'মুসলিম রাষ্ট্র' লেখা পোস্টার হাতে কংগ্রেস কর্মী, ভাইরাল ছবিটি ভুয়ো

বুম অনুসন্ধান করে দেখেছে, মূল পোস্টারের ছবির লেখা বিকৃত করা হয়েছে।

একটি ছবিতে দাবি করা হয়েছে যে ইন্ডিয়া গেটে নয়া নাগরিকত্ব বিল বিরোধী সভায় কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক প্রিয়াঙ্কা গান্ধীর নেতৃত্বে কংগ্রেস কর্মীরা মুসলিম রাষ্ট্র বা মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ দেশের দাবি করে পোস্টার প্রদর্শন করেছেন। এই দাবি আসলে মিথ্যে।

ছবিটিতে একটি পোস্টারে ফটোশপ করা হয়েছে এবং মিথ্যে ভাবে দাবি করা হয়েছে যে কংগ্রেস একটি মুসলিম রাষ্ট্রের দাবিতে প্রতিবাদ করছে। ওই পোস্টারে লেখা বিকৃত করা হয়েছে এবং লেখা হয়েছে, "সিএবি হটাও। এই দেশকে একটি মুসলিম রাষ্ট্র বানাও।" ( হিন্দিতে মূল লেখা: कैब (CAB) हटाओ इस देश को मुस्लिम राष्ट्र बनाओं)।

১৬ ডিসেম্বর দিল্লির ইন্ডিয়া গেটে জামিয়া মিলিয়া ইসলামিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রদের উপর পুলিশি আক্রমণের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ সভায় প্রিয়াঙ্কা গান্ধী নেতৃত্ব দেন। ১৫ ডিসেম্বর সিটিজেনশিয়া নাগরিকত্ব আইনের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করার অপরাধে বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রদের মারধর করা হয় বলে অভিযোগ করা হয়।

এডিট করা এই ছবিটি ছড়িয়ে পড়েছে। ছবিটির সঙ্গে ক্যাপশন আছে: "মোদী বিরোধী জনতা, নিজেদের চোখ খোলো। লাল রঙে চিহ্নিত করা কথাগুলো পড়ে দেখো এবং কংগ্রেস ও বিরোধী দলগুলির উদ্দেশ্য বোঝার চেষ্টা করো। বিনামূল্যে জল আর বিদ্যুৎ পেয়েই যদি খুশী থাকো, তা হলে মুসলিম রাজ আবার ফিরে আসবে।" ( হিন্দিতে মূল লেখা: मोदी विरोधी, गोल घेरे में जो लिखा है, उसे आखं खोल कर पढ़ लो और समझो कि कांग्रेस और विपक्ष दलों का एजेंडा क्या है? मुफ्त बिजली पानी में ही खुश हो कर रह जाओगे तो मुस्लिम राज फिर आ जायेगा।)

বুম নিশ্চিত ভাবে জেনেছে যে গত সপ্তাহে ইন্ডিয়া গেটে কংগ্রেসের যে প্রতিবাদ সভা হয়েছিল, সেখানে এ রকম কোনও পোস্টার ছিল না।
ইন্ডিয়ান ওভারসিজ কংগ্রেসের একটি আনঅফিসিয়াল পেজে যে ছবি আপলোড করা হয়, এই ছবিটিকে আমরা তার সঙ্গে মিলিয়ে দেখি এবং দেখতে পাই ছবিটিতে আসল পোস্টারে লেখা ছিল, "লাঠি বা গুলি নয়। চাই রোজগার এবং খাবার (রুটি)।"
নীচে এই দুটি ছবি তুলে ধরা হল। ছবি দুটির মধ্যে অনেকগুলি মিল দেখে বোঝা যায় যে পোস্টারটিতে আসলে লেখা ছিল, "लाठी-गोली नहीं रोज़गार-रोटी दो।"

দ্য প্রিন্টের ফটোজার্নালিস্ট সুরজ সিং বিস্ত-এর তোলা আরেকটি ছবিতেও দলের একই নেত্রীকে আসল পোস্টার হাতে দেখা যাচ্ছে।


নীচে ভারতীয় জাতীয় কংগ্রেস দলের সর্বভারতীয় মুখপাত্র সুপ্রিয়া শ্রীনাতকে ওই একই পোস্টার হাতে আরও পরিষ্কার ভাবে ছবিতে দেখা যাচ্ছে।

যে ছবিটি বিকৃত করা হয়েছে ঠিক সেই ছবিটি অবশ্য আমরা খুঁজে পাইনি। তবে ইউনাইটেড নিউজ ইন্ডিয়া প্রদত্ত অন্য দিক থেকে তোলা অন্য একটি ছবিতে আসল পোস্টারটি দেখা যাচ্ছে।


এ ছাড়া আমরা ওই প্রতিবাদসভার অনেকগুলি লাইভ ভিডিয়ো খুঁজে পাই যেখানে প্রতিবাদের অংশ হিসাবে ওই একই পোস্টার দেখানো হয়েছে।

নীচের ফেসবুক লাইভে ১৪ সেকেন্ডের পর ওই পোস্টারটি দেখা যাচ্ছে।


Updated On: 2019-12-25T19:40:56+05:30
Claim Review :  ছবির দাবি সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন বিরোধী পোস্টারে কংগ্রেস মুসলিম রাষ্ট্রের দাবি জানিয়েছে
Claimed By :  Facebook Pages
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story