Connect with us

না, ইনি উইং কমান্ডার অভিনন্দনের স্ত্রী নন

না, ইনি উইং কমান্ডার অভিনন্দনের স্ত্রী নন

ভিডিওটি আপলোড করেন ভারতীয় সেনাবাহিনীর এক অফিসারের স্ত্রী শিরীষা রাও l তিনি রাজনৈতিক নেতাদের কাছে আবেদন করছিলেন ভারত-পাক উত্তেজনা নিয়ে রাজনীতি না করতে

ভারত-পাকিস্তান উত্তেজনা নিয়ে রাজনীতি না করার আবেদন জানিয়ে এক ভারতীয় সেনা-অফিসারের স্ত্রীর পোস্ট করা একটি ভিডিওর ভুয়ো ব্যাখ্যা করে শেয়ার করা হচ্ছে যে, তিনি ভারতীয় বায়ুসেনার পাইলট উইং কমান্ডার অভিনন্দনের স্ত্রী ।

২৮ ফেব্রুয়ারি পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান ঘোষণা করেন যে, দু দেশের মধ্যে শান্তির পদক্ষেপ হিসাবে শুক্রবার বায়ুসেনার ওই ধৃত পাইলটকে মুক্তি দেওয়া হবে ।

ওই ঘোষণার কয়েক ঘন্টা আগে উইং কমান্ডার অভিনব বর্তমানের স্ত্রীর নামে ওই ভিডিওটি ভাইরাল করে প্রচার হতে থাকে যে, তিনি জওয়ানদের আত্মত্যাগ নিয়ে রাজনীতি করে তাকে হেয় করতে নিষেধ করছেন ।

ফেসবুক ও টুইটারে ভিডিওটি ভাইরাল হয় এই হিন্দি ক্যাপশন সহ –জওয়ানদের আত্মত্যাগ নিয়ে যেন বিজেপি রাজনীতি না করে । ভারতীয় যুব কংগ্রেসের সরকারি হ্যান্ডেল যুব দেশও একই ক্যাপশন দিয়ে ভিডিওটি শেয়ার করে ।

এখানে আর্কাইভ পোস্ট দেখুন।

পোস্টটির আর্কাইভ বয়ান দেখতে এখানে ক্লিক করুন ।

তথ্য যাচাই

১ মিনিট ৮ সেকেন্ডের ভিডিওটিতে এক মহিলাকে বলতে শোনা যাচ্ছে, রাজনীতিকরা যেন সেনাদের আত্মত্যাগ নিয়ে রাজনীতি না করেন । শুরুতেই মহিলাটি বলছেন—“সকলকে বলছি ! আমি একজন সেনা-অফিসারের স্ত্রী…”। এখানে উল্লেখ্য যে অভিনন্দন বর্তমান কোনও সেনা-অফিসার নন, ভারতীয় বায়ুসেনার একজন পাইলট ।

বুম ভিডিওটি বিশ্লেষণ করে জানতে পেরেছে, ভিডিওর মহিলাটি গুরুগ্রামের বাসিন্দা জনৈকা শিরীষা রাও । শিরীষা তাঁর ব্যক্তিগত হ্যান্ডেলটি ব্যবহার করেই ভিডিওটি পাঠিয়েছেন, ক্যাপশন দিয়েছেন—“বিনীত আবেদন@বিজেপি4ইন্ডিয়া জওয়ানদের আত্মত্যাগের বিনিময়ে জেতা আসনের হিশেব কষো না” ।

বুম শ্রীমতি রাওয়ের সঙ্গে যোগাযোগ করলে তিনি স্বীকার করেন, তিনিই ভিডিওটি তৈরি করেছেন এবং পাