এই ছবিটি কী কানাডার এ্যালিফ্যান্ট মাউন্টেনের? আদেও তা নয়

হাতির অবয়বে ছবিটি তৈরি করেন পোলিশ শিল্পী মিরকিস। ২০১৮ সালের ১৮ জানুয়ারী ছবিটি ফেসবুকে পোস্ট করেন তিনি।

হাতির আকারের একটি পাহাড়ের ছবি ফেসবুকে শেয়ার করে ভুয়ো দাবি করা হয়েছে সেটি কানাডার এলিফ্যান্ট মাউন্টেনের ছবি। মিরকিস নামে এক পোলিশ শিল্পী কয়েকটি ছবি মিশিয়ে তৈরি করেছিলেন "এলিফ্যান্টস মাউন্টেন" নামের ছবিটি।

ভাইরাল হওয়া ছবিটিতে হাতির শুড় সহ সামনের অংশের অবয়বে একটি পাহাড় দেখা যায়। তার গায়ে যেন জমে রয়েছে তুষার। পাহাড়ের উপরে তুষার ঢাকা গাছও দেখা যায়।

ছবিটির সঙ্গে লেখা রয়েছে, ‘এলিফ্যান্ট মাউন্টেন। এটি কানাডার এলিফ্যান্ট মাউন্টেন। দেখতে অবিকল হাতির মতো।’

পোস্টটিতে ক্যাপশন লেখা আছে, ‘বিস্ময়কর’

ভাইরাল হওয়া পোস্টটি লাইক করেছেন ৩.৮ হাজার জন ও শেয়ার করেছেন ১, ১০০ জনের বেশি।

ফেসবুক পোস্টটির স্ক্রিনশট।

পোস্টটি দেখা যাবে এখানে। পোস্টটি আর্কাইভ করা আছে এখানে

তথ্য যাচাই

বুম রিভার্স সার্চ করে জেনেছে এটি আদেও কোনও কানাডার এলিফ্যান্ট মাউন্টেনের ছবি নয়।

মিরকিস নামে এক পোলিশ শিল্পী এই ছবিটি তৈরি করেন আরও কয়েকটি ছবি একসঙ্গে সম্পাদনা করে। ২০১৮ সালের ১৮ জানুয়ারি মিরকিস ছবিটি ফেসবুকে পোস্ট করেন।

ছবির ক্যাপশনটি পোলিশ থেকে অনুবাদ করলে জানা যায়, ‘‘গিরিচূড়া সিরিজ’-এর দ্বিতীয় ছবি এটি। শীতের সময়ের। এই পর্বে ছিল না বসন্ত ও তুষারপাত। আমার মনে হয় এটি আকর্ষণীয় হবে যদি একসঙ্গে সবাইকে রাখা হয়।’’

মারকিস ওই ছবিটি ৫০০ পিএক্সে আপলোড করেন ২০১৮ সালের ২২ জানুয়ারি। মারকিসের আরও এই ধরনের কাজ দেখা যাবে এখানে

মারকিস ওই ছবিটি ৫০০ পিএক্সে আপলোড করেন ২০১৮ সালের ২২ জানুয়ারি।

তথ্য যাচাইকারী সংস্থা স্নপসকে মিরকিস জানান এই ছবিগুলি তৈরি হয়েছে বিভিন্ন ছবির সংমিশ্রণে।

ছবিটি নীচের অংশ যেখানে ঝোপঝাড়ের প্রান্তর দেখা যাচ্ছে তা নেওয়া হয়েছে ইটালির রোকা মালাটেসটিয়ানার একটি পার্বত্য এলাকা থেকে। ছবিটি দেখা যাবে এখানে

প্রান্তরের ছবি যা দিয়ে তৈরি হয়েছে ছবিটির নীচের অংশ। ছবিটি পাওয়া যাবে এখানে

বাকী ছবি দুটির একটি পাহাড়ের অংশ ও হাতির ছবিটি দেখা যাবে এখানেএখানে। এই তিনটি ছবি মিশিয়েই তৈরি করা হয়েছে ওই ‘এলিফ্যান্ট মাউন্টেন’। ভুয়ো দাবিটি আগে স্নপস যাচাই করেছে।

পাহাড়ি এলাকার ছবি যা দিয়ে মূল ছবির ওপরের অংশ তৈরি হয়েছে। ছবিটি দেখা যাবে এখানে
হাতিটির ছবি
তিনটি ছবির সংমিশ্রণে তৈরি হয়েছে এই ছবি।
Claim Review :   অবিকল হাতির মতো কানাডার এলিফ্যান্ট মাউন্টেন
Claimed By :  FACEBOOK POSTS
Fact Check :  FALSE
Show Full Article
Next Story