তামিলনাডুতে তৈরি বিশ্বের ক্ষুদ্রতম উপগ্রহ পাঠাল নাসা, মিডিয়া কি নীরব?

২০১৭ সালে দলবল সহ তামিলনাড়ুতে বছর আঠারোর রিফাত শারুকের তৈরি বিশ্বের ক্ষুদ্রতম উপগ্রহ নাসার উৎক্ষেপণে আনন্দ করেন তাঁরা।

২০১৭ সালে তামিলনাডুর (Tamil Nadu) পড়ুয়ারা বিশ্বের ক্ষুদ্রতম উপগ্রহটি (Smallest Satellite) তৈরি করেন ও নাসা (NASA) সেটি উৎক্ষেপণ করে। সেই সময়ে তোলা তাঁদের একটি ছবি এখন মিথ্যে দাবি সমেত ভাইরাল হয়েছে। বলা হচ্ছে, সেটি সাম্প্রতিক। কিন্তু 'দ্য কাশ্মীর ফাইলস' (The Kashmir Files) নিয়ে সংবাদমাধ্যম (Media) এতই ব্যস্ত যে, এই সাফল্যকে উপেক্ষা করা হয়েছে।

ভাইরাল ছবিটির ক্যাপশনে অভিযোগ করা হয়েছে যে, ভারতের সংবাদ মাধ্যম বিবেক অগ্নিহোত্রীর ফিল্ম 'কাশ্মীর ফাইলস' নিয়ে এতই ব্যস্ত যে, এই খবরটিকে উপেক্ষা করা হয়েছে। কাশ্মীরি পণ্ডিতদের ওপর ওই ফিল্মটি যেমন আলোড়ন সৃষ্টি করেছে, তেমনই আবার সেটিকে ঘিরে ভুয়ো খবরও ছড়ানো হচ্ছে।

ছবিটি এই ক্যাপশন সমেত শেয়ার করা হচ্ছে, "ভারত গতকাল ইতিহাস সৃষ্টি করে। তামিলনাডুর ১৮ বছর বয়সী ছাত্র রিফাত ফারুক-এর তৈরি বিশ্বের ক্ষুদ্রতম উপগ্রহটি নাসা এপ্রিলে উৎক্ষেপণ করবে। প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি আবদুল কালাম সাহেবকে সম্মান জানাতে উপগ্রহটির নাম দেওয়া হয়েছে 'কালামস্যাট'। এটির ওজন মাত্র ৬৪ গ্রাম। কিন্তু ভারতের মিডিয়া 'কাশ্মীর ফাইল' নিয়ে এক খেলায় ব্যস্ত!"

(হিন্দিতে লেখা মূল ক্যাপশন: भारत ने कल इतिहास रच दिया जब तमिलनाडु की 18 वर्षीय विद्यार्थी रिफात फारुक द्वारा तैयार किए गए दुनिया के सबसे छोटे सैटलाइट को 'NASA' ने लांच किया.. भूतपूर्व राष्ट्रपति कलाम साहब को सम्मान देते हुए इस सैटेलाइट का नाम 'Kalamsat' रखा गया है.. इसका वजन सिर्फ 64 ग्राम है.. लेकिन भारत का मिडिया 'कश्मीर फाइल' खेलने में व्यस्त है.)


ফেসবুক পোস্টটি দেখা যাবে এখানে

একই মিথ্যে দাবি সমেত ছবিটি ফেসবুকে ব্যাপকভাবে শেয়ার করা হচ্ছে।


তথ্য যাচাই

গুগল রিভার্স ইমেজ সার্চ করলে দেখা যায় যে, ছবিটি ২০১৭ সালের জুন মাসে তোলা। সেই সময়, চেন্নাই-এর পড়ুয়ারা বিশ্বের সবচেয়ে ছোট উপগ্রহ তৈরি করেন এবং সেটি উৎক্ষেপণের পর তাঁরা আনন্দ করছিলেন।

আমরা দেখি, ২২ জুন, ২০১৭'য়, সংবাদ সংস্থা এএনআই এক গুচ্ছ ছবির সঙ্গে ওই ছবিটিও টুইট করে। ক্যাপশনে বলা হয়, "চেন্নাই: বিশ্বের ক্ষুদ্রতম উপগ্রহটি যে ছাত্ররা তৈরি করেন, সেটির উৎক্ষেপণের পর আনন্দ করছেন তাঁরা। ৬৪ গ্রাম ওজনের ওই উপগ্রহটি উৎক্ষেপণ করে নাসা।"

'ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস'-এর খবরে লেখা হয়, ১৮ বছর বয়সী তামিলনাডুর ছাত্র রিফাত শারুক ও তাঁর সহকর্মীদের তৈরি বিশ্বের ক্ষুদ্রতম উপগ্রহটি নাসা উৎক্ষেপণ করার মধ্যে দিয়ে ভারত ইতিহাস সৃষ্টি করে। ওই প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি এপিজে আবদুল কালাম-এর সম্মানে উপগ্রটির নাম রাখা হয়, কালামস্যাট। সেটির ওজন মাত্র ৬৪ গ্রাম।

আরও পড়ুন: ২০১৮ সালে ওড়িশার থানায় পুলিশের নারী নিগ্রহের ভিডিও ছড়াল পশ্চিমবঙ্গের বলে

Claim :   ছবির দাবি সম্প্রতি তামিলনাডুতে তৈরি বিশ্বের ক্ষুদ্রতম উপগ্রহ পাঠাল নাসা
Claimed By :  Facebook Posts
Fact Check :  Misleading
Show Full Article
Next Story
Our website is made possible by displaying online advertisements to our visitors.
Please consider supporting us by disabling your ad blocker. Please reload after ad blocker is disabled.