ভাইরাল হল প্রধানমন্ত্রীর আবু ধাবি আগমনের ফোটোশপ করা ছবি

বুম দেখেছে, মূল ছবিটিতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর মাথায় কোনও আরব আমিরশাহীর উষ্ণীষ ছিল না।

ফেসবুকে নরেন্দ্র মোদীর একটি ফোটোশপ করা ছবি ছড়ানো হয়েছে, যেখানে তাঁর মাথায় আরবের আমিরদের মতো উষ্ণীষ জড়ানো রয়েছে।

গত সপ্তাহে মোদী সংযুক্ত আরব আমিরশাহি সফরে গিয়েছিলেন সে দেশের সর্বোচ্চ অসামরিক সম্মান ‘অর্ডার অফ জায়েদ’ গ্রহণ করতে এবং দুই দেশের মধ্যে রণনীতিগত সম্পর্ক মজবুত করতে।

প্রধানমন্ত্রীর আবু ধাবিতে পদার্পণ এবং সেখানকার প্রশাসনিক কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান খালদুন খলিফা আল মুবারকের দ্বারা তাঁকে স্বাগত জানানোর ছবিটি খুব দুর্বলভাবে ফোটোশপ করা হয়েছে।

ছবিটির ক্যাপশনে লেখা হয়েছে, “দুবাইয়ে নতুন সাজে আমাদের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শ্রীনরেন্দ্র মোদীজি। যখন যেখানে, তখন সেইখানের কার্ড। আমরা সাধারণ ভোটার হিন্দু/মুসলিম খেলা কিছুই বুঝতে পারি না। নেতারা সবই পারেন। জয় হিন্দ"

পোস্টটি দেখা যাবে এখানে। পোস্টটি আর্কাইভ করা আছে এখানে

নেটিজেনরা এই সুযোগে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কেও এর মধ্যে টেনে এনেছেন।

একাধিক পোস্টে এভাবে ক্যাপশন দেওয়া হয়েছে যে, “মুখ্যমন্ত্রী হেজাব পরলে যদি 'মমতা বেগম' হয়! তাহলে প্রধানমন্ত্রী মোদি মাথায় উড়নি পরলে 'মোদী মোল্লা' বলা যাবেনা কেন??”

পোস্টটি আর্কাইভ করা আছে এখানে

সাংবাদিক স্বাতী চতুর্বেদীও তার টুইটে এই ছবিটিই ব্যবহার করেছিলেন, যদিও পরে তিনি সেটি ডিলিট করে দেন।



তথ্য যাচাই

বুম খোঁজখবর চালিয়ে মূল ছবিটি উদ্ধার করেছে এবং দেখেছে যে, আরব শেখ কিংবা আমিরের উষ্ণীষটি পরে মূল ছবিটিতে যোগ করা হয়েছে। মূল ছবিটি নরেন্দ্র মোদীর সরকারি টুইটার হ্যান্ডেল থেকে প্রকাশ করা হয় ২৩ অগস্ট, যখন তিনি পশ্চিম এশিয়ায় ত্রিদেশীয় সফরে সংযুক্ত আরব আমিরশাহির রাজধানী আবু ধাবিতে পৌঁছন। সেই ছবিতে আমিরশাহির প্রতিনিধিরা তাঁকে স্বাগত জানানোর সময় মোদীর মাথায় কোনও আমিরিশাহীও উষ্ণীষ ছিল না।



সংবাদসংস্থা পিটিআইয়ের কাছ থেকে পাওয়া একই ছবি ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস সংবাদপত্রও ছেপেছে।

প্রধানমন্ত্রীর সংযুক্ত আরব আমিরশাহিতে সফরের ব্যাপারে ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসে প্রকাশিত প্রতিবেদনের স্ক্রিনশট।

আবু ধাবির যুবরাজ এবং সেখানকার সশস্ত্র বাহিনীর উপ-সর্বাধিনায়ক শেখ মহম্মদ বিন জায়েদ নরেন্দ্র মোদীকে তাঁর দেশের সর্বোচ্চ অসামরিক সম্মানে ভূষিত করেন। একটি টুইটে মোদী জানান, এই সম্মান আসলে ভারতের জনসাধারণ ও তার সাংস্কৃতিক আদর্শের স্বীকৃতি।





Claim Review :   প্রধানমন্ত্রী মেদী আরবীয় উষ্ণীষ মাথায় দিয়েছেন
Claimed By :  FACEBOOK POSTS
Fact Check :  FALSE
Show Full Article
Next Story