না, মক্কা মসজিদ বিস্ফোরণ মামলায় অসীমানন্দকে রেহাই দেওয়া বিচারপতি বিজেপিতে যোগ দেননি

বেশ কয়েকজন সাংবাদিক এই মর্মে প্রচারিত একটি ভুয়ো পোস্ট সত্যি বলে বিশ্বাস করে ফেলেছিলেন l কিন্তু ওই বিচারপতি রবীন্দ্র রেড্ডি আসলে একটি আঞ্চলিক দল তেলেঙ্গানা জন সমিতিতে যোগ দেন, বিজেপিতে নয়

বিজেপি সভাপতি অমিত শাহ এবং ছত্তিশগড়ের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী রমন সিং এক ব্যক্তিকে দলে স্বাগত জানাচ্ছেন—এমন একটি পুরনো ছবি ভুল ব্যাখ্যা সহ সোশাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে ।

ছবিটির ক্যাপশনে লেখা—“দেখুন, মক্কা মসজিদ বোমা বিস্ফোরণ মামলায় জড়িত আরএসএস কর্মী স্বামী অসীমানন্দকে বেকসুর খালাস দেওয়া এনআইএ বিচারপতি রবীন্দ্র রেড্ডি কেমন ভারতীয় জনতা পার্টিতে যোগ দিচ্ছেন!”

তবে ঘটনা হল, না রবীন্দ্র রেড্ডি বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন, না ছবিতে বিজেপিতে স্বাগত জানানো ব্যক্তিটি কোনও এনআইএ বিচারক । ছবির ব্যক্তিটি হলেন প্রাক্তন কংগ্রেস এমএলএ রামদয়াল উইকে, যিনি গত বছর বিজেপিতে যোগ দেন । অল্টনিউজও এই ভুয়ো পোস্টটিকে নস্যাত্ করেছে ।

পোস্টটি ফেসবুক পেজ ফেকু এক্সপ্রেস এবং ম্যাঙ্গালোর ভয়েস শেয়ার করে এবং পরে নিয়মিত সোশাল মিডিয়া ব্যবহারকারীদের টুইটে ছড়িয়ে যায়, যার অনেক টুইটার হ্যান্ডেল যাচাই করা ।

পরে ফেকু এক্সপ্রেস একটি ব্যাখ্যা দিয়ে বিষয়টি স্পষ্ট করলেও ম্যাঙ্গালোর ভয়েস এখনও তেমন কোনও ব্যাখ্যা দেয়নি । পোস্টের আর্কাইভ বয়ানটি এখানে দেখুন।

সাংবাদিকরাও ভুয়ো পোস্টটি বিশ্বাস করলেন

বেশ কয়েকজন অগ্রগণ্য সাংবাদিকও এই ভুয়ো পোস্টটি টুইটে শেয়ার করেছেন । তাঁদের কেউ-কেউ পরে ভুল স্বীকার করে টুইটগুলি মুছে দিয়েছেন, কিন্তু সকলে নন । যেমন সাংবাদিক সৌরভ দত্ত ম্যাঙ্গালোর ভয়েস-এর পোস্টটি টুইট করেও পরে সেটি মুছে দেন । একই ভাবে নিধি রাজদান , স্বাতী চতুর্বেদী , সদানন্দ ধুমের মতো যাঁরা সৌরভ দত্তের টুইট উদ্ধৃত করেছিলেন, তাঁরাও নিজেদের টুইট ব্যাখ্যা সহকারে মুছে দিয়েছেন ।

আবার আম আদমি পার্টির নেতা সঞ্জয় সিংয়ের মতোও অনেকে আছেন, যাঁরা না ভুয়ো পোস্টের টুইটটি মুছে দিয়েছেন, না ভুল স্বীকার করে কোনও ব্যাখ্যা দিয়েছেন ।



তথ্য যাচাই

ভাইরাল হওয়া পোস্টটিতে দাবি করা হয়, প্রাক্তন বিচারপতি রবীন্দ্র রেড্ডি বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন । রেড্ডি এর আগে একবার খবরের শিরোনামে এসেছিলেন গত বছর এপ্রিলে, যখন তিনি হায়দরাবাদে ২০০৭-এর মার্চে সংঘটিত মক্কা মসজিদ বিস্ফোরণ মামলায় অভিযুক্ত অসীমানন্দ সহ পাঁচজনকে মুক্তি দেন । সে সময় তিনি বিজেপিতে যোগ দেওয়ার আগ্রহও প্রকাশ করেছিলেন ।

কিন্তু ছবিতে অমিত শাহ যাঁকে স্বাগত জানাচ্ছেন, তিনি রবীন্দ্র রেড্ডি নন । আরও গুরুতর বিষয় হল, রেড্ডি শেষ পর্যন্ত বিজেপিতে যোগ দেননি । ছবিতে যাঁকে দেখা যাচ্ছে, তিনি হলেন ছত্তিশগড়ের প্রাক্তন কংগ্রেস বিধায়ক রামদয়াল উইকে । এই রাজনীতিক ২০০০ সালে বিজেপি থেকেই কংগ্রেসে গিয়েছিলেন । তিনি ছত্তিশগড়ের জনপ্রিয় আদিবাসী নেতা । ২০১৮ সালে তিনি আবার বিজেপিতেই ফিরে যান ।

পুরো রিপোর্টটি পড়তে এখানে ক্লিক করুন ।

রবীন্দ্র রেড্ডি কে?

রবীন্দ্র রেড্ডি একজন প্রাক্তন বিচারপতি । তিনিই মক্কা মসজিদ বিস্ফোরণ কাণ্ডে অভিযুক্ত স্বামী অসীমানন্দ ও আরও চারজনকে মুক্তি দেন ২০১৮ সালের ১৬ এপ্রিল । রায় বেরনোর কয়েক ঘন্টার মধ্যেই তিনি বিচারকের পদ থেকে ইস্তফা দেন এবং তার পর বিজেপিতে যোগদানের ইচ্ছাও প্রকাশ করেন । যে-কোনও কারণেই হোক, তাঁর সেই ইচ্ছা পূরণ হয়নি এবং পরে তিনি তেলেঙ্গানা জন সমিতি (টিজেএস) নামে সমাজকর্মী এম কোদণ্ডরাম প্রতিষ্ঠিত একটি আঞ্চলিক দলে নাম লেখান । টিজেএস ২০১৮ সালের তেলেঙ্গানা বিধানসভা নির্বাচনের সময় তেলেঙ্গানা রাষ্ট্র সমিতি-বিরোধী কংগ্রেস জোটের শরিক ছিল ।

এই প্রাক্তন বিচারপতির টিজেএস-এ যোগদান বিষয়ে দ্য হিন্দু সংবাদপত্রে প্রকাশিত রিপোর্টটি এখানে পড়তে পারেন ।

Claim Review :  মক্কা মসজিদ বস্ফোরণ মামলায় অসীমানন্দকে রেহাই দেওয়া বিচারপতি বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন
Claimed By :  Facebook Posts
Fact Check :  FALSE
Show Full Article
Next Story