করণ ওবেরয়ের ঘটনা: একাধিক সংবাদ মাধ্যমে সমনামী তিন ব্যক্তির ছবি তালগোল পাকিয়ে ব্যবহার

সংবাদ সংস্থা এএনআই একই নামের একজন আমেরিকান অভিনেতার ছবি ব্যবহার করেছে, যখন অন্য পোর্টাল ব্যবহার করেছে এক স্বাস্থ্য চর্চার মডেলের ছবি।

সংবাদ সংস্থা এএনআই সহ একাধিক মূলধারার সংবাদমাধ্যম, করণ ওবেরয়ের ভুল ছবি ব্যবহার করেছে। অভিনেতা করণ ওবেরয় ৬ মে ২০১৯ তারিখে ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেপ্তার হন। সেই খবর দিতে গিয়ে ওই সংবাদ মাধ্যমগুলি সমনামী তিন ব্যক্তির ছবি তালগোল পাকিয়ে ব্যবহার করেছে।
ওশিওয়ারা পুলিশের দ্বারা ওই গ্রেপ্তারির রিপোর্ট দিতে গিয়ে এএনআই আমেরিকীয় অভিনেতা করণ ওবেরয়-এর ছবি প্রকাশ করেছে। প্রতিবেদনটির আর্কাইভ সংস্করণ দেখতে এখানে ক্লিক করুন। নীচে এএনআইয়ের প্রতিবেদনটির স্ক্রিনশট দেওয়া হল।

অতঃপর, ‘টেলিচক্কর’ নামের এক জনপ্রিয় টেলি দুনিয়ার সংবাদের ওয়েবসাইট, ‘ক্যাচনিউজ.কম’ ও ‘ডেইলিপায়োনিয়র’ স্বাস্থ্য চর্চা বিশেষজ্ঞ ও মডেল করণ ওবেরয়ের ছবির সঙ্গে অভিযুক্তর ছবি গুলিয়ে ফেলে বলে প্রকাশ করে।

বুম প্রথমজনের সঙ্গে যোগাযোগ করে জানতে পারে যে, ঘটনাটি তাঁকে খুবই বিচলিত করেছে। “আমি বুঝতে পারছি না যে, কেবল একটু নাম হওয়ার কারণে দুজন আলাদা ব্যক্তিকে কি করে গুলিয়ে ফেলা সম্ভব হয়।”
“আমরা তো মোটেই এক রকম দেখতে নই। আমি একজন ফ্যাশন ও ফিটনেস মডেল। অভিনয়ের জগতে এখনও পা রাখিনি। আমার উইকিপিডিয়া পেজও একই কথা বলে। এবং একটা ইউআরএল আছে যেটা অভিনেতা করণের পেজের সঙ্গে যোগাযোগ করে দেয়। অপর দিকে যিনি অভিযুক্ত তিনি একজন অভিজ্ঞ টিভি অভিনেতা। এ তো পুরোপুরি একটা বিভ্রান্তির নিদর্শন, যার সঙ্গে কেউই নিজেকে জড়াতে চাইবে না।”
ওই মডেল বুমকে বলেন যে, উনি একটি নিউজ পোর্টালের সঙ্গে যোগাযোগ করে ভুলটা ধরিয়ে দেন। “কিন্তু তাঁরা বলেন, আমি যে সেই ব্যক্তি নই তা প্রমাণ করতে হবে আমায়!”
যে ছবিগুলি ভুল করে টিভি অভিনেতার বলে চালানো হয়েছে, বুম সেগুলি যাচাই করার জন্য ওশিওয়ারা পুলিশ স্টেশনের সিনিয়র পুলিশ ইনস্পেক্টর শৈলেশ পাসালওয়াদের কাছে পাঠায়।
পাসালওয়াদ যে ব্যক্তিকে অভিযুক্ত বলে চিহ্নিত করেন, তাঁর ছবি দেওয়া হল নীচে।

এক মহিলাকে ধর্ষণ ও হুমকি দেওয়ার অভিযোগে অভিনেতা করণ ওবেরয়কে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।
পাসালওয়াদ বুমকে জানান যে ওবেরয়কে ৩৭৬ (ধর্ষণ) আর ৩৮৪ (ব্ল্যাকমেল) ধারায় অভিযুক্ত করা হয়েছে। ‘জস্সি জ্যায়সা কোই নহি’–তে কাজ করেছেন ওবেরয়, ৯০ দশকের ‘ব্যান্ড অফ বয়েজ’-এর সদস্য ছিলেন।

Show Full Article
Next Story
Our website is made possible by displaying online advertisements to our visitors.
Please consider supporting us by disabling your ad blocker. Please reload after ad blocker is disabled.