বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়কে তোপ রাহুল গাঁধীর? গ্রাফিকে ভুয়ো মন্তব্য

বুম যাচাই করে দেখে ভাইরাল গ্রাফিকের বক্তব্য রাহুল গাঁধীর কথা নয়। বুম যাচাই করল এই ভুয়ো মন্তব্য সহ গ্রাফিকের মূল উৎস।

কলকাতা হাই কোর্টের (Calcutta HC) বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়কে (Justice Abhijit Ganguly) নিশানা করে কংগ্রেস নেতা রাহুল গাঁধী (Rahul Gandhi) বক্তব্য রেখেছেন ভুয়ো দাবি সহ একটি গ্রাফিক পোস্ট (Graphic Post) ব্যাপাকভাবে সোশাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। ওই পোস্টে দাবি করা হয়েছে রাহুল গাঁধী বলেছেন, মাননীয় বিচারপতি অভিজিৎ বাবুকে সবাই স্যালুট জানাবে যেদিন অমিত শাহ এবং জয় শাহের বেআইনি সম্পত্তি নিয়ে কথা বলবেন। ভারতীয় ক্রিকেট নিয়ামক সংসস্থা বিসিসিআই এর সভাপতি জয় শাহ ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও বিজেপি নেতা অমিত শাহের পুত্র।

বুম যাচাই করে দেখে রাহুল গাঁধী বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়কে নিশানা করে কোনও মন্তব্য রাখেননি। গ্রাফিকের দাবি সম্পূর্ণ ভুয়ো।

কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ের এজলাসে বর্তমানে পশ্চিমবঙ্গের স্কুল সার্ভিস কমিশনের নিয়োগ সংক্রান্ত জট ও দুর্নীতি সংক্রান্ত মামলা বিচারধীন রয়েছে। বেআইনি নিয়োগ ঘিরে উদ্ভূত জটিলতায় শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী ও তৃণমূল নেতা পরেশ অধিকারী কন্যা অঙ্কিতার চাকরি বরখাস্ত ও চাকরি থেকে নেওয়া সববেতন ফেরতের নির্দেশ দেন। শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়কে হলফনামা আকারে সম্পত্তির হিসেব জমা দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়। এই সংক্রান্ত মামলার শুনানিতে বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায় মন্তব্য করেন, "সুযোগ হলে গাঁধী পরিবারের সম্পত্তির হিসেব চাইতে পারি।" ভাইরাল গ্রাফিকটি এই প্রসঙ্গে ছড়ানো হচ্ছে।

সোশাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া গ্রাফিকটিতে কংগ্রেস নেতা রাহুল গাঁধী ও বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ের ছবি ব্যবহার করা হয়েছে।

"মাননীয় বিচারপতি অভিজিৎ বাবু আপনাকে সেইদিন সবাই স্যালুট জানাবে যেদিন অমিত শাহ এবং জয় শাহের বেয়াইনি সম্পত্তি নিয়ে কথা বলবেন। কিন্তু বিচারপতি গাঙ্গুলীর সেই বুকের পাটা নেই যে, বিজেপির দিকে আঙুল তুলবে। যদি সৎ সাহস থাকে তাহলে রাজনীতির উদ্ধে এসে নিরপেক্ষ ভাবে, প্রত্যেক রাজনৈতিক দলের বিরুদ্ধে এমন পদক্ষেপ নিন। আসা করি আপনি সকলের চোখে হিরো হবেন! বললেন কংগ্রেসের নেতা রাহুল গান্ধী।" (গ্রাফিক পোস্টের বানান অপরিবর্তিত)

একটি ফেসবুক পোস্ট দেখুন এখানে

তথ্য যাচাই

বুম গণমাধ্যমে অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়কে নিশানা করা কংগ্রেস নেতা রাহুল গাঁধীর কোনও বক্তব্য খুঁজে পায়নি।

কিভাবে জন্মাল ভুয়ো মন্তব্যের গ্রাফিক?

বুম গ্রাফিকটির মাঝে একটি লোগো দেখতে পায়, তাতে ইংরেজিতে 'টিসিসিএফ' (TCCF) লেখা রয়েছে। ফেসবুকে কিওয়ার্ড সার্চ করে তৃণমূল পন্থী একটি ফেসবুক গ্রুপ যার নাম 'তৃণমূল সাইবার কমব্যাট ফোর্স' এর হদিস পায়। এই গ্রুপের আদ্যাক্ষর নিয়েই তৈরি হয়েছে 'টিসিসিএফ'।

ভাইরাল গ্রাফিকের লোগো ও এই গ্রুপের কভার পেজে একই লোগো রয়েছে।

বুম কিওয়ার্ড সার্চ করে দেখে ২১ মে ২০২২ সুভাষ রায় নামের এক ব্যক্তি তাঁর নিজস্ব ফেসবুক প্রোফাইলে রাহুল গাঁধী সম্পর্কে বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়ের মন্তব্য প্রসঙ্গে সংবাদ প্রতিবেদনের স্ক্রিনশট শেয়ার করে একটি পোস্ট দেন

ওই পোস্টে তিনি লেখেন, "মাননীয় বিচারপতি অভিজিৎ বাবু আপনাকে সেইদিন সবাই স্যালুট জানাবে যেদিন, অমিত শাহ এবং জয় শাহের বেয়াইনি সম্পত্তির নিয়ে কথা বলবেন। কিন্তু বিচারপতি গাঙ্গুলীর সেই বুকের পাটা নেই যে, বিজেপির দিকে আঙুল তুলবে। যদি সৎ সাহস থাকে তাহলে রাজনীতির উদ্ধে এসে নিরপেক্ষ ভাবে, প্রত্যেক রাজনৈতিক দলের বিরুদ্ধে এমন পদক্ষেপ নিন। আসা করি আপনি সকলের চোখে হিরো হবেন!" (গ্রাফিক পোস্টের বানান অপরিবর্তিত)

সুভাষ রায়ের ফেসবুক পোস্টের একই বাক্য প্রয়োগ করে ভুয়ো মন্তব্যের ভাইরাল গ্রাফিকটি তৈরি হয়েছে। এমনকি গ্রাফিক পোস্টে 'ঊর্দ্ধে' বানান ভুল করে 'উদ্ধে' লেখা হয়েছে যেমন ত্রুটি রয়েছে সুভাষ রায়ের পোস্টেও।

বুম দেখে সুভাষ রায় নিয়মিত 'তৃণমূল সাইবার কমব্যাট ফোর্স' সংক্ষেপে 'টিসিএফ' নামের গ্রুপটিতে পোস্ট করেন। তিনি সংশ্লিষ্ট গ্রুপের অ্যাডমিন।

Updated On: 2022-05-24T18:05:48+05:30
Claim :   রাহুল গাঁধী বলেছেন, “মাননীয় বিচারপতি অভিজিৎ বাবু আপনাকে সেইদিন সবাই স্যালুট জানাবে যেদিন অমিত শাহ এবং জয় শাহের বেয়াইনি সম্পত্তি নিয়ে কথা বলবেন।”
Claimed By :  Facebook Posts
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story
Our website is made possible by displaying online advertisements to our visitors.
Please consider supporting us by disabling your ad blocker. Please reload after ad blocker is disabled.