বিভ্রান্তিকর দাবি সহ জিইয়ে উঠল ভারতীয় মন্দিরের স্মারক মুদ্রা

বুম দেখে ভারতীয় রিজার্ভ ব্যাঙ্কের আর্কাইভে অতীতে ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানি প্রচলিত এইরকম কোনও মুদ্রার হদিস নেই।

Claim

ব্রিটিশ শাসনাধীন ভারতে ১৮১৮ সালের রাম, লক্ষন, সীতার ও হনুমানের প্রতিকৃতি খোদাই করা রয়েছে মুদ্রা প্রচলিত ছিল এই দাবি সহ একটি পুরনো স্মারক মুদ্রার ছবি পুনরায় জিইয়ে তোলা হয়েছে। গ্রাফিক পোস্টের ছবিতে লেখা রয়েছে, “সনাতন ধর্মের ছোট্ট একটা প্রমান, জয় শ্রীরাম।” ফেসবুক পোস্টটির ক্যাপশন লেখা হয়েছে, “সনাতন ধর্ম সব থেকে বড় ধর্ম। জয় শ্রীরাম।”

Fact

বুম যাচাই করে দেখে যে ১৮১৮ সালে তৎকালীন ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানি এইরকম কোনও মুদ্রা চালু করেছিল বলে ঐতিহাসিক কোনও স্বাক্ষ্য প্রমাণ নেই। মন্দিরের স্মারক হিসেবে কিছু মুদ্রা প্রণয়ন করা হয়েছিল, সে গুলিকে ‍‘রাম টঙ্কা’ বলা হয়। মুদ্রা সংগ্রাহক এবং গবেষকদের অভিমত এই মুদ্রার কোন অর্থমূল্য ছিল না, তাই বৈধ বিনিময়ের মাধ্যম হিসেবে ধরা হয়না এই মুদ্রাকে। এই ধরণের হবহু স্মারক মুদ্রা ইন্টারনেটে বিভিন্ন বিপননের ওয়েবসাইটে কিনতে পাওয়া যায়। ভারতীয় রিজার্ভ ব্যাঙ্কের আর্কাইভে ঘাঁটলে জানা য়ায় ইংরেজরা ভারতে রামায়ণের আখ্যানের প্রতিরূপ সহ কোনও মুদ্রা প্রচলণ করেনি।

To Read Full Story, click here
Claim Review :   ছবির দাবি রামায়ণের আখ্যান খোদাই করা ১৮১৮ সালের ভারতের মুদ্রা
Claimed By :  Facebook Posts
Fact Check :  False
Show Full Article
Next Story