Kashmir-নিয়ে বিচ্ছিন্নতাবাদী প্ল্যাকার্ড জুড়ল Farmer Protest এর সঙ্গে

বুম ছবির ব্যক্তি অঙ্গদ সিংহয়ের সঙ্গে কথা বললে, তিনি জানান এটি ২০১৯ সালের ডিসেম্বর মাসের।

এক শিখ আন্দোলনকারী এক কাশ্মীরি বিচ্ছিন্নতাবাদী (Kashmiri Separatist) নেতার মুক্তির দাবিতে প্ল্যাকার্ড হাতে দাঁড়িয়ে আছেন। ২০১৯ সালের এই ছবিটিই ভুয়ো দাবির সঙ্গে সাম্প্রতিক কৃষক বিক্ষোভের (Farmers Protest) পরিপ্রেক্ষিতে শেয়ার করা হল।

ভারতীয় জনতা পার্টির (Bharatiya Janata Party) নেতা নবীন কুমার (Naveen Kumar) যে ছবিটি শেয়ার করেছেন, সেটি ২০১৯ সালের, যখন দল খালসা (Khalsa) ও শিরোমণি অকালি দল (অমৃতসর) (Shiramoni Akali Dal)-এর সদস্যরা কাশ্মীরে ৩৭০ ধারা (Kashmir Article 370) অবলুপ্তি, ও তার পরবর্তী লকডাউনের (Lockdown) বিরুদ্ধে বিক্ষোভের আয়োজন করে। ছবিতে যাঁকে দেখা যাচ্ছে, বুম তাকে অঙ্গদ সিংহ বলে চিহ্নিত করতে পেরেছে, এবং তিনি জানিয়েছেন যে, ছবিটি পুরোনো। তিনি আরও জানিয়েছেন যে, তিনি সাম্প্রতিক কৃষক বিক্ষোভে যোগ দেননি।
দিল্লির বিভিন্ন সীমান্তে যে বিক্ষোভ চলছে, যাতে পাঞ্জাব, হরিয়ানা ও পশ্চিম উত্তরপ্রদেশ থেকে আগত কৃষকরা নভেম্বরের ২৬ তারিখ থেকে অবস্থান বিক্ষোভ করছেন, তার পরিপ্রেক্ষিতেই এই ছবিটি শেয়ার করা হল। গত বছর কেন্দ্রীয় সরকার যে তিনটি কৃষি বিল পাশ (Farm Laws) করেছে, সেগুলি প্রত্যাহার করার দাবিতেই কৃষকরা বিক্ষোভ প্রদর্শন করছেন।
ভাইরাল হওয়া ছবিটিতে এক পাগড়ি পরিহিত শিখকে একটি প্ল্যাকার্ড হাতে দেখা যাচ্ছে, যাতে লেখা রয়েছে, "সব মূলধারার ও স্বাধীনতাপন্থী কাশ্মীরি নেতার মুক্তি চাই।" পোস্টারটির নীচের দিকে 'দল খালসা ও এসএডি অমৃতসর' কথাগুলিও দেখা যাচ্ছে। দিল্লি বিজেপির মিডিয়া হেড নবীন কুমার এই ছবিটি শেয়ার করেছেন একটি হিন্দি ক্যাপশনের সঙ্গে। ক্যাপশনটির অনুবাদ: "গত তিন দশকে সন্ত্রাসবাদীরা হাজার হাজার মায়ের কোল থেকে তাঁদের সন্তানদের কেড়ে নিয়েছে, এবং তার পর হুরিয়ত নেতারা এই সন্ত্রাসবাদীদের সমর্থন করেছেন। তাতে মনে বড়ই কষ্ট হয়েছে। এখন যখন নরেন্দ্র মোদীজি তাদের জেলবন্দি করেছেন, তখন কৃষক আন্দোলনের এই যুবক তাদের মুক্তি চাইছে। এটা দেখলে ওর পূর্বপুরুষদের আত্মাও কাঁদবে।"
(হিন্দিতে: पिछले 3 दशक मे आतंकवादियों ने हज़ारों माँ की कोक उजाड़ दी और जब उन आतंकी के समर्थन मे हुर्रियत के नेता खड़े होते थे मन बेहद रोता था। अब जब @narendramodi जी ने उनको जेल मे बंद कर दिया तो किसान आंदोलन में युवक उन्हीं को आज़ाद कराना चाहता है ये देख इसके पूर्वज की आत्मा भी रोती होगी)
পোস্ট দেখা যাবে এখানে, আর্কাইভ করা আছে এখানে
ফেসবুকে ভাইরাল
এই ক্যাপশন দিয়ে ফেসবুকে সার্চ করে আমরা দেখতে পাই, এই একই ছবি একই ভুয়ো দাবির সঙ্গে সেখানেও ভাইরাল হয়েছে।

বুম জানতে পারে ছবিটি ২০১৯ সালের ৯ ডিসেম্বর তারিখের, আন্তর্জাতিক মানবাধিকার দিবসের প্রাক্কালে কাশ্মীরে ৩৭০ ধারা অূবলুপ্তির পর যোগাযোগব্যবস্থা বিচ্ছিন্ন করা, বিচ্ছিন্নতাবাদীসহ অন্যান্য রাজনৈতিক নেতাদের গ্রেফতার ইত্যাদির বিরুদ্ধে দল খালসা ও শিরোণি অকালি দল (অমৃতসর)-এর সদস্যদের আয়োজিত বিক্ষোভের সময়কার।

