দ্বিতীয় দফায় বিজেপির ভরাডুবি দাবি-করা ভাইরাল চিঠি ওড়ালেন দিলীপ ঘোষ

বুম দিলীপ ঘোষের সঙ্গে কথা বললে তিনি জানান, প্রথম দফা ভোটের ফল নিয়ে জেপি নাড্ডাকে লেখা উদ্বেগ জানানো ওই চিঠির সই তাঁর নয়।

ভারতীয় জনতা দলের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য শাখার সভাপতি দিলীপ ঘোষ (Dilip Ghosh) তাঁর নামে লেখা একটি ভাইরাল চিঠিকে (viral letter) ভুয়ো (fake) বলে উড়িয়ে দিয়েছেন। চিঠিটিতে তিনি নাকি পশ্চিমবঙ্গে বিধানসভার প্রথম দফার ভোটের ফলাফল সম্পর্কে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। চিঠিটি এখন সোশাল মিডিয়ায় শেয়ার করা হচ্ছে।

বুম দিলীপ ঘোষের সঙ্গে যোগাযোগ করলে, উনি বলেন, "চিঠিটা টিএমসি-র কাজ। ওটা আমার সই নয়। দিল্লির কাছে আমি কোনও উদ্বেগ প্রকাশ করিনি।"

চিঠিটা বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জগৎ প্রকাশ নাড্ডার উদ্দেশে লেখা। তাতে বলা হয়েছে, পার্টির অভ্যন্তরীণ সমীক্ষায় দেখা গেছে যে, বিজেপির ভরাডুবি হতে পারে। দিলীপ ঘোষের অফিস থেকেও টুইট করে চিঠিটির সত্যতা খণ্ডন করা হয়েছে।

চিঠিটি পশ্চিমবঙ্গ বিজেপির লেটারহেডে লেখা। এবং তাতে দিলীপ ঘোষের সাক্ষর রয়েছে। ২৭ মার্চ প্রথম দফার ভোট পর্বের পর এক তথাকথিত সমীক্ষার ফলাফল সম্পর্কে লেখা হয়েছে তাতে। চিঠিটিতে বলা হয়েছে, যে প্রথম দফায় যে ৩০টি আসনে ভোট হয়েছে, তার মাত্র ৩-৪টিতে বিজেপি জেতার আশা করতে পারে। চিঠিতে ঘোষ লিখেছেন যে, 'তাঁর আশঙ্কা, দ্বিতীয় দফায় (১ এপ্রিল) সম্পূর্ণ ভরাডুবি হতে চলেছে'।

যাচাইয়ের জন্য চিঠিটি বুমের হেল্পলাইনেও আসে।

চিঠিটি টুইটারেও শেয়ার করা হচ্ছে।

পশ্চিমবঙ্গে প্রথম দফায় বাঁকুড়া, পুরুলিয়া, ঝাড়গ্রাম, পশ্চিম মেদিনীপুর ও পূর্ব মেদিনীপুর জেলায় কিছু অংশে ভোট হয়।

ভাইরাল চিঠিটিতে বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতির কাছে এই মর্মে আবেদন করা হয়েছে যে, তিনি যেন ১ এপ্রিল, দ্বিতীয় দফার ভোট গ্রহণের আগে 'জেলাগুলিতে প্রচেষ্টা আরও জোরদার' করেন। বাঁকুড়া, পশ্চিম মেদিনীপুর, পূর্ব মেদিনীপুর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনার ৩০টি আসনে ভোট হবে ১ এপ্রিল।

দ্বিতীয় দফার সবচেয়ে হেভিওয়েট প্রতিদ্বন্দ্বিতা হবে নন্দীগ্রামে। সেখানে তৃণমূল কংগ্রেস সুপ্রিমো ও তাঁর এক সময়কার অনুগামী ও এখনকার বিজেপি প্রার্থী শুভেন্দু অধিকারী একে অপরের বিরুদ্ধে লড়ছেন।

আরও পড়ুন: নন্দীগ্রামে শুভেন্দু অধিকারীর জয় হতে পারে সমীক্ষাকে ভুয়ো বলল আই-প্যাক

Updated On: 2021-03-31T21:48:50+05:30
Show Full Article
Next Story