দিল্লীতে বিজেপি অফিসের সামনে মুকুল রায়ের কাটমানি ফেরতের প্রতিবাদে পুলিশের মার দাবি করা ছবিটি আসলে শ্রীনগরের

ছবিটি ২৮ মে, ২০১৫ সালের। শ্রীনগরে কাশ্মীরের মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে সরকারী কর্মচারীদের এক প্রতিবাদ বিক্ষোভের ছবি।

সোশ্যাল মিডিয়ায় ছবিসহ একটি ফেসবুক পোস্টে দাবি করা হয়েছে, দিল্লী বিজেপি অফিসের বাইরে প্রতিবাদী এক ব্যক্তিকে পুলিশ লাঠিপেটা করতে যায়।

ছবিটিতে খাকি পোষাক পরিহিত নিরাপত্তা রক্ষী এক ব্যক্তিকে লাঠি ধরে মারতে যাচ্ছে। তার কাঁধে বন্দুক রয়েছে। দূরে অনেক লোকের জমায়েত দেখা যাচ্ছে। আরও দুজন নিরাপত্তা রক্ষী রয়েছে ছবিটিতে।

পোস্টটিতে ক্যাপশন লেখা হয়েছে, ‘‘ভদ্রলোক দিল্লীর বিজেপি অফিসে খালি জানতে গিয়েছিল মুকুল রায়, চুংকু পান্ডা আর বিজেপি নোতাদের *** বলা মালটা কাটমানির টাকা ফেরত দেবে কিনা।’’

এ প্রতিবেদন লেখার সময় পর্যন্ত ৮৪ জন লাইক ও ১৫ জন শেয়ার করেছেন। পোস্টটি দেখা যাবে এখানে। পোস্টটি আর্কাইভ করা আছে এখানে

তথ্য যাচাই

বুম রিভার্স সার্চ করে দ্য ডেইলি স্টার লোবাননদ্য কুইন্ট-এর প্রতিবেদনে ছবিটি খুঁজে পায়।

২০১৫ সালের জুন ও জুলাই মাসে প্রকাশিত হয়েছিল প্রতিবেদন দুটি। উভয় প্রতিবেদনের ছবিতেই ক্যাপশন লেখা হয়েছে, ‘‘২৮ মে, ২০১৫ শ্রীনগরের এক প্রতিবাদ চলাকালীন একজন পুলিশ লাঠি ব্যবহার করছেন এক বিক্ষোভকারীকে ছত্রভঙ্গ করতে। (রয়টার্স)’’

(ইংরেজিতে লেখা মূল ক্যাপশনটি: An Indian policeman uses a baton to disperse a protester during a demonstration in Srinagar, May 28, 2015. REUTERS/Danish Ismail)

ডেইলি স্টার লেবানন-এর প্রতিবেদনের স্ক্রিনশট।

ছবিটি তোলেন রয়টার্স এর চিত্রসংবাদিক দানিশ ইসমাইল।

বুম ওপরের ক্যাপশনটি দিয়ে সংবাদসংস্থা রয়টার্স পিকচার্স-এর ছবির অনলাইল স্টকে ছবিটিকে খুঁজে পেতে সক্ষম হয়েছে।

ছবিটিকে দেখা যাবে এখানে। ওই সময় পুলিশ বিক্ষোভরত ডজনখানেক সরকারী কর্মচারীকে গ্রেফতার করেছিল।

কাশ্মীরের মুখ্যমন্ত্রীর কার্যালয়ে তাদের দীর্ঘদিনের বকেয়া দাবি ও অস্থায়ী নিয়োগের নিয়ম নিয়ে বিক্ষোভ প্রদর্শন করেছিল তারা।

রয়টার্স পিকচার্স-এ ছবিটির স্ক্রিনশট

Claim Review :   দিল্লি বিজেপি অফিসের বাইরে প্রতিবাদী ব্যক্তিকে পুলিশে লাঠিপেটা করল
Claimed By :  FACEBOOK POST
Fact Check :  FALSE
Show Full Article
Next Story