অযোধ্যা রায়ের পর হিন্দু দেবদেবীর প্রতিকৃতি খোদিত ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানির ভুয়ো মুদ্রা জিইয়ে উঠল

বুম দেখেছে যে ধর্মীয় প্রতীক চিহ্নিত এই মুদ্রাগুলি ঔপনিবেশিক যুগের আগে থেকেই চালু ছিল এবং ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানি এগুলি প্রবর্তন করেনি।

Claim

“১৮১৮ সালে ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানি এই ২ আনার মুদ্রাগুলো চালু করেছিল; এবং আপনারা একটা বিস্ময়ের জন্য প্রস্তুত থাকুন l”

Fact

হিন্দু দেবদেবীর প্রতিমূর্তি খোদাই করা দুটি মুদ্রার ছবি সোশাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। একটিতে রাম, সীতা ও লক্ষ্মণের প্রতিমূর্তি খোদাই করা। অন্যটিতে হিন্দু ধর্মের সেই রহস্যময় একাক্ষর ‘‍ওঁ’ এবং একটি পদ্মফুলের চিত্র খোদিত। ভাইরাল পোস্টে দাবি করা হয়েছে, এই দুটি মুদ্রাই নাকি ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানি তাদের টাঁকশালেই ছাপিয়েছিল। প্রাচীন মুদ্রা সংক্রান্ত বিদ্যায় পারদর্শী এক বিশেষজ্ঞ জানাচ্ছেন, এই মুদ্রাগুলি ‘রামটঙ্কা’-র নমুনা, যেগুলি মন্দিরের কাজে প্রতীক রূপে ব্যবহৃত হতো এবং কখনওই ব্যবসা-বাণিজ্য কিংবা পণ্য কেনাবেচার প্রয়োজনে ব্যবহৃত হতো না। মন্দিরে ব্যবহার্য এই ধর্মীয় নিদর্শন বা অভিজ্ঞানগুলিতে যে সব হিন্দু দেবদেবীর প্রতিকৃতি কিংবা ধর্মীয় নকশা উত্কীর্ণ থাকতো, তা ধর্মীয় প্রতীকের মর্যাদা নিয়েই থাকতো এবং কখনওই কোনও বাণিজ্যিক কাজে ব্যবহৃত হতো না। মুদ্রা অর্থাৎ কেনাবেচার মাধ্যম হিসাবে এগুলির কোনও উপযোগিতাই ছিল না, যেহেতু মুদ্রার দাম সর্বদাই যে ধাতু দিয়ে সেটি তৈরি, তার মূল্যের উপর নির্ভর করে। ইতিপূর্বে, ২০১৭ সালের এপ্রিল মাসে বুম এ ধরনের মুদ্রা নিয়ে ভাইরাল করা পোস্টের পর্দাফাঁস করেছে।

To Read Full Story, click here
Show Full Article
Next Story