বিজেপির গোষ্ঠিদ্বন্দ্বের ভিডিও ভাইরাল হয়েছে ভুল কারণে

ক্যাপশনে বলা হয়েছে বিজেপি প্রার্থী জনতার রোষের মুখে পড়েছে। কিন্তু তথ্য যাচাই করে দেখা যায়, বিজেপির দুই গোষ্ঠীর মধ্যে হাতাহাতি হয়েছিল রাজস্থানের আজমেরে মাসুদায় অনুষ্ঠিত এক সভা চলা কালে।
বিজেপির গোষ্ঠিদ্বন্দ্বের ভিডিও থেকে নেওয়া স্ক্রিনশট

বিজেপির দুই গোষ্ঠীর মধ্যে হাতাহাতির ভিডিও ভাইরাল হয়েছে ফেসবুকে। কিন্তু কারণটা পাল্টে দিয়ে বলা হয়েছে, পার্টির কর্মীরা জনতার হাতে মার খেয়েছে।

ভিডিওটি কংগ্রেস কর্মী রাজা গুরজোত সিং-এর ফেসবুক থেকে শেয়ার করা হয়।

দুই দলের লোকেদের একে অপরকে লাথি, থাপ্পড় মারতে দেখা যাচ্ছে ভিডিওটিতে। আর সেই সঙ্গে দেখা যাচ্ছে পার্টির পতাকাও।

ভিডিওর সঙ্গে যে ক্যাপশন দেওয়া আছে, তার বাংলা করলে দাঁড়ায়. “আমরা এটাই বলেছিলাম। জনগণ আপনাদের ক্ষমা করবেন না। বিগত ২৪ ঘন্টায় পোস্টটি অন্ততপক্ষে ১,৫০০ বার শেয়ার করা হয়েছে।

হিন্দিতে লেখা হয়েছিল: “बोला था न जनता माफ नही करेंगी ।”
ক্যাপশনে বলতে চাওয়া হয়েছে যে, বিজেপি প্রার্থীকে জনরোষের সম্মুখীন হতে হয়েছে।

পোস্টটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন, আর আর্কাইভের লিঙ্কের জন্য এখানে

তথ্য যাচাই
আসল ভিডিওটির সন্ধান পায় বুম। সংবাদ মাধ্যম এএনআই (এশিয়া নিউজ ইন্টারন্যাশনাল) সেটি টুইট করে ছিল।বিজেপির দুই গোষ্ঠী নিজেদের মধ্যে মারামারি করে। আজমেরের কাছে মাসুদায় এক জনসভা চলাকালে ঘটনাটি ঘটে। তার খবর প্রকাশ হয় এপ্রিল ১১, ২০১৯, যখন লোকসভা নির্বাচনের প্রথম দফার ভোটপর্ব চলছে।



হিন্দি খবরের কাগজ ‘জাগরণ’ তার রিপোর্টেবলে, বিজেপি প্রার্থী ভগীরথ চৌধুরির প্রচার চলাকালে, মাসুদার প্রাক্তন বিজেপি সাংসদ সুশীল কানওয়ার পালারার স্বামী এবং বিজেপিতে সদ্য যোগ দেওয়া সবীন শর্মার সমর্থকদের মধ্যে হাতাহাতি হয়।

Claim Review :   Video shows a BJP candidate beaten up by the public
Claimed By :  FACEBOOK POSTS
Fact Check :  FALSE
Show Full Article
Next Story