২০১৯ সালে উত্তরপ্রদেশে আহত বালকের ছবি ছড়াল বাংলাদেশ পুলিশের মার বলে

বুম দেখে ২০১৯ সালের ডিসেম্বর মাসে সিএএ বিরোধী আন্দোলনের সময় উত্তরপ্রদেশের বিজনৌরের এক ভিডিওতে দেখা যায় ওই আহত নবালককে।

Claim

উত্তরপ্রদেশে সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন (সিএএ) বিরোধী আন্দোলন চলার সময় আহত হওয়া রক্তাক্ত মুখের এক নাবালকের ছবি বাংলাদেশে পুলিশি নির্যাতন বলে ছড়ানো হচ্ছে। ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর বাংলাদেশে সফরের সময় ইসলামিক সংগঠনের ডাকা বিক্ষোভে টাকা ও হাটহাজারিতে আহত হয় অনেকে। ছবিটিকে এই প্রেক্ষিতে শেয়ার করা হচ্ছে। ভাইরাল হওয়া ফেসবুকে পোস্টে ক্যাপশন লেখা হয়েছে, "এটা জারজ রাষ্ট্র ইজরাইল কর্তৃক ফিলিস্তিনের উপর জুলুমের কোন দৃশ্য নয়। এটি.. ছাত্রলীগ আর পুলিশলীগ কর্তৃক বাংলাদেশে জুলুমের চিত্র।" (ক্যাপশন সম্পাদিত)

Fact

বুম দেখে ভাইরাল ছবিটি বাংলাদেশে সম্প্রতি মোদী বিরোধী বিক্ষোভের জেরে হওয়া হিংসার ঘটনার সঙ্গে সম্পর্কিত নয়। উত্তরপ্রদেশের বিজনৌরে ২০১৯ সালের ২০ ডিসেম্বর সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন বিরোধী আন্দোলনে পুলিশ শিশুদের উপর লাঠি চালায়। বুম ফেসবুক পোস্টের সূত্র ধরে ইমরান খানের নামে এক ব্যক্তির সঙ্গে যোগাযোগ করলে তিনি স্বীকার করেন, তিনিই ২০ ডিসেম্বর জালালাবাদের কাজিয়ান মহল্লায় ওই আহত বাচ্চাটির ছবি তুলেছিলেন। বুম অবশ্য স্বাধীনভাবে যাচাই করেনি এই নাবালক পুলিশের লাঠির ঘায়ে আহত হয়েছিল কিনা। ২০২০ সালের জুন মাসে ওই নাবালকের রক্তাক্ত মুখের ভিডিও ভাইরাল হলে বুম সেটির তথ্য-যাচাই করে।

To Read Full Story, click here
Updated On: 2021-03-28T18:07:08+05:30
Claim Review :   ছবি দেখায় বাংলাদেশে মোদী বিরোধী বিক্ষোভে পুলিশের হাতে আহত নাবালক
Claimed By :  Facebook User
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story