না, অভিনন্দনের পরিবার পাকিস্তানের উদ্দেশে প্রার্থনা করেনি

কিছু অপ্রাসঙ্গিক ছবি ভুল ব্যাখ্যা দিয়ে ভাইরাল হচ্ছে ভারতীয় বায়ু সেনার পাইলট অভিনন্দন বর্তমানকে নিয়ে।

পাকিস্তানের পতাকার সামনে একদল মহিলার প্রার্থনা করার এক গুচ্ছ ছবি এবং পাকিস্তানকে ধন্যবাদ জানিয়ে উইং কমান্ডার অভিনন্দন বর্তমানের একটি ভুয়ো অ্যাকাউন্ট থেকে একটি টুইট সোশাল মিডিয়ায়, বিশেষত ফেসবুকে সম্প্রতি ভাইরাল হয়েছে । সঙ্গে একটি ক্যাপশন, যাতে লেখাঃ “মুক্তি পাওয়ার পরই অভিনন্দন ও তাঁর পরিবার পাকিস্তানবাসী ও ইমরান খানকে পতাকা হাতে নিয়ে ধন্যবাদ জানালেন ।”

ফেসবুকের পোস্টটি এখানে দেখতে পারেন । পোস্টটির আর্কাইভ সংস্করণ দেখুন এখানে

তার সঙ্গে যে ব্যাখ্যা দেওয়া হয়, তা হল—“ইতিমধ্যে ইমরান খান তাঁর শুভেচ্ছার প্রমাণ হিসাবে উইং কমান্ডার অভিনন্দনকে মুক্তি দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন, কিন্তু ভারতের নির্লজ্জ মিডিয়া ব্যাপারটাকে তাদের একটা কূটনৈতিক জয় হিসাবে প্রচার করতে থাকে ।”

তথ্য যাচাই

প্রথম ছবি

বুম ছবিটির খোঁজখবর নিয়ে দেখেছে, এটি প্রথম ছাপা হয় পাকিস্তানের একটি উর্দু সংবাদ-পোর্টালে । তাতে ক্যাপশন ছিল—হায়দরাবাদের হিন্দু সম্প্রদায়ের মহিলারা পাকিস্তানের নিরাপত্তার জন্য দোয়া মাগছেন । জসরাত ডট কম অনুযায়ী ছবিটি প্রথম ছাপা হয় ২০১৯ সালের ২৮ ফেব্রুয়ারি । নিউজ-পোর্টালের লিংকটি এখানে দেখুন ।

দ্বিতীয় ছবি


দ্বিতীয় ছবিটি এক ফেসবুক পোস্টে প্রকাশ হয়, যাতে উইং কমান্ডার অভিনন্দন তাঁকে মুক্তি দেবার জন্য পাকিস্তানকে ধন্যবাদ জানিয়ে টুইট করেছেন । উইং কমান্ডারের তথাকথিত টুইটার হ্যান্ডেলটি ভুয়ো এবং ভারতীয় বায়ুসেনার সরকারি সোশাল মিডিয়া হ্যান্ডেলগুলি আগেই তার পর্দাফাঁস করেছে । ৬ মার্চ ভারচীয় বায়ুসেনার সরকারি হ্যান্ডেল থেকে টুইট করে জানানো হয়, উইং কমান্ডার অভিনন্দন পাক বাহিনীর হাতে ধরা পড়ার পর তাঁর নামে যে কটি টুইটার হ্যান্ডেল তৈরি করা হয়েছে, সে সবই ভুয়ো । বায়ুসেনার তরফে আরও জানানো হয় যে, উইং কমান্ডার সোশাল মিডিয়ায় উপস্থিত নেই । ভুয়ো সোশাল মিডিয়া অ্যাকাউন্ট নিয়ে বুম-এর রিপোর্ট আপনারা এখানে দেখতে পারেন । নীচে বায়ুসেনার টুইটটি দেওয়া হল ।



তৃতীয় ছবি

এক বৃদ্ধা মহিলার ছবি, যিনি টেলিভিসনের পর্দায় ইমরান খানের ছবি দেখে আবেগপ্রবণ হয়ে পড়ছেন । বুম আগেই এই ছবিটির ভুয়ো ব্যাখ্যা নস্যাৎ করেছে ।

চতুর্থ ছবি

একটি পোস্টার, যার ক্যাপশন দেওয়া হয়েছেঃ তামিলনাড়ু ইতিমধ্যেই শুরু করেছে । পুলওয়ামায় নিহত শহিদদের নামে মোদির ভোট চাওয়ার নির্লজ্জ প্রচেষ্টায় যেন লোকে সাড়া না দেয় । বিজেপি হটাও, দেশ বাঁচাও!

বুম খোঁজখবর নিয়ে দেখেছে, ছবিটি আসামের, সে রাজ্যে নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলের প্রতিবাদে আয়োজিত বিক্ষোভের, যা তোলা হয় ১০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ । ছবিটি ব্যবহৃত হয়েছিল একটি প্রতিবেদনের সঙ্গে, যার শিরোনাম ছিলঃ “তাঁর আসাম সফরের সময় নরেন্দ্র মোদীর বিরুদ্ধে উলঙ্গ হয়ে কালো পতাকা দেখিয়ে প্রতিবাদ জানানো হচ্ছে ।”

রিপোর্টটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন ।

Claim Review :   Abhinandans Family Offers Prayer to Pakistan After His Release
Claimed By :  Facebook Post
Fact Check :  FALSE
Show Full Article
Next Story