বিপিন রাওয়াতের হেলিকপ্টার দুর্ঘটনার দৃশ্য বলে ছড়াল সিরিয়ার ভিডিও

বুম দেখে সিরিয়ার বায়ুসেনার কপ্টারটি ইদলিবের বিদ্রোহীরা গুলি করে ২০২০ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে নামিয়েছিল।

সিরিয়ার (Syria) পুরনো এক ভিডিওতে একটি হেলিকপ্টারে আগুন জ্বলতে দেখা যাচ্ছে। ভিডিওটি এই মিথ্যে দাবি সমেত শেয়ার করা হচ্ছে যে, এটি হল বুধবারের সেই মর্মান্তিক দুর্ঘটনার দৃশ্য যে দুর্ঘটনায় ভারতের চিফ অফ ডিফেন্স স্টাফ জেনারেল বিপিন রাওয়াতসহ (Bipin Rawat) আরও ১২ জন মারা যান।

ভারতীয় বায়ুসেনার যে হেলিকপ্টারে রাওয়াত যাচ্ছিলেন, সেটি তামিলনাডুর কুন্নুরে ভেঙ্গে পড়ার কয়েক ঘন্টার মধ্যে ওই ভিডিওটি ভাইরাল হয়। রাওয়াতের স্ত্রী মধুলিকা ও তাঁর স্টাফের ১১ সদস্য ওই দুর্ঘটনায় মারা যান। ৩০ ডিসেম্বর, ২০১৯ জেনারেল রাওয়াত ভারতের প্রথম চিফ অফ ডিফেন্স স্টাফ নিযুক্ত হন। ওয়েলিংটন স্টাফ কলেজে ভাষণ দিতে যাচ্ছিলেন রাওয়াত, যখন ওই দুর্ঘটনা ঘটে।

টুইটারে পোস্ট করা এক বিবৃতিতে ভারতীয় বায়ুসেনা জানায় যে, ওই হেলিকপ্টারের ১৪ জন আরোহীর মধ্যে মাত্র একজন বেঁচে আছেন। দুর্ঘটনাটির তদন্তের নির্দেশ দিয়েছে বায়ুসেনা।

ধ্বংসাবশেষের ফুটেজ দুর্ঘটনার কিছুক্ষণের মধ্যেই প্রকাশ পায়। কিন্তু ওই ঘটনাটির ভিডিও বলে শেয়ার করা হয় অন্য একটি ভিডিও। ক্লিপটি কোনও অডিও ছাড়াই শেয়ার করা হচ্ছে। আকাশে একটি হেলিকপ্টারকে জ্বলতে জ্বলতে মাটিতে আছড়ে পড়তে দেখা যাচ্ছে ভিডিওটিতে। শেয়ার-করা ভিডিওটির সঙ্গে মিথ্যে ক্যাপশনে দাবি করা হয়েছে, "তামিলনাডুতে বিপিন রাওয়াতের হেলিকপ্টার ভেঙ্গে পড়ার ভিডিও।"


আরও পড়ুন: না, এই ছবিটি সিডিএস বিপিন রাওয়াতের ভেঙে পড়া হেলিকপ্টার নয়

তথ্য যাচাই

বুম দেখে ভিডিওটি ২০২০ সালের ফেব্রুয়ারি মাসের। একাধিক প্রতিবেদনে ইঙ্গিত করা হয় যে, ঘটনাটি ঘটে সিরিয়ায়। প্রথমে, ভিডিওটির প্রধান ফ্রেমগুলি নিয়ে আমরা রিভার্স ইমেজ সার্চ করি। তার ফলে, ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 'ওভার্টডিফেন্স' নামের প্রতিরক্ষা সংক্রান্ত একটি ওয়েবসাইটে ওই ঘটনাটি সম্পর্কে আমরা একটি প্রতিবেদন দেখতে পাই।

ওভার্টডিফেন্স'র রিপোর্ট অনুযায়ী, "১১ ফেব্রুয়ারি, ইদলিব'র ওপর সিরিয়ান অ্যারাব আর্মির আক্রমণের সময় সিরীয় বায়ু সেনার দু'টি এমআই-১৮/১৭ হেলিকপ্টারকে পর পর গুলি করে নামানো হয়। প্রথম হেলিকপ্টারটিকে ১১ ফেব্রুয়ারি দক্ষিণ ইদলিবে নামানো হয়। দ্বিতীয়টিকে ১৪ ফেব্রুয়ারি পশ্চিম অ্যালেপ্পোতে ফেলা হয়। দু'টি ক্ষেত্রেই, হেলিকপ্টারের বৈমানিকরা কেউই বাঁচেননি।"

ওই রিপোর্টে একাধিক টুইট প্রকাশ করা হয়। সেগুলিতে ভাইরাল ভিডিওটি থেকে নেওয়া কয়েকটি স্ক্রিনগ্র্যাব ছিল। টুইটিগুলির সঙ্গে দেওয়া বিবরণে বলা হয়, সিরীয় বায়ুসেনার হেলিকপ্টারগুলিকে ওই দেশের দক্ষিণ ইদলিবে বিদ্রোহীরা গুলি করে নামায়।

'রেবেলস শুট ডাউন হেলিকপ্টার ইন ইদলিব সিরিয়া' (ইদলিব সিরিয়ায় বিদ্রোহীরা গুলি করে হেলিকপ্টার নামায়) – এই কি- ওয়ার্ড দিয়ে আমরা ইউটিউবে সার্চ করি। তার ফলে সংবাদ মাধ্যম 'দ্য টেলিগ্রাফ'এ প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে আমরা ওই একই ভিডিও দেখতে পাই।

১১ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ প্রকাশিত ওই ভিডিও রিপোর্টটির শিরোনাম ছিল, 'ইদলিবে বিদ্রোহীরা সিরীয় হেলিকপ্টার গুলি করে নামালো'। এবং তাতে ভাইরাল ভিডিওটির সঙ্গে মিলে যায়, এমনই ঘটনাক্রম দেখতে পাই আমরা। ভিডিওটির অডিওতে লোকজনকে আরবি ভাষায় কথা বলতে শোনা যায়। তাঁদের মধ্যে একজনকে বলতে শোনা যায়, "আল্লাহ হু আকবর"।

আরও পড়ুন: কলাম্বিয়ার ২০১৮ সালের ভিডিওকে বলা হল নাগাল্যান্ডে নাগরিক নিহত

Claim :   ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে কিভাবে জেনারেল বিপিন রাওয়াতের হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত হয়েছে
Claimed By :  Social Media Posts
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story
Our website is made possible by displaying online advertisements to our visitors.
Please consider supporting us by disabling your ad blocker. Please reload after ad blocker is disabled.