ভারতীয় বায়ু সেনার যে পাইলট বিমান পাকিস্তানের বালাকোটে হামলা চালান, ইনি সেই পাইলট নন

হোয়াটসঅ্যাপে অনেকগুলি ফরওয়ার্ড আর সোশাল মিডিয়ায় পোস্ট মিথ্যে দাবি করেছে যে, মঙ্গলবার বালাকোটে বিমান হামলা চালান মহিলা বৈমানিক উর্বশী জারিওয়ালা

ভারতের প্রথম মহিলা যুদ্ধ বিমান পাইলট স্নেহা শেখাওয়াত, প্রজাতন্ত্রদিবসে বায়ু সেনার মহড়ার নেতৃত্ব দেন। এখন তাঁর ছবি এই বলে শেয়ার করা হচ্ছে যে, মঙ্গলবার ভোরের বালাকোট বিমান হামলায় উনিও অংশ নেন। কিন্তু দাবিটি মিথ্যে।

পোস্টে ছবিটির সঙ্গে দেওয়া বর্ণনায় আরও বলা হয়েছে ওনার নাম উর্বশী জারিওয়ালা। এবং তিনি সুরাটের বুল্কা ভবন স্কুলের ছাত্রী ছিলেন।



পোস্টটির আরকাইভ সংস্করণ দেখতে এখানে ক্লিক করুন।

পোস্টটির আরকাইভ সংস্করণ দেখতে এখানে ক্লিক করুন।

বুম রিভার্স ইমেজ সার্চ করে। দেখা যায়, ছবিতে যাঁকে দেখা যাচ্ছে তিনি আসলে স্নেহা শেখাওয়াত, ইন্ডিয়ান এয়ার ফোর্স (আইএএফ) বা ভারতীয় বায়ু সেনার একজন স্কোয়ড্রন লিডার। উনি হলেন প্রথম মহিলা যিনি ২০১২ সালের রিপাবলিক ডে প্যারেডে বায়ুসেনা দলের নেতৃত্ব দেন।

‘ভারত রক্ষক’ নামের এক ওয়েবসাইট, ভারতীয় প্রতিরক্ষা বাহিনীর কর্মী ও অফিসারদের সম্পর্কে ডেটা বেস বা তথ্যভান্ডার তৈরি করেছে। সেখানে একজন আইএএফ অফিসার হিসেবে স্নেহা শেখাওয়াতের নাম আছে এবং যে ছবিটি এখন পোস্ট করা হয়েছে, সেটি দেওয়া আছে তাঁর পরিচিতির সঙ্গে।



যে পাইলটরা বালাকোট অভিযান চালান, উনি কি তাঁদের মধ্যে একজন?

ভারতীয় বায়ুসেনার নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক সূত্র বলেন যে, গোপনীয়তার স্বার্থে ওই অভিযানের সঙ্গে যুক্ত এমন কারওরই নাম প্রকাশ করা হয়নি। তিনি আরও বলেন যে, আইএএফ কোনও বিবৃতি দেয়নি। যা বলার তা বিদেশ সচিবই বলেছেন। ওই সব দাবি একবারে রাবিশ। "আমরা কোন অফিসারের নাম প্রকাশ করিনি। "

প্রতিরক্ষা বিশ্লেষক নীতিন গোখেল বলেন যে, মহিলা পাইলটদের হালে বায়ুসেনায় নিযুক্ত করা হয়েছে। ফলে, সীমানার ওপারে গিয়ে বিমান হানা চালানোর মতো ঝুঁকিপূর্ণ অভিযানে তাঁদের অংশগ্রহণের সম্ভাবনা কম।

তাই, যে পোস্টটি বালাকোট অভিযানের একজন পাইলট সম্পর্কে তথ্য দিচ্ছে বলে দাবি করছে, সেটি ভুয়ো।

Claim Review :  Image shows pilot who carried out the IAF air strike at Balakot
Claimed By :  Social Media
Fact Check :  FALSE
Show Full Article
Next Story