বোফর্স না, ওটা রাফায়েল হবে

নিমেষের মধ্যে তৃণমূল কংগ্রেসের জাতীয় মুখপাত্র ডেরেক ও’ব্রায়েন যাদবকে পিছন থেকে ভুল সংশোধন করে দেন।

শনিবার কলকাতার ব্রিগেড প্যারেড গ্রাউন্ডের আশেপাশে, কেন্দ্রীয় ও রাজ্য বাহিনীর অন্তর্ভুক্ত ১০০ টিরও বেশি স্নাইপার ডিপ্লয় করা হয়। ২৩ জন বিরোধী নেতারা বাংলার মাটিতে নেমে আসেন। এবং তাঁরা নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বে বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ লড়াই এর ঘোষণা করে দেন। সকলেই উত্থাপিত স্লোগান দিয়ে, আন্তরিক শুভেচ্ছা সহ, 'গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার' করার চ্যালেঞ্জ ছুঁড়েদেন মোদী সরকারকে।
দুরদুরান্ত থেকে আগত অংশগ্রহণকারীদের জন্যে ডিম-ভাত এবং নির্ভেজাল উৎসাহ, কাশ্মীর থেকে কন্যাকুমারী, গুজরাট থেকে মিজোরাম - তাঁবর প্রবীণ এবং প্রাক্তন নেতারা এক মাঠে, মমতা বন্দোপাধ্যায়ের হুঁশিয়ারি - ইউনাইটেড ইন্ডিয়া সমাবেশের গ্র্যান্ড অ্যালায়েন্সে সবই ঠিক ছিল।

কিন্তু শরদ যাদবের এই ‘স্লিপ অফ টাংগ’ নেট নাগরিকদের মনোযোগ অর্জনে ১০০তে ১০০ পেল। তাঁর বক্তব্যের সময়, লোকতান্ত্রিক জনতা দল পার্টির প্রতিষ্ঠাতা, যাদব বোফর্স এবং রাফায়েলের চুক্তির মধ্যে গুলিয়ে ফেলেন।

তিনি তাঁর ভাষণের প্রায় অন্তিম পর্যায় ছিলেন, যখন যাদব উল্লেখ করেন যে বোফর্সের লুটপাট কিভাবে ঘটে, যখন সীমান্তে সৈন্যদের শহীদ হতে হচ্ছে। "বোফর্সের লুট। অস্ত্র ও গোলাবারুদ এবং সেনাবাহিনীর জাহাজের অনেক লুটপাট হয়েছিল। সীমান্তে সৈন্যরা যখন তাদের জীবন উৎসর্গ করছিল তখন এক সময় বোফর্সের ডাকাতি চালিয়ে যাচ্ছে। ডাকাতি ঘটেছে!" যাদব ঘোষণা করেন।

তিনি তারপর তিন সত্যর মতন যতই রাফায়েল রাফায়েল রাফায়েল বলুন, যাদব বাবুর ট্রোল কেউ আটকাতে পারেন নি।

নিমেষের মধ্যে তৃণমূল কংগ্রেসের জাতীয় মুখপাত্র ডেরেক ও’ব্রায়েন যাদবকে পিছন থেকে ভুল সংশোধন করে দেন। ও’ব্রাইনকে স্পষ্টভাবে বলতে শোনা যায়, "বোফর্স বোলা, ওহ রাফায়েল করদেনা (বোফর্স বললেন ওটা রাফাল করে দিন) ।" যাদব তাড়াতাড়ি নিজেকে সংশোধন করে নেন। "আমাকে ক্ষমা করুন, আমি বোফর্স বলেছিলাম।" কিন্তু যা হওয়ার তা হয়ে গেছিল।

ভিডিওটি এখানে দেখে নিন।

ইতিমধ্যে, টিএমসি প্রধান মমতা ব্যানার্জী, যিনি অনুষ্ঠানের মডারাটিং করছিলেন, দাঁড়ান, অন্যান্য দলের প্রধানদের সাথে কিছু হাস্যকর দৃষ্টিভঙ্গি আদান প্রদান করেন এবং মাইক হাতে তুলে নেন। তিনি বলেন, "শরদজি ঠিক করেছেন। সময়ে আমরা পুরানো জিনিস বলে ফেলি। এটা ‘স্লিপ অফ টাংগ’। কিন্তু এটা ঠিক আছে। এটা বোফর্স নয়, এটি রাফায়েল," জননেত্রীর ড্যামেজ কন্ট্রোল!

রাফায়েল চুক্তি ফ্রান্সের ড্যাসল্ট এভিয়েশন থেকে ভারতের প্রতিরক্ষা মন্ত্রালয়ের ‘৫৮ হাজার কোটি টাকা মূল্যের জন্য ৩৬ টি মাল্টিরোলে জঙ্গী বিমানের’ ক্রয় সম্পর্কিত। রাফায়েল অধিগ্রহণে ক্রয় প্রক্রিয়াটি বাতিল করার জন্য বিজেপি স্ক্যানারের আওতায় পড়েছে এবং প্রতি বিমান খরচ বেড়ে যাওয়ার পরিমাণ ৫২৬.১ কোটি থেকে ১৫৭০ কোটি টাকা পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে বলে অভিযোগ সরকারের বিরুদ্ধে

বোফর্স স্ক্যাম - বোফর্স ডিল স্ক্যাম ইন্ডিয়ান ন্যাশনাল কংগ্রেস এবং সুইডিশ ব্যাংক বোফর্স দ্বারা পরিচালিত একটি প্রধান অস্ত্র সম্পর্কিত স্ক্যান্ডাল ছিল। সরকারের অন্য সদস্যদের মধ্যে সুইডিশ অস্ত্র প্রস্তুতকারক বোফর্স এবি থেকে আলোচনার ঘুষ নেওয়ার অভিযোগে তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী রাজিব গান্ধীকে অভিযুক্ত করা হয়।

Show Full Article
Next Story
Our website is made possible by displaying online advertisements to our visitors.
Please consider supporting us by disabling your ad blocker. Please reload after ad blocker is disabled.