ভুয়ো দাবি সহ ছড়ালো অরবিন্দ কেজরিওয়ালের পুরনো ভোট প্রচারের ছবি

ফেসবুক পোস্টে অসত্য দাবি করা হচ্ছে কেজরিওয়ালের গায়ে নোংরা জল ছোঁড়া হয়েছিল।

অরবিন্দ কেজরিওয়ালের ভোট প্রচারের একটি ছবি বিভ্রান্তিকর দাবি সহ সোশাল মিডিয়ায় শেয়ার করা হচ্ছে। ফেসবুকে দাবি করা হচ্ছে, দিল্লির এক গৃহিনী কেজরিওয়ালের গায়ে ঘর মোছা নোংরা জল ছুঁড়েছেন।

বিভিন্ন ফেসবুক গ্রুপে শেয়ার হওয়া ছবিটিতে দেখা যাচ্ছে, আপনেতা অরবিন্দ কেজরিওয়াল এর জামা ভিজে গেছে। পাশের দরজায় এক গৃহিনী দাঁড়িয়ে রয়েছে। ছবিটির এক পাশে এক ব্যক্তিকে হাত জোড় করে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা যাচ্ছে।

পোস্টটিতে ক্যাপশন লেখা হয়েছে, "#ভোট_প্রচারত অবস্থায় #কেজরীবালের গায়ে ঘরমোছা #নোংড়াজল ছুড়লেন #দিল্লীর জনৈক #গৃহিনী সংগৃহীত পোষ্ট"


পোস্টটি দেখা যাবে এখানে। পোস্টটি আর্কাইভ করা আছে এখানে

পোস্টটি ফেসবুকে বহুজন শেয়ার করেছেন।


তথ্য যাচাই

বুম রিভার্স ইমেজ সার্চ করে মূল ছবিটি খুঁজে পেয়েছে এবং যাচাই করে দেখছে অরবিন্দ কেজরিওয়ালের ছবিটির ব্যাপারে বক্তব্যটি সঠিক নয়। কোনও গৃহিনী তার গায়ে জল ছোঁড়েননি।

এটি ২০১৭ সালের অগস্ট মাসে দিল্লিতে হওয়া বিধানসভা উপনির্বাচনের প্রচারের ছবি। আইচক নামের একটি ওয়েবসাইটে বাওবনা উপনির্বাচন নিয়ে লেখা বিশ্লেষণী একটি প্রতিবেদনে ছবিটি ব্যবহার করা হয়েছে। ছবিটির ক্যাপশনে হিন্দিতে লেখা হয়েছে এটি ''বাওবনা বিধানসভার গলিতে ঘাম ঝড়াচ্ছেন কেজরিওয়াল।"

২০১৭ সালের অগস্ট মাসে প্রকাশিত আইচকের প্রতিবেদনের স্ক্রিনশট।

আরও একটি ভিডিওতে ব্যবহার করা হয়েছে ছবিটি। এই ভিডিওতে ৬ মিনিট ৩৭ সেকেন্ড সময়ের পর কেজরিওয়ালকে একই জামা পরে মঞ্চে বক্তৃতা দিতে দেখা যাবে।

আপ নেতা সঞ্জয় সিং এই ছবিটি টুইটারে শেয়ার করেছিলেন ২০১৭ সালের ২৮ অগস্ট। তিনি ওই টুইটে লেখেন, ''অরবিন্দ কেজরিওয়াল আর আপের উপর সমর্থন দেওয়ার জন্য বাওবনার জনতাকে হার্দিক ধন্যবাদ।'' (হিন্দিতে মূল পোস্ট: ''अरविन्द केजरीवाल और AAP को अपार समर्थन देने के लिये बवाना की जनता का हार्दिक आभार।'')

বিধানসভা উপনির্বাচনে বাওবনা কেন্দ্রের আপ প্রার্থী বেদ প্রকাশ জয়লাভ করলে ওই টুইট করা হয়। আপ নেতা বেদ প্রকাশ ২০১৭ সালের দিল্লি পৌর কর্পোরেশনের নির্বাচনের আগে দল বদল করে বিজেপিতে চলে এলে ওই কেন্দ্রে উপনির্বাচন জরুরি হয়ে পড়ে। ২০১৫ সালে দিল্লি বিধানসভা দখলের পর সেসময় আপ একের পর এক নির্বাচনে খারাপ ফল করতে থাকে। ২০১৭ সালের দিল্লি পৌর কর্পোরেশনের নির্বাচনেও জনরায় যায় আপের বিপক্ষে। সম্প্রতি, হওয়া ২০২০'র বিধানসভা নির্বাচনে জয়ী হয়ে আপ আবার দিল্লিতে ক্ষমতায় ফিরেছে।

আরও পড়ুন: ভুয়ো সংবাদপত্রের ক্লিপের দাবি কলেজে অরবিন্দ কেজরিওয়াল ধর্ষণে অভিযুক্ত হন

Claim Review :   অরবিন্দ কেজরিওয়ালের গায়ে নোংরা জল ছঁড়েছে দিলির গৃহিনী
Claimed By :  Facebook Post
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story