না, এক ব্যক্তি ৩৫ হাজার টাকা জরিমানা হওয়ার জন্য নিজের গাড়িতে আগুন ধরিয়ে দেননি

মথুরার এক যুগল বিয়ে করতে চেয়ে এই খামখেয়ালি ঘটনাটি ঘটান। সেই ভিডিওটি মিথ্যে দাবির সঙ্গে শেয়ার করা হচ্ছে।

ফেসবুকে ভাইরাল হওয়া একটি পোস্টে দাবি করা হয়েছে যে এক ব্যক্তি ৩৫০০০ টাকা জরিমানা হওয়ায় তার গাড়িতে আগুন ধরিয়ে দেন এবং তার স্ত্রী ও বাচ্চাদের হাতে বন্দুক দিয়ে রাস্তায় প্রতিবাদে বসেন। এই দাবিটি আসলে মিথ্যে।

এবিপি গঙ্গার বুলেটিন থেকে প্রায় দু মিনিট লম্বা এই ক্লিপটি বেছে নেওয়া হয়েছে। ক্লিপটিতে দেখা যাচ্ছে একজন লোক পুলিশের দিকে এবং আশেপাশের লোকেদের বন্দুক দেখাচ্ছেন।

পরের অংশে একজন মহিলার হাতেও বন্দুক দেখা যাচ্ছে এবং সেই সঙ্গে একটি গাড়িতে আগুন ধরে যেতে দেখা যাচ্ছে। ভিডিওটিতে তিনটি শিশুকে রাস্তায় বসে থাকতে দেখা যাচ্ছে এবং রাস্তার লোকেরা এই বিচিত্র ঘটনাটি দাঁড়িয়ে দেখছে।

ক্লিপটি হিন্দি ক্যাপশনের সঙ্গে শেয়ার করা হয়। হিন্দি ক্যাপশনটির অনুবাদ, “এক ব্যক্তি ৩৫,০০০ টাকা জরিমানা হওয়ায় তার গাড়িতে আগুন ধরিয়ে দেন এবং তার স্ত্রী ও বাচ্চাদের হাতে বন্দুক দিয়ে রাস্তায় বসিয়ে দেন।”

হিন্দিতে: “35000/- का चालान करने पर लडके ने अपनी कार में आग लगा दी और बीवी बच्चो को सडक पे पिस्तौल देके बिठा दिया”

নীচে দেখুন ভিডিওটি। ভিডিওটি আর্কাইভ করা আছে এখানেএখানে

পোস্টটি ৩৬,০০০ জনের বেশি শেয়ার করেছেন।

তথ্য যাচাই

‘এক ব্যাক্তি নিজের গাড়িতে আগুন ধরিয়ে দিয়েছেন’ এই কথা দিয়ে সার্চ করে আমরা হিন্দুস্তান টাইমসইন্ডিয়া টুডের কিছু খবরের প্রতিবেদন দেখতে পাই।

২০১৯ সালের ২৫ সেপ্টেম্বর ঘটনাটি ঘটে উত্তরপ্রদেশের মথুরা জেলায়। স্থানীয় পুলিশ ওই ব্যাক্তিকে শুভম চৌধুরী বলে শনাক্ত করেছে এবং জানিয়েছে যে সংবাদমাধ্যমের দৃষ্টি আকর্ষণের জন্য পুরো ঘটনাটি ঘটানো হয়।



বুম মথুরা পুলিশের সঙ্গে যোগাযোগ করলে তারা হিন্দিতে লেখা একটি প্রেস রিলিজ পাঠায়।

ওই বক্তব্য অনুযায়ী ২৫ সেপ্টেম্বর বিকেল সাড়ে চারটের সময় শুভম চৌধুরী এবং অঞ্জলা শর্মা তার তিন সন্তানকে নিয়ে একটি গাড়ি চেপে এসএসপি অফিসে পৌঁছান। পরে চৌধুরী এবং শর্মা গাড়িটিতে আগুন ধরিয়ে দেন। পুলিশ হস্তক্ষেপের চেষ্টা করলে চৌধুরী তার সঙ্গে থাকা বেআইনি বন্দুক দিয়ে শূন্যে গুলি চালান। এর ফলে চার পাশে আতঙ্ক তৈরি হয়। চৌধুরী সংবাদ চ্যানেল এবিপি নিউজকে ঘটনাস্থলে পৌঁছানোর জন্য খবর দিয়েছিল। তাদের খবরেও এই তথ্যটি পাওয়া যায়।



অঞ্জলা শর্মা বিবাহিতা এবং তার তিনটি সন্তান আছে। শুভম চৌধুরীর সঙ্গে তার সম্পর্ক ছিল। তারা বিয়ে করবেন বলে ঠিক করেন এবং শুভমকে বিখ্যাত করার জন্য এই পরিকল্পনাটি করেন। ভারতীয় দণ্ডবিধি ও ফৌজদারি অপরাধ সংশোধনী আইন ও অস্ত্র আইনে দুজনের নামে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

হিন্দুস্তান টাইমসের প্রতিবেদন অনুসারে শুভম চৌধুরী পুলিশের কাছে তার বক্তব্য বার বার বদলেছেন।

“কখনও তিনি বলেছেন তার সঙ্গের মহিলা তার স্ত্রী, কখনও বলেছেন তিনি তার বোন। পরে তিনি নিজের বক্তব্য বদলে ফেলেছেন এবং জানিয়েছেন যে উনি তার ব্যবসার অংশীদার।” মথুরার সিনিয়র সুপারিন্টেন্ডেন্ট অব পুলিশ শলভ মাথুর একথা জানিয়েছেন বলে ওই সংবাদপত্রের প্রতিবেদনে দাবি করা হয়েছে।

সরকার নতুন মোটর ভেহিকল অ্যাক্ট আনার পর এ রকম বহু ভিডিও শেয়ার করা হয়েছে। নতুন মোটর ভেহিকল অ্যাক্টে ট্রাফিক আইন ভাঙার জন্য অনেক টাকা জরিমানা করা হচ্ছে। ২০১৯ সালের ১ সেপ্টেম্বর থেকে এই নতুন আইন কার্যকরী হয়েছে।

মোটর ভেহিকল (অ্যামেন্ডমেন্ট) অ্যাক্ট ২০১৯ সংক্রান্ত এমন বহু ভুয়ো দাবির তথ্যযাচাই করেছে বুম।

https://hindi.boomlive.in/a-two-years-old-video-of-policemen-drinking-alcohol-on-duty-resurfacing-on-social-media/
Updated On: 2019-11-18T11:06:00+05:30
Claim Review :  ৩৫ হাজার টাকা জরিমানা হওয়ায় এক ব্যক্তি গাড়িতে আগুন ধরিয়ে দিয়েছে
Claimed By :  FACEBOOK
Fact Check :  FALSE
Show Full Article
Next Story