না, টিভির এক অনুষ্ঠানে 'ইয়ডলিং' পটীয়সী এই গায়িকা কিশোর কুমারের নাতনি নয়

'সা রে গা মা পা লি’ল চ্যাম্পস' ২০১৯ এর প্রতিযোগী পিকোসা মোহারকারকে কিশোর কুমাররের নাতনি বলে চালানো হয়েছে সোশাল মিডিয়ায়।

সা রে গা মা পা’র ‘লি’ল চ্যাম্পস ২০১৯’র প্রতিযোগী পিকোসা মোহারকারকে কিশোর কুমারের ‘চলা যাতা হ্যায়’ গানটি গাইতে দেখা যাচ্ছে একটি ভিডিওতে। ভিডিওটি সোশাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে, কিন্তু দাবি করা হয়েছে মেয়েটি কিশোর কুমারের নাতনি, মুক্তিকা গাঙ্গুলি।

ওই রিয়ালিটি শোয়ে, পিকোসা মোহারকার 'ইয়ডলিং'(yodelling)-এ তার পারদর্শিতা দেখায়। কিন্তু তাকে কিশোর কুমারের নাতনি মুক্তিকা গাঙ্গুলি বলে চিহ্নিত করা হয়েছে ভাইরাল ভিডিওতে। আর বলা হয়েছে, কিশোর কুমারের পরিবারে গানের যে ঐতিহ্য আছে তা সে বজায় রেখেছে।

বুম জি’র জনসংযোগ বিভাগের সঙ্গে যোগাযোগ করে এই ব্যাপারে জানতে চাইলে তাঁরা দাবিটি নস্যাৎ করে দেন।

ভাইরাল পোস্টের সঙ্গে দেওয়া ক্যাপশনে বলা হয়, “ইনি মুক্তিকা গাঙ্গুলি, প্রখ্যাত গায়ক কিশোর কুমারের নাতনি এবং অমিত কুমারের মেয়ে। সে তার ঠাকুরদার প্রতি সম্মান জানাচ্ছে। ওই পরিবারে পুরুষানুক্রমেই প্রতিভা বজায় আছে।”

ফেসবুকে ভাইরাল হওয়া পোস্টগুলি।

ভিডিওটি বুমের হেল্পলাইনেও(৭৭০০৯০৬১১১) আসে।

হোয়াটসঅ্যাপে পাওয়া বার্তাটির স্ক্রিনশট।

বুম নিশ্চিত হয় যে, প্রতিযোগীটির নাম পিকোসা মোহারকার। মুক্তিকা গাঙ্গুলি নয়। সে নাগপুরের বাসিন্দা। আমরা ওই শোয়ের জনসংযোগ বিভাগের সঙ্গে যোগাযোগ করলে, তাঁরা আমাদের বক্তব্য সমর্থন করেন।

এরপর আমাদের আরও একটি ভিডিও ক্লিপের সন্ধান দেওয়া হয়। তাতে জি সা রে গা মা পা’র বাংলা প্রতিযোগিতায় অঙ্কিতা ভট্টাচার্যকেও ওই ‘চলা যাতা হুঁ’ গানটি গাইতে দেখা যায়। ওই ভিডিও ক্লিপটিও একই ধরনের দাবি সমেত ভাইরাল হয়। গায়িকার নাম অঙ্কিতার বদলে বলা হয়েছে, উনি জুলেখা, কিশোর কুমারের নাতনি।

একই ধরনের দাবি সহ অন্য আরেকটি ভাইরাল ভিডিও।

ভিডিওটি ফেসবুকেও ভাইরাল হয়।

আমরা ‘লি’ল চ্যাম্প’ অনুষ্ঠানের উপস্থাপক রবি দুবের সঙ্গেও যোগাযোগ করি।

উনি বলেন, “পিকোসার সঙ্গে কিশোর কুমারের কোনও সম্পর্কের কথা আমার জানা নেই।”

এত ছোট বয়েসে 'ইয়ডলিং' করার ক্ষেত্রে অসাধারণ দক্ষতা অর্জন করার জন্য বিচারকরা পিকোসার ভূয়সী প্রসংশা করেন। 'ইয়ডলিং'-এর সঙ্গে কিশোর কুমারের নাম ওতপ্রোত ভাবে জড়িয়ে গেছে। কারণ, এ দেশে ওই ধরনের গায়কি উনিই প্রথম জনপ্রিয় করে তোলেন।

বুম আরও জানতে পারে যে, অমিত কুমারের মেয়ে মুক্তিকা জি-এর ওই শোয়ে অংশ নিচ্ছেন না। উনিও একজন গায়িকা। ‘বাবা মেরে’ বলে তাঁর একটি অ্যালবাম মুক্তি পায় ২০১৫ সালে। ওই অ্যালবাম প্রকাশ অনুষ্ঠানের ভিডিও নীচে দেওয়া হল।



নীচে ওই অ্যালবামের ‘টিজার’ বা পরিচিতি ক্লিপ দেওয়া হল।



Show Full Article
Next Story