ভুয়ো সোশাল মিডিয়া বার্তায় রটানো হচ্ছে যে, আরবিআই ৯ টি রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্ক বন্ধ করে দিতে চলেছে

আরবিআই-এর মুখপাত্র ও অর্থমন্ত্রক সেরকম কোনও পদক্ষেপের কথা অস্বীকার করেছে। বলা হয়েছে, কোনও রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্ক বন্ধ হচ্ছে না বরং তাদের কয়েকটিকে সংযুক্ত করে আরও বড় ব্যাঙ্ক তৈরি করা হবে।

ভাইরাল সোশাল মিডিয়া বার্তায় দাবি করা হচ্ছে যে, ভারতের কেন্দ্রীয় ব্যাঙ্ক ৯ রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্ক বন্ধ করে দিতে চলেছে। কিন্তু রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া (আরবিআই) এবং অর্থমন্ত্রক উভয়ই সেই সম্ভাবনার কথা উড়িয়ে দিয়েছে। একটি ছবির আকারে পাঠানো হচ্ছে মেসেজটি। তাতে আরও বলা হচ্ছে যে, সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশেই ওই পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে।

বার্তাটিতে পাঠকদের এই বলেও সাবধান করা হচ্ছে যে, নিজেদের টাকা রক্ষা করার জন্য তাঁরা যেন ওই সব ব্যাঙ্ক থেকে নিজেদের আমানত আর সেভিংস অ্যাকাউন্ট থেকে সব টাকা আগেভাগেই তুলে নেন।

সোশাল মিডিয়ার রটনায় যে ব্যাঙ্কগুলি বন্ধ করে দেওয়া হবে বলে দাবি করা হছে, সেগুলি হল:

  • ১. কর্পোরেশন ব্যাঙ্ক
  • ২. ইউকো ব্যাঙ্ক
  • ৩. আইডিবিআই ব্যাঙ্ক
  • ৪. ব্যাঙ্ক অফ মহারাষ্ট্র 
  • ৫. দেনা ব্যাঙ্ক
  • ৬. ইন্ডিয়ান ওভারসিজ ব্যাঙ্ক
  • ৭. সেন্ট্রাল ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া
  • ৮. ইউনাইটেড ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া
  • ৯. অন্ধ্র ব্যাঙ্ক

টুইটারে এই মেসেজটির সঙ্গে বুমকেও ট্যাগ করা হয়েছিল।

ওই একই বার্তা বুমের হেল্পলাইনেও (৭৭০০৯০৬১১১) আসে।

পাঞ্জাব অ্যান্ড মহারাষ্ট্র ব্যাঙ্ক (পিএমসি ব্যাঙ্ক) থেকে টাকা তোলার ক্ষেত্রে আরবিআই সীমা বেঁধে দিয়েছে। তার ফলে গ্রাহকদের মনে যে আতঙ্ক সৃষ্টি হয়েছে, তা ওই মেসেজকে বিশ্বাসযোগ্য করে তুলেছে।

আরবিআই, তার মুখপাত্র এবং অর্থমন্ত্রক ওই গুজব নস্যাৎ করেছে

আরবিআই- এর এক মুখপাত্র যোগেশ দয়াল ও অর্থ সচিব রাজীব কুমার এ বিষয়ে আলাদা আলাদা টুইট করে জানান যে, খবরটি মিথ্যে।







বুম দয়ালের সঙ্গে যোগাযোগ করে। উনি বলেন, সোশাল মিডিয়ায় ছড়ানো গুজবটি তারও নজরে এসেছে।

৯ টির মধ্যে ৪ টি ব্যাঙ্ক সংযুক্তিকরণ করে বৃহত্তর ব্যাঙ্ক তৈরি হবে

দেনা ব্যাঙ্ক ইতিমধ্যেই ব্যাঙ্ক অফ বরোদার সঙ্গে মিশে গেছে। অন্ধ্র ব্যাঙ্ক, ইউনাইটেড ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া ও কর্পোরেশন ব্যাঙ্ক খুব শীঘ্রই একে অপরের সঙ্গে মিশে গিয়ে একটি বড় ব্যাঙ্ক তৈরি হবে।

ভারতে প্রথম ত্রিমুখী ব্যাঙ্ক সংযুক্তিকরণের উদ্যোগে বিজয়া ব্যাঙ্ক আর দেনা ব্যাঙ্ককে ব্যাঙ্ক অফ বরোদার সঙ্গে সংযুক্ত করা হয় এপ্রিল ১, ২০১৯ তারিখে। এ বিষয়ে এখানে পড়া যাবে।

এছাড়া, অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন ৩০ অগস্ট ঘোষণা করেন যে, ১০ রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্ককে চার ভাগে ভাগ করে তাদের সংযুক্তিকরণ ঘটানো হবে। তার ফলে ১০ ব্যাঙ্কের বদলে তৈরি হবে ৪ বৃহত্তর ব্যাঙ্ক।

সংযুক্তিকরণ ঘটাবে:

  • অন্ধ্র ব্যাঙ্ক আর কর্পোরেশন ব্যাঙ্ক মিশে যাবে ইউনিয়ন ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়ার সঙ্গে।
  • ইউনাইটেড ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া এবং ওরিয়েন্টাল ব্যাঙ্ক অফ কমার্স মিশে যাবে পাঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাঙ্কের সঙ্গে।

রাজীব কুমারের টুইটেও এই সংযুক্তিকরণের উল্লেখ আছে। সেটি এই লেখার শুরুর দিকে রয়েছে। এই রদবদল সম্পন্ন হলে ভারতে থাকবে ১২ রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্ক।

সীতারামনের ঘোষণা নীচের ভিডিওতে দেখা যাবে।



এই খবরটি আগেও ভাইরাল হয়েছে

২০১৭ সালেও, হোয়াটস্যাপ ও সোশাল মিডিয়া একই গুজব ছড়াতে থাকে। সেই সময় বলা হয়, অনাদায়ী ঋণের সমস্যায় জর্জরিত ৯ ব্যাঙ্ক আরবিআই বন্ধ করে দেবে।

সেই সময়ও আরবিআই বিবৃতি দিয়ে জানায় যে, খবরটি ভুয়ো।

ওই একই রকম একটি খবর বুম সেই সময় খন্ডন করেছিল। সেটি নীচে পড়া যাবে।

Claim :   আরবিআই ৯ টি ব্যাঙ্ক বন্ধ করে দেবে
Claimed By :  SOCIAL MEDIA
Fact Check :  FAKE
Show Full Article
Next Story
Our website is made possible by displaying online advertisements to our visitors.
Please consider supporting us by disabling your ad blocker. Please reload after ad blocker is disabled.