নেটিজেনরা ছড়াল বাম নেতা বিমান বসুর বিবাহ বাসনার গুজব

এক ঝলকে দেখলে সত্যি খবর বলে ভ্রম হতে পারে। গ্রাফিক্স জেনরেটর অনলাইন ওয়েবসাইটের সাহায্য নিয়ে তৈরি করা হয়েছে ওই ভুয়ো খবর।

ফেসবুকে পশ্চিমবঙ্গ বামফ্রন্টের চেয়ারম্যান তথা সিপিআইএমের বর্ষিয়ান নেতা বিমান বসুর বিবাহ বাসনা নিয়ে গুজব ছড়ানো হচ্ছে।

ফোসবুক পোস্টটিতে ক্যাপশন লেখা হয়েছে, ‘‘অনুজ বিরিঞ্চি জানালো এই খবর !! যদি সত্যি হয়, আমার চেয়ে বেশি খুশি কেউই হবে না!! সুখী হওয়ার, সংসারী হওয়ার অধিকার সব মানুষের আছে!! উজ্জ্বল ভবিষ্যৎ কামনা করি!!’’

পোস্টটিতে সংবাদ চ্যনেলের ‘উইন্ডো ইন্টারফেস’ দেখা যাচ্ছে। সেখানে ১৩:৫৫ সময়ে ব্রেকিং নিউজ হিসেবে লেখা হয়েছে, ‘বিয়ের ইচ্ছা প্রকাশ করলেন বমফ্রন্ট চেয়’

টিকার (সংবাদ চ্যানেলের নীচে চলমান লেখা) হিসেবে লেখা হয়েছে, ‘CPIM এর ডিজিটালাইজেশনে আপ্লুত হয়ে ঘনিষ্ঠদের কাছে নিজের বিয়ের ইচ্ছে প্রকাশ করলেন’

এই প্রতিবদেন লেখার সময় পর্যন্ত পোস্টটি লাইক করেছেন ২২৪ জন। শেয়ার করেছেন ১৭ জন। পোস্টটি দেখা যাবে এখানে। পোস্টটি আর্কইভ করা আছে এখানে

ফেসবুক পোস্টটির স্ক্রিনশট।

তথ্য যাচাই

এক ঝলকে দেখলে সত্যি খবর বলে ভ্রম হতে পারে। গ্রাফিক্স জেনেরেটর অনলাইন ওয়েবসাইটের সাহায্য নিয়ে তৈরি করা হয়েছে ওই ভুয়ো খবর।

ওই গ্রাফিক্স ইকার্ডটির ডান দিকের কোনায় লেখা রয়েছে ‘ব্রেকইয়োরওননিউজ’। এটি আসলে একটি অনলাইন ফটো সম্পাদন করার ওয়েবসাইট। প্লে স্টেরেও রয়েছে এর অস্তিত্ব। ওয়েবসাইটি তাদের পরিচিতিতে লিখেছে, ‘The Breaking News Generator - Today's top story... you! Or, whatever you want. Add your pic, write the headline and we'll go live to the scene. Sort of.’

অনলাইন ওয়েবসাইট—ব্রেকইয়োরওননিউজ।

রয়েছে হেডলাইন ও টিকার লেখার নির্দিষ্ট জায়গা। ইমেজ অপলোড করার জন্যও রয়েছে বরাদ্দ অপশন। সেখানে পছন্দসই ছবি অপালোড করে টিভি চ্যানেলের ‘উইন্ডো ইন্টারফেস’-এর মতো যে কোনও বক্তব্য লিখে খবরের মত টেম্পলেট তৈরি করা যায়।

পলিটব্যুরো সদস্য সত্তরোর্ধ্ব এই বাম নেতা দীর্ঘদিন ধরে হাল ধরে চলেছেন পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য রাজনীতিতে। অলিমুদ্দিনের অন্দর ও বাইরে ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে মুখ খুলেছেন কমই। সম্প্রতি আনন্দবাজার পত্রিকার এক কলমে সন্দর্ভ স্মতিচারন করেছেন ব্যক্তিগত পরিসরের। লেখাটি পড়া যাবে এখানে

Claim Review :   ঘনিষ্ঠদের কাছে নিজের বিয়ের ইচ্ছে প্রকাশ করলেন বিমান বসু
Claimed By :  FACEBOOK POST
Fact Check :  FALSE
Show Full Article
Next Story