্য যথেষ্ট।
অবশেষে আমরা ভাইরাল ভিডিওয় পিছন দিকে একটি ধর্মস্থানের ছবিও দেখতে পাই, গুগল ম্যাপ ব্যবহার করে যেটিকে আমরা সনাক্তও করি রাষ্ট্রপতি-নিবাসের অভিমুখী রাস্তায়l কাছ থেকে দেখলে সন্দেহ থাকে না, এটিও ভাইরাল ভিডিওয় দেখতে পাওয়া মন্দির।

এই সব দেখে আমাদের মনে হয়েছে, ভিডিওটি রেইজড লোটাস রাউন্ডঅ্যাবাউটে দাঁড়িয়েই তোলা। ওয়াই নিজেও অতীতে ওই একই জায়গায় অনুশীলনরত অবস্থায় নানা ভঙ্গিমার ছবি পোস্টও করেছেন।

বুম এরোবিকস প্রশিক্ষকের সাথে এই বিষয়ে যোগাযোগ করেছে, প্রতিক্রিয়া আসলে প্রতিবেদনটি সংশোধন করা হবে।
Updated On: 2021-02-07T18:01:15+05:30
Claim :   মায়ানমারে সেনা অভ্যুত্থানের সময় পার্লামেন্টের সামনে এরোবিকস ভিডিও শুট কারচুপি করা
Claimed By :  Unknown
Fact Check :  True
Show Full Article
Next Story
Our website is made possible by displaying online advertisements to our visitors.
Please consider supporting us by disabling your ad blocker. Please reload after ad blocker is disabled.