আমরা 'দল খালসা' কথাটি সা্র্চ করি, এবং ১১ মার্চ ২০২০ তারিখে দলের টুইট করা একটি প্রতিবেদনের সঙ্গে এই ছবিটিই দেখতে পাই।
এর পর আমরা দল খালসার সঙ্গে যোগাযোগ করি। তাঁরা জানান যে ছবিটি ৯ ডিসেম্বর, ২০১৯ তারিখে একটি বিক্ষোভ সমাবেশে তোলা। এসএডি (এ)-র সঙ্গে পাঞ্জাবে যৌথ ভাবে আয়োজিত এই বিক্ষোভ কর্মসূচিটি কাশ্মীরের রাজনৈতিক পরিস্থিতির বিরুদ্ধে ছিল। দল খালসা নিশ্চিত ভাবে জানায় যে ছবিটির সঙ্গে কৃষক বিক্ষোভের কোনও যোগ নেই। অনলাইনে ভ্রান্ত ভাবে তেমন দাবি করা হচ্ছে।
বুম জানতে পারে ছবিতে যে যুবককে দেখা যাচ্ছে, তাঁর নাম অঙ্গদ সিংহ (Angad Singh)। তিনি জানান যে, ছবিটি পুরনো, এবং কৃষক বিক্ষোভের সঙ্গে সম্পর্কহীন। "এই ছবিটি ২০১৯ সালের ডিসেম্বর মাসের, পাঞ্জাবের অমৃতসরে একটি বিক্ষোভ কর্মসূচি চলাকালীন তোলা। আন্তর্জাতিক মানবাধিকার দিবসের প্রাক্কালে কাশ্মীরে লকডাউন, মানবাধিকার লঙ্ঘন, যোগাযোগব্যবস্থা বিচ্ছ্ন্ন হওয়া ও রাজনৈতিক নেতাদের গ্রেফতারির বিরুদ্ধে শ্রীনগরে এই মিছিলটি আয়োজিত হওয়ার কথা ছিল," অঙ্গদ সিংহ জানালেন।
তিনি আরও জানালেন যে, বিক্ষোভকারীদের জম্মুতে প্রবেশ করার অনিমতি দেওয়া হয়নি, এবং পাঞ্জাবে মাধোপুর-কাঠুয়া আন্তঃরাজ্য সীমান্তেই তাঁদের আটকে দেওয়া হয়। সেখানেই এই ছবিটি তোলা হয়েছিল। "এই ছবিটির সঙ্গে বর্তমান কৃষক বিক্ষোভের কোনও সম্পর্কই নেই, কারণ আমি জম্মু ও কাশ্মীরের শ্রীনগরে রয়েছি, গত চার মাসে পাঞ্জাব বা দিল্লিতে যাইনি।"
এই বিক্ষোভ কর্মসূচি সম্বন্ধে আমরা ট্রিবিউন-এর একটি সংবাদ প্রতিবেদনের সন্ধান পাই, যাতে লেখা হয়েছিল যে, ৯ ডিসম্বর ২০১৯ তারিখে দল খালসা ও শিরোমণি অকালি দল (অমৃতসর)-এর সদস্যদের জম্মু ও কাশ্মীরে প্রবেশ করতে বাধা দেওয়া হয়। তার কারণ হিসেবে আইন-শৃঙ্খলা ভঙ্গের ঝুঁকির কথা উল্লেখ করা হয়। এই সংবাদ প্রতিবেদন থেকে ঘটনাটির দিন সম্বন্ধেও নিশ্চিত হওয়া যায়— ৯ ও ১০ ডিসম্বর, ২০১৯। প্রতিবেদনে আরও লেখা হয় যে, বিক্ষোভকারীদের হাতে জম্মু ও কাশ্মীর এবং পাঞ্জাবের রাজনৈতিক বন্দিদের মুক্তির দাবি লেখা প্ল্যাকার্ড ছিল। ট্রিবিউনের বর্ণনার সঙ্গে ভাইরাল ছবিটি মিলে যায়।
এর পর আমরা ৯ ডিসেম্বর ২০১৯ তারিখের এই বিক্ষোভ মিছিলের ছবিগুলি দেখি, এবং তাতে আমরা অঙ্গদ সিংহকে চিহ্নিত করতে পারি। তাঁকে একই পোশাক পরিহিত অবস্থায় একই প্ল্যাকার্ড হাতে দেখা যাচ্ছে।
জম্মু লিঙ্কস নিউজ ৯ ডিসেম্বর ২০১৯ তারিখে এই বিক্ষোভ কর্মসূচির যে ভিডিও রিপোর্ট করেছিল, সেখানেও অঙ্গদ সিংহকে দেখা যাচ্ছে।
পোস্টটি দেখা যাবে এখানে
বুম এর আগেও কৃষক বিক্ষোভকে কেন্দ্র করে ছড়ানো বহু ভুয়ো খবর, বিক্ষোভের সাম্প্রতিক ছবি বলে শেয়ার করা পুরনো ছবি ও ভিডিওর তথ্য যাচাই করেছে।
কৃষক বিক্ষোভ সংক্রান্ত ভুয়ো তথ্য সম্বন্ধে জানতে বুমের থ্রেড অনুসরণ করুন।
Updated On: 2021-01-13T15:27:25+05:30
Claim Review :   ছবি দেখায় কৃষক আন্দোলনে কাশ্মীরের বিচ্ছিন্নতাবাদীদের মুক্তির দাবিতে পোস্টার হাতে যুবক
Claimed By :  Naveen Kumar BJP
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story