পশ্চিমবঙ্গে বিজেপির মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থী কঙ্গনা? ভাইরাল ভুয়ো খবর

বুম দেখে দ্য কুইন্ট ওয়েবসাইটে ২০১৬ সালের ৯ মার্চ প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনকে সম্পাদনা করে ওই ভুয়ো খবরটি তৈরি করা হয়েছে।

একটি সম্পাদনা করা ভুয়ো প্রতিবেদনের স্ক্রিনশট সোশাল মিডিয়ায় শেয়ার করে দাবি করা হয়েছে, সংবাদমাধ্যম 'দ্য কুইন্ট' খবর প্রকাশ করেছে পশ্চিমবঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী পদপার্থী হিসাবে বিজেপি বলিউড অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাউতের নাম ঘোষণা করেছে। কঙ্গনা রানাউতই নাকি তৃণমূল কংগ্রেসের মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে মুখোমুখি লড়াইয়ে নামবে।

বুম দেখে কঙ্গনা রানাউতকে ২০২১ সালের বিধানসভা নির্বাচনে পশ্চিমবঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী পদপার্থী করা হবে বিজেপির তরফে এরকম কোনও ঘোষণা করা হয়নি।

বুমের তরফে দ্য় কুইন্টের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে ওই সংবাদমাধ্যমের তরফে বিবৃতি দেওয়া হয়,"এই স্ক্রিনশটটি ভুয়ো। কুইন্ট এই ধরণের কোনও প্রতিবেদন প্রকাশ করেনি। এটি আমাদের কালিমালিপ্ত করার একটি ক্ষতিকর প্রচেষ্টা।''

ভাইরাল হওয়া স্ক্রিনশটটি দেখা যায় দ্য কুইন্ট ১২ সেপ্টেম্বর ২০২০ সংবাদ প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে যার ইংরেজিতে শিরোনাম, "বিজেপি কঙ্গনা রানাউতকে পশ্চিমবঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থী ঘোষণা করেছে।"

ওই প্রতিবেদনের প্রথম অনুচ্ছেদে আরও লেখা হয়েছে যে, কেন্দ্রীয় মানব সম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রী এবং বরিষ্ঠ বিজেপি নেত্রী স্মৃতি ইরানি এই ঘোষনা করেছেন যে কঙ্গনা রানাউত দলের মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থী হবেন পশ্চিমবঙ্গে।

এই সম্পাদিত ভুয়ো প্রতিবেদনের স্ক্রিনশট ফেসবুকে শেয়ার করে ক্যাপশনে লেখা হয়েছে, "হাসবো না কাঁদবো। বাংলার বাঙ্গালীরা কি সবাই মরে গেল"
পোস্টটি দেখা যাবে এখানে ও আর্কাইভ করা আছে এখানে
ফেসবুকে ভাইরাল হওয়া ভুয়ো প্রতিবেদনের স্ক্রিনশট।
তথ্য যাচাই
বর্তমানে ভারত সরকারের মানব সম্পদ উন্নয়ণ মন্ত্রালয় নামে কোনও কোনও বিভাগ নেই। এবছরেরে অগস্ট মাসে রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ মানব সম্পদ উন্নয়ণ মন্ত্রালয়কে শিক্ষা মন্ত্রালয় করার ছাড়পত্র দেন। শিক্ষা মন্ত্রকের বর্তমান মন্ত্রী হলেন রমেশ পোখরিয়াল নিশঙ্ক। বস্ত্রবয়ন দপ্তর এবং নারী ও শিশু উন্নয়ণ দপ্তরের বর্তমান মন্ত্রী হলেন শ্রীমতী স্মৃতি জুবিন ইরানি। এই সূত্র ধরে বুম অনুমান করে কোনও পুরনো সংবাদ প্রতিবেদনকে বিকৃত করে ওই স্ক্রিনশট তৈরি হয়েছে কিনা।
বুম ওই স্ক্রিনশটে থাকা বয়ানের সূত্র ধরে দ্য কুইন্ট গণমাধ্যমে ২০১৬ সালের ৯ মার্চ প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনের হদিস পায়। ওই প্রতিবেদনের শিরোনাম লেখা হয়েছিল, "বিজেপি নেতাজির ভ্রাতুস্পৌত্র চন্দ্র কুমার বসু পশ্চিমবঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থী ঘোষণা করেছে"
এই প্রতিবেদনের শিরোনাম, উপশিরোনাম, প্রথম ও দ্বিতীয় অনুচ্ছেদে চন্দ্র কুমার বসুর নাম বদলে যোগ করা হয়েছে কঙ্গনা রানাউতের নাম। সেই সঙ্গে ৯ মার্চ ২০১৬ তারিখ বদলে দেওয়া হয়েছে ১২ সেপ্টোম্বর করে দেওয়া হয়েছে।
নিচে (বামে) ভুয়ো প্রতিবেদনের ছবি ও আসল প্রতিবেদনের (ডানে) তুলনা করা হল।
২০১৬ সালের প্রতিবেদন তৈরি করা হয়েছে এই ভুয়ো ছবি।

জাভাস্ক্রিপ্ট, ব্রাউজার ডেভলপার ও ফটোশপের কারিগরি কুশলতা কাজে লাগিয়ে যে কোনও ওয়েবপেজের লেখা সহজেই বদলানো যায়।

Claim Review :   দ্য কুইন্টের খবরে প্রকাশ বিজেপি পশ্চিমবঙ্গে কঙ্গনা রানাউতকে মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থী হিসেবে ঘোষণা করেছ
Claimed By :  Social Media Posts
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story