গণমাধ্যমে পুলওয়ামা হামলার মাথা বলে যার ছবি ছাপা হচ্ছে, সেটি একটি অ্যাপের সৃষ্টি

জঙ্গি আবদুল রসিদ গাজির ছবি বলে যে ফোটোটি দেখানো হচ্ছে, সেটি পুলিশের উর্দি পরানোর একটি অ্যাপ থেকে তৈরি করা হয়েছে

জঙ্গি আবদুল রসিদ গাজি ওরফে কামরান বলে যার ছবি প্রায় সব সংবাদমাধ্যমে ছাপা হয়েছে এবং যে নিরাপত্তা বাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে নিহত হয়েছে, তার ছবিটি একটি অ্যাপ ব্যবহার করে তৈরি করা হয়েছে ।

পুলওয়ামায় সিআরপিএফের উপর হামলার ৪ দিন পরে (যে হামলায় অন্তত ৪০ জন জওয়ান নিহত হয়) খবর আসে যে, ওই হামলার পিছনে মাথা যে, সেই ব্যক্তিও এক সংঘর্ষে নিহত হয়েছে । বিভিন্ন গণমাধ্যমে তার যে ছবি ছাপা হয়, তাতে তাকে কালো উর্দি পরে, হাতে ওয়াকি-টকি নিয়ে এবং বেল্টে ব্যাটন গোঁজা অবস্থায় দেখা গেছে ।

বিভিন্ন মিডিয়ায় এবং অনেক সাংবাদিকের টুইটে এই ছবিটিই ব্যবহৃত হয়েছে ।





ন্ডিয়া টুডে তার একটি ভিডিও রিপোর্টেও এই ছবিটি ব্যবহার করে বলেছে—“ইন্ডিয়া টুডে-তে এই প্রথমবার আপনারা পুলওয়ামা হামলার মাথাকে দেখতে পাচ্ছেন, সেই আফগান বিস্ফোরক বিশেষজ্ঞ, যে আহমেদ দার-কে প্রশিক্ষণ দিয়েছে । তার এই প্রথম ছবিগুলি শ্রীনগর থেকে আমাদের ব্যুরো চিফ আসরফ ওয়ানি পাঠিয়েছেন । এগুলিই ওই জঙ্গির প্রকাশিত প্রথম ছবি ।” সারাক্ষণই স্ক্রিনে গাজির ছবিগুলি দেখানো হচ্ছে, যার মধ্যে অন্তত একটি ছবি বানানো বলে বুম বুঝতে পেরেছে ।

রিপোর্টাররা কী ভাবে ছবিটি হাতে পেল, নাকি গাজি নিজেই তার সোশাল মিডিয়া অ্যাকাউন্টে ছবিটি দিয়ে রেখেছিল, তা স্পষ্ট নয় ।

তথ্য যাচাই

জনৈক টুইটার ব্যবহারকারী শুভঙ্কর মুখার্জি উল্লেখ করেছেন, বিভিন্ন মিডিয়ায় ব্যবহৃত ছবিটি সম্পাদনা করা হয়েছে ।



বুম ছবিটি বিশ্লেষণ করে দেখেছে যে, সত্যি-সত্যিই গাজির মুখটির সঙ্গে তার বাকি শরীরের কোনও মিল নেই । ছবিটির খোঁজখবর করতে গিয়ে বুম সন্ধান পেয়েছে এমন অনেকের ছবির, যারা সকলেই গাজির মতো একই ধরনের উর্দি একই ভাবে পরে রয়েছে ।

তার মধ্যে যে ছবিটি আলাদা করে নজর কাড়ে, সেটি ব্রাজিলের সাও পাওলোর গিলারমো লিয়াও-এর । লিয়াও সাও পাওলোর মেট্রোর নিরাপত্তার কাজে নিযুক্ত, কিন্তু তাঁর সুদর্শন চেহারার জন্য তিনি মিডিয়ার দৃষ্টি আকর্ষণ করেন ।

আমরা গিলারমোর ইন্স্টাগ্রাম অ্যাকাউন্ট হাতড়ে দেখেছি, তার মধ্যে একটি ছবি রয়েছে, যা অবিকল গাজির ছবির সঙ্গে মেলে ।

আমরা গাজির ছবির পাশে গিলারমোর ছবিটি রেখে দুটির মধ্যে অনেক সাদৃশ্য দেখতে পাই—

আরও খোঁজখবর করে আমরা একটি মোবাইল অ্যাপ এবং একটি ওয়েব অ্যাপ-এর সন্ধান পাই, যা ব্যবহার করে যে কোনও ছবিকে পুলিশের উর্দি পরিয়ে দেওয়া যায় ।

Show Full Article
Next Story