দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়ালের কয়লা দানের আবেদন করা বিজ্ঞাপনটি ভুয়ো

বুম দেখে ২০২১ সালের জুলাই মাসে হিন্দুস্তানে প্রকাশিত একটি বিজ্ঞাপনকে সম্পাদনা করে ছবিটি তৈরি করা হয়েছে।

দেশব্যাপী কয়লা ঘাটতির (coal crisis) কারণে দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল (Arvind Kejriwal) কয়লা দান করার আবেদন করে খবরের কাগজে বিজ্ঞাপন (advertisement) দিয়েছেন, একটি ব্যাঙ্গাত্মক ছবিকে ভুয়ো দাবি সহ খবরের কাগজে প্রকাশিত সত্যি বিজ্ঞাপনের ছবি বলে দাবি করা হচ্ছে।

দেশব্যাপী কয়লা ঘাটতির কারণে, দিল্লিতে বিদ্যুৎ সঙ্কট দেখা দিতে পারে বলে কেজরিওয়াল সম্প্রতি সকলকে সতর্ক করে দেন। রাজ্যের বিদ্যুৎমন্ত্রী সত্যেন্দ্র জৈনও ওই সঙ্কট সম্পর্কে তাঁর উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেন যে, কয়লার যোগানে উন্নতি না হলে, দিল্লি দু'দিনের জন্য বিদ্যুৎহীন হয়ে পড়তে পারে। ১২ অক্টোবর ২০২১ 'লাইভ মিন্ট'-এ প্রকাশিত একটি রিপোর্ট অনুযায়ী, দামোদর ভ্যালি কর্পোরেশন (ডিভিসি) ও এনটিপিসি'কে কেন্দ্র এই মর্মে নির্দেশ দেয় যে, সম্ভাব্য ঘাটতি মেটানোর জন্য তারা যেন যথাসম্ভব বিদ্যুৎ সরবরাহ করে দিল্লিকে। আরও কিছু সংবাদ প্রতিবেদন থেকে জানা যায় যে, ভারতের অর্ধেক তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রে কেবল তিন দিনের কয়লা মজুত আছে।

ওই ভুয়ো বিজ্ঞাপনটিতে আবেদন করা হয়েছে, "বিদ্যুতের ঘাটতি কমাতে, দিল্লি সরকারকে কয়লা দান করুন।" (হিন্দিতে লেখা আবেদন: बिजली की कमी दूर करने के लिए कोयला दान देकर दिल्ली सरकार की मदद करें)। সাম্প্রতিক কয়লা সঙ্কটের পরিপ্রেক্ষিতেই ছবিটি শেয়ার করা হচ্ছে। বিজ্ঞাপনটিতে কেজরিওয়ালের একটি বক্তব্যও উদ্ধৃত করা হয়েছে: "আপনার এক ব্যাগ কয়লা দিল্লিকে অন্ধকারমুক্ত রাখতে পারে"।

ছবিটির সঙ্গে দেওয়া ক্যাপশনে বলা হয়েছে, "সত্য না হলে, বিচলিত করার মতো"।

পোস্টটির আর্কাইভ করা আছে এখানে। রূপান্তরিত ছবিটি টুইটার ব্যবহারকারী রেণুকা জৈন টুইট করেন। ওই টুইটার ব্যবহারকারী আগেও মিথ্যে খবর ছড়িযে ছিলেন এবং বুম সেগুলি খন্ডন করে।

টুইটটি আর্কাইভ করা আছে এখানে

টুইটটি আর্কাইভ করা আছে এখানে

আরও পড়ুন:

তথ্য যাচাই

খুব ভাল করে দেখার ফলে, বুমের নজরে আসে যে, ওই ছবিটিতে কেজরিওয়ালের ছবির নীচের ডান কোণে ছোট করে ইংরেজিতে 'স্যাটায়ার' (ব্যঙ্গ) শব্দটি লেখা আছে।

ভাইরাল ছবিটিতে 'স্যাটায়ার' উল্লেখ করা আছে।

এর পর আমরা ছবিটি জুম করে বড় করে নিই। হিন্দুস্তানের যে সংস্করণটি সম্পাদনা করে ছবিটি তৈরি করা হয়েছে, সেটি সম্পর্কে তথ্য জোগাড় করাই ছিল আমাদের উদ্দেশ্য। দেখা যায়, আসল পাতাটি ছিল ৯ জুলাই, ২০২১ প্রকাশিত'হিন্দুস্তান'-এর মুজাফ্ফরপুর (বিহার) সংস্করণের প্রথম পাতা।

ছবিটিকে বড় করলে যা দেখা যায়, তা নীচে দেওয়া হল।

বড়-করা ভাইরাল ছবি

এই সূত্র ধরে আমরা কি-ওয়ার্ড সার্চ করি। তার ফলে, হিন্দুস্তান'এর ওয়েবসাইটে, আমরা ওই কাগজের মুজাফ্ফরপুর সংস্করণের ৯ জুলাই ২০২১'এর প্রথম পাতাটি দেখতে পাই। আরও দেখা যায় যে, দিল্লি সরকারের একই রকম দেখতে একটি বিজ্ঞাপন ছাপা হয়ে ছিল ওই দিনের কাগজে।

খবরের কাগজটিতে ছাপা আসল বিজ্ঞাপনটি নীচে দেওয়া হল।

সূত্র: হিন্দুস্তান ওয়েবসাইট

আসল বিজ্ঞাপনটির বিষয় ছিল কোভিড-১৯'এ ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলিকে আর্থিক সাহায্য দেওয়ার একটি প্রকল্প। মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়ালের চালু করা ওই প্রকল্প সম্পর্কে আরও কয়েকটি রিপোর্ট বুম দেখতে পায়।

৭ জুলাই ২০২১ প্রকাশিত 'দ্য হিন্দু'র একটি প্রতিবেদনে বলা হয়। "মঙ্গলবার, কোভিড-১৯'এ ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলিকে সামাজিক সুরক্ষা দেওয়ার জন্য 'মুখ্যমন্ত্রী কোভিড-১৯ পরিবার আর্থিক সহায়তা যোজনা' চালু করার সময় কেজরিওয়াল একথা বলেন। এই প্রকল্পের আওতায়, যে সব পরিবারে কোভিড-১৯-এর কারণে কোনও সদস্যের মৃত্যু হয়েছে, তাদের প্রতি মৃত্যু বাবদ ৫০,০০০ টাকা দেওয়া হবে। আর যে সব পারিবারে প্রধান উপার্জনকারী মারা গেছেন, সেই সব পরিবারকে প্রতিমাসে দেওয়া হবে ২,৫০০ টাকা।"

আরও পড়ুন: সম্পর্কহীন ছবি ছড়িয়ে দাবি নবী মহম্মদের কার্টুন শিল্পীর মৃত্যুর দৃশ্য

Updated On: 2021-10-14T12:42:17+05:30
Claim Review :   ছবি দেখায় অরবিন্দ কেজরিওয়াল কয়লা সংকটের সময় বলছেন কয়লা দান করতে
Claimed By :  Social Media Users
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story