পরিবার নিয়ে এক পায়ে সাইকেল চালানোর ভিডিওটি লকডাউনের সঙ্গে সম্পর্কিত নয়

বুম দেখে ভিডিওটি পুরনো, ২০১৮ সালের অর্থাৎ লকডাউন ঘোষণার অনেক আগে থেকেই অনলাইনে রয়েছে।

ভিন্নভাবে স্বক্ষম এক ব্যাক্তির লাঠিতে ভর দিয়ে সাইকেলে চড়ে একপায়ে তা চালিয়ে স্ত্রী-সন্তানদের চাপিয়ে নিয়ে যাওয়ার স্পর্শকাতর এক পুরনো ভিডিওকে মিথ্যে দাবি সহ নতুন ভাবে শেয়ার করা হচ্ছে। ভিডিওটি শেয়ার করে দাবি করা হচ্ছে ভিডিওটি লকডাউনের ফলে পরিযায়ী শ্রমিকদের দুর্দশার জলন্ত উদাহরণ। সংবাদমাধ্যমে পরিযায়ী শ্রমিকদের দুরাবস্থার করুন কাহিনী ও শিহরণকারী ভিডিও সামনে আসায় অনেকই এই ভিডিওটিও সেই জীবন যুদ্ধের একটি দৃষ্টান্ত বলে ভুল করছেন।

ফেসবুকে ভাইরাল হওয়া ২১ সেকেন্ডের এই ভিডিওটিতে একটি বাচ্চাকে সাইকেলের সামনের রডে ও পিছনের ক্যারিয়ারের আরেকজন শিশু কোলে এক মহিলাকে বসিয়েছেন ভিন্নভাবে সক্ষম এক ব্যক্তি। হাতে লাঠির সাহায্যে ওই ব্যক্তি সাইকেলের ভারসাম্য রেখে এক পায়ে প্যাডেল চালিয়ে অদম্য সাহসে ভর করে এগিয়ে যান ওই ব্যক্তি।

ফেসবুকে ভিডিওটি শেয়ার করে ক্যাপশনে লেখা হয়েছে, "#আত্মনির্ভর_লাঠি, এক পায়ে সাইকেল চালিয়ে পরিবার নিয়ে,,,রাস্তায় হেঁটে যাওয়া শ্রমিক অনেক দেখেছি, কিন্তু এরকম কষ্ট দায়ক দেখিনি"

ভিডিওটি দেখা যাবে এখানে। পোস্টটি আর্কাইভ করা আছে এখানে
আরেকটি ফেসবুক পোস্টে এই ভিডিওটি শেয়ার করে তার সঙ্গে জোড়া হয়েছে পরিযায়ী শ্রমিক দুর্দশার করুন বর্ণনার ধারাভাষ্য।

পোস্টটি দেখা যাবে এখানে এবং আর্কাইভ করা আছে এখানে

বুম ফেসবুকে ক্যাপশন সার্চ করে দেখে একই বয়ানে ভাইরাল হয়েছে ভিডিওটি।

টুইটারেও একই ক্যাপশন সহ পোস্ট করা হয়েছে ভিডিওটি

তথ্য যাচাই

বুম ভিডিওটির কয়েকটি মূল ফ্রেম নিয়ে রিভার্স ইমেজ সার্চ করে দেখে ভিডিওটি ভারতে লকডাউন ঘোষণা করার অনেক আগে থেকেই অনলাইনে আছে। পরিযায়ী শ্রমিকদের সাম্প্রতিক ভোগান্তির সঙ্গে এই ভিডিওটির কোনও সম্পর্ক নেই।

২০১৮ সালের ৫ ফেব্রুয়ারি ওয়ান ইন্ডিয়া তামিল ভিডিওটি ফরাসি ভিডিও শেয়ারিং ওয়েবসাইট ডেইলিমোশান-এ আপলোড করে। তামিল ভাষায় লেখা ভিডিওটির শিরোনামের বাংলা অনুবাদ, "স্ত্রী এবং সন্তানকে নিয়ে এক পায়ে সাইকেল চালানোর ভিডিও" (মূল তামিল শিরোনাম: ஒரு காலில் மனைவி குழந்தையை வைத்து சைக்கிள் ஓட்டும் மாற்றுத்திறனாளி- வீடியோ)

ওই একই দিনে ভিডিওটি নিয়ে প্রতিবেদন প্রকাশ করে ওয়ান ইন্ডিয়া তামিল। বংলাতে ওই তামিল প্রতিবেদনের শিরোনামটি অর্থ, "কোনও মানুষই অক্ষম নয়, দেখুন এই ভিডিও।" (তামিল ভাষায় মূল শিরোনাম: மனது ஊனமில்லை, போராடாத எந்த மனிதனும் ஊனமே.! இந்த வீடியோவை பாருங்க!!)
বুম তামিল ভাষা জানে এরকম ব্যক্তিদের অনুবাদের সাহায্য নিয়ে জেনেছে প্রতিবেদনটি মতামত ভিত্তিক, এখানে ওই ব্যক্তির পরিচয়ের ব্যাপারে কোনও তথ্য দেওয়া নেই।

২০১৮ সালের ১৮ ফেব্রুয়ারি এই ভিডিওটি টুইট করা হয়েছিল। টুইটটি আর্কাইভ করা আছে এখানে

বুম ভিডিওটি পুরনো ও লকডাউনের আগের এ ব্যাপারে নিশ্চিত হতে পারলেও তথ্যের অপ্রতুলতার কারণে ভিডিওটির স্থান ও ওই পরিবারের পরিচয় জানতে পারেনি।

লকডাউনে পরিযায়ী শ্রমিকরা সংশ্লিষ্ট রাজ্যে ফিরতে না পেরে চরম ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন। অনেকে সাইকেলে কিংবা পায়ে হেঁটে বাড়ি ফিরতে গিয়ে দূর্ঘটনার সম্মুখীন হচ্ছেন। রেল মন্ত্রকের তরফে বিশেষ ট্রেনের মাধ্যমে ভিন রাজ্যে আটকে পড়া শ্রমিকদের বাড়ি ফেরানোর চেষ্টা চলেছে।

Updated On: 2020-05-15T20:49:43+05:30
Claim :   ভিডিও দেখায় বিকলাঙ্গ এক পরিযায়ী শ্রমিক সপরিবারে একপায়ে সাইকেল চালিয়ে যাচ্ছে
Claimed By :  Facebook Pages & Twitter Post
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story
Our website is made possible by displaying online advertisements to our visitors.
Please consider supporting us by disabling your ad blocker. Please reload after ad blocker is disabled.