না, এই ছবিটি পাকিস্তানি সেনার সাময়িক যুদ্ধবিরতির ছবি নয়

পাক অধিকৃত কাশ্মীরের সাত বছর বয়সী আবিদ শেখ কৃশানগঙ্গা নদীতে এবছরের জুলাই মাসে ডুবে যায়। তার দেহ উদ্ধার করে ভারতীয় সেনাবাহিনী পাকিস্তানের হাতে তুলে দেয়।

পাকিস্তানি সেনারা সাদা পতাকা ওড়াচ্ছে ভারতীয় সেনাদের লক্ষ করে কাশ্মীরের গুরেজ উপত্যাকায় এরকম ফেসবুকে ভাইরাল হওয়া একটি ছবিকে মিথ্যে দাবি করা হচ্ছে সেটি সাময়িক যুদ্ধবিরতির ছবি।

বুম খুঁজে পেয়েছে ছবিটি আসলে তোলা হয়েছিল যখন ভারতীয় সেনারা পাক অধিকৃত কাশ্মীরের কৃশানগঙ্গা নদীতে তলিয়ে যাওয়া সাত বছর বয়সী বালকের মরদেহ পাক সেনা বাহিনীর হাতে তুলে দিয়েছিল।

ফেসবুকে ছবিটির ক্যাপশন লেখা হয়েছে, ‘‘আমাদের বীর #সেনাদের সার্জারীর ফল। পাকিস্তানের সেনারা হাতে সাদা পতাকা নিয়ে ভারতীয় সেনার কাছে শান্তি ভিক্ষা চাইছে। গর্ব করুন আমাদের সেনাদের উপরে।’’ (আর্কাইভ লিঙ্ক)

ভারত সরকারের রাজ্যের পুনর্বিন্যাসের বড় রদবদলের প্রাক্কালে এই ছবিটি বিভিন্ন ফেসবুক পেজে শেয়ার করা হয়েছে একই বয়ানে।

তথ্য যাচাই

বুম রিভার্স সার্চ করে খুঁজে পেয়েছে এটি এবছরের জুলাই মাসের ঘটনা। যখন ভারতীয় সেনারা পাক অধিকৃত কাশ্মীরের কৃশানগঙ্গা নদীতে তলিয়ে যাওয়া সাত বছর বয়সী বালকের মরদেহ পাক সেনা বাহিনীর হাতে তুলে দিয়েছিল। আবিদের দেহ নদীর স্রোতে ভারতীয় ভুখন্ডে চলে এসেছিল।

এই ঘটনা নিয়ে ইন্ডিয়া টুডে, ফ্রিপ্রেসকাশ্মীর, দ্য টাইমস অফ ইন্ডিয়া এবং গাল্ফ নিউজ সহ বিভিন্ন গণমাধ্যেমে প্রতিবেদন প্রাকাশিত হয়েছে।

নীচে ইন্ডিয়া টুডের প্রতিবেদনের সারাংশ দেওয়া হল।

"শুরুতে এদিক থেকে প্রশাসনের তরফে বারবার চেষ্টা করা হলেও পাক সেনাবাহিনী দেহ নিতে অস্বীকার করে। মঙ্গলবার পাওয়া একটি ভিডিও বার্তায় দেখা যায়—মৃতের পরিবারের লোকজনকে প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের সাহায্য চেয়ে তাদের পুত্রের মরদেহ ফেরানোর জন্য  আবেদন।"

টুইটারের মাধ্যমে সলমন খানকে ট্যাগ করে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান ও ভারতীয় প্রশাসনের কাছে ছেলেটির দেহ ফেরানোর আবেদন জানানো হয়।



২৪ ঘন্টার মধ্যে হটলাইনের মাধ্যমে পাকিস্তানের পরিবারের হতে ভারতীয় সেনা দেহটি তুলে দেয়। নীচে দেওয়া হল হস্তান্তর প্রক্রিয়ায় ছবি সহ টুইটগুলি।







Claim Review :  পাকিস্তানি সেনা সাদা পতাকা উড়িয়ে সাময়িক যুদ্ধবিরতির ডাক দিয়েছে
Claimed By :  FACEBOOK POSTS
Fact Check :  FALSE
Next Story