নারীবিদ্বেষী মন্তব্য সহ ছড়াল মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সম্পাদিত ছবি

বুম দেখে ছবি দুটি রূপান্তর করে অপ্রাসঙ্গিক ভাবে সোশাল মিডিয়ায় ছড়ানো হচ্ছে।

পশ্চিমবঙ্গের আইন শৃঙ্খলার সমালোচনা করার উদ্দেশ্যে, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের (Mamata Banerjee) দু'টি ছবির (Images) একটি কোলাজ নারীবিদ্বেষী (Sexist) ক্যাপশন সহ ফেসবুকে শেয়ার করা হচ্ছে।

একটি ছবি হল মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কম বয়সের। অন্যটিতে শারীরিক কসরত করার অভিব্যক্তি দেখা যাচ্ছে তাঁর মুখে।

কোলাজটি হিন্দিতে লেখা ক্যাপশন সমতে শেয়ার হচ্ছে। সেটিতে বলা হয়েছে, "যথা সময়ে বিয়ে না হলে, পরীও ডাকিনীতে পরিণত হয়ে যায়। এই ছবি যদি সময় মতো কোনও এক সম্ভাব্য বরের কাছে পৌঁছে যেত, তাহলে একটি পরিবারই সর্বস্বান্ত হত, সমগ্র বাংলা নয়।"

(হিন্দিতে মূল ক্যাপশন: अगर वक्त पर शादी न की जाये तौ अप्सरा भी ताडका बन जाती है। अगर यह फ़ोटो ठीक समय पर किसी लड़के वाले के घर पहुँचती तो आज सिर्फ़ एक घर ही बर्बाद होता, पूरा बंगाल नहीं...!!!)

দু'টি ছবিই একই দাবি সমেত ফেসবুকে শেয়ার করা হচ্ছে। দুটি ফেসবুক পোস্ট দেখুন এখানেএখানে


আরও পড়ুন:

তথ্য যাচাই

দু'টি ছবির আলাদা আলাদা রিভার্স ইমেজ সার্চ করা হলে দেখা যায়, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের অল্পবয়েসের ছবিটি ডিজিটাল পদ্ধতিতে বদলানো হয়েছে। সেটি সম্পাদনা করে, তাঁর মুখ আরও উজ্জ্বল করে তোলা হয়েছে এবং মুখের দাগ পালিশ করা হয়েছে।

ইন্ডিয়া টুডে'র গ্যালারিতে (৪২ টি ছবির মধ্যে ৫ নম্বর) আমরা ছবিটি দেখতে পাই। ছবিটির ক্যাপশনে বলা হয়, "তৃণমূল কংগ্রেস নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, ১৯৭০-এর শুরুর দিকে কংগ্রেসে(আই)-এ যোগ দিয়ে তাঁর রাজনৈতিক জীবন শুরু করেন। এবং ১৯৭৬ থেকে ১৯৮০ পর্যন্ত রাজ্য মহিলা কংগ্রেস-এর সাধারণ সম্পাদক ছিলেন।"


তুলনায় পরিনত বয়সের ছবিটি কেটে নিয়ে অপ্রাসঙ্গিক ভাবে ছড়ানো হচ্ছে।

দ্বিতীয় ছবিটির রিভার্স ইমেজ সার্চ করলে দেখা যায়, সেটি রথযাত্রার একটি ছবি থেকে ক্রপ করে নেওয়া হয়েছে। ২০১৫'য়, কলকাতায় ইসকন'-এর রথ যাত্রার সময়, বাংলা ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির অভিনেত্রী কোয়েল মল্লিক সহ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ভগবান জগন্নাথের রথের দড়ি টেনে ছিলেন।

১৮ জুলাই, ২০১৫, ইন্ডিয়া টিভি-তে প্রকাশিত এক লেখায় ওই ছবিটি ব্যবহার করা হয়েছিল। সম্পূর্ণ ছবিটি জি নিউজ-এর ইমেজ গ্যালারিতে রয়েছে (১০ টি ছবির মধ্যে ৬ নম্বর)

নিচে বদলানো ছবি ও আসল ছবির তুলনা করা হল।

Claim :   ফেসবুক পোস্ট দেখায় কম ও বেশি বয়সের মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়
Claimed By :  Facebook Post
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story
Our website is made possible by displaying online advertisements to our visitors.
Please consider supporting us by disabling your ad blocker. Please reload after ad blocker is disabled.