সুধীর চৌধুরীর মন্তব্যের জেরে উত্তেজিত দিল্লির জনতা জি নিউজের দফতর ভাঙচুর করেনি

বুম দেখে সম্পর্কহীন ছবি দুটি পুরনো এবং সম্প্রতি জি নিউজের অফিসে ভাঙচুরের কোনও ঘটনা ঘটেনি।

দুটি ছবির একটি সেট সোশাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। এই সেটটির একটিতে জি নিউজের মুখ্য সম্পাদক সুধীর চৌধুরীকে দেখা যাচ্ছে আর অন্যটিতে একটি ভাঙচুর হওয়া অফিসের ছবি দেখা যাচ্ছে।এই ছবি দুটির সেটে মিথ্যে দাবি করা হয়েছে যে, সুধীর চৌধুরী দিল্লি বিধানসভা নির্বাচনের এক্সিট পোলের ফলাফল ঘোষণা করার সময় যে মন্তব্য করেন, তার প্রতিক্রিয়ায় এই সংবাদ সংস্থার দফতরে ভাঙচুর চালানো হয়।

এই ফোটোটির সঙ্গে একটি মেসেজে দাবি করা হয়, "জি নিউজের নয়ডা অফিসে ভাঙচুর করা হয়। 'তিহারি' আহত। তাকে চড় মারা হয়েছে।"

বুম দেখেছে যে এই দুটি ছবিই পুরানো এবং জি নিউজের দফতরে সম্প্রতি কোনও ভাঙচুর করা হয়নি।


ফেসবুকের বিভিন্ন পেজেও এই একই ছবি ভাইরাল হয়েছে। এই সব ভাইরাল হওয়া মেসেজের একটিতে লেখা হয়েছে "দিল্লিবাসীদের সুবিধাবাদী বলায় তারা উত্তেজিত হয়ে জি নিউজের দফতরে ভাঙচুর করে। এই ঘটনাটি শুনলাম। এটা কি সত্যি?"

(মূল হিন্দিতে বয়ান: दिल्ली के लोगों को मुफ्तखोर और गद्दार कहने पर भड़की जनता ने ज़ी न्यूज़ के ऑफिस पर किया हमला। ये सुना है सही है क्या?)


পোস্টটি দিল্লি নির্বাচনের এক দিন পর থেকে শেয়ার করা হয়েছে এবং তাতে দাবি করা হয়েছে এক দল উত্তেজিত জনতা দিল্লির জি নিউজের দফতরে ভাঙচুর চালায় এবং এই সংবাদ সংস্থার মুখ্য সম্পাদক সুধীর চৌধুরীর উপর আক্রমণ করে।

দিল্লি নির্বাচনের এক্সিট পোলের ফলাফলে যখন দেখা যায় যে আম আদমি পার্টির সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিশ্চিত, তখন চৌধুরী তাঁর প্রাইমটাইম শো ডিএনএ-তে দিল্লিবাসীর উদ্দেশে তাঁর রাগ প্রকাশ করেন। ২০২০ সালের ৯ ফেব্রুয়ারি তিনি দিল্লির ভোটারদের সুবিধাবাদী বলেন এবং অভিযোগ করেন যে তাঁরা আম আদমি পার্টির বিভিন্ন জিনিস বিনামূল্যে দেওয়ার প্রতিশ্রুতির ভিত্তিতেই ভোট দিয়েছেন।

আরও পড়ুন: আত্মহননের চেষ্টাকে মিথ্যে করে সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের সঙ্গে জোড়া হল

তথ্য যাচাই

বুম দুটি ছবিতে আলাদা ভাবে রিভার্স ইমেজ সার্চ চালায় এবং দেখতে পায় ছবিতে যে দাবি করা হয়েছে তা এই ছবিগুলির সঙ্গে সম্পর্কহীন।

প্রথম ছবি


রিভার্স ইমেজ সার্চ করার ফলে ২০১৯ সালের জুলাই মাসের একটি ছবি পাওয়া যায় যাতে দেখা যাচ্ছে যে সুধীর চৌধুরীর নাকে আঘাত লেগেছে। ২০১৯ সালের ১৩ জুলাই ইউটিউবের একটি ভিডিওতে দাবি করা হয় যে চৌধুরী মুম্বইয়ে এক দুর্ঘটনায় আহত হন।
বুম আরও দেখতে পায় চৌধুরি নিজের ফেসবুক পেজেও ভিডিওটি শেয়ার করেন। ভিডিওটিতে তাঁকে নিজের আঘাত সম্পর্কে বলতে শোনা যায়।

দ্বিতীয় ছবি

দ্বিতীয় ছবিটির উপর রিভার্স ইমেজ সার্চ চালিয়ে আমরা মুম্বইলাইভে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন দেখতে পাই। এই রিপোর্টে বলা হয় যে এই ঘটনাটি মুম্বইয়ে ঘটে। সেখানে মহারাষ্ট্র নবনির্মাণ সেনা মুম্বই কংগ্রেসের অফিসে ভাঙচুর চালায়। এই ঘটনায় এমএনএস-এর নেতা সন্দীপ দেশপান্ডেকে গ্রেফতার করা হয়।

২০১৭ সালের ১ ডিসেম্বর দ্য ট্রিবিউনে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনেও এই একই ছবি শেয়ার করা হয়।

ভাইরাল হওয়া ছবিটি মুম্বইয়ের কংগ্রেস অফিসের।


Updated On: 2020-02-14T21:15:19+05:30
Claim Review :   ছবি দেখায় সুধীর চৌধুরীর মন্তব্যের জেরে জি নিউজের অফিস ভাঙচুর করা হয়েছে
Claimed By :  Facebook Posts
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story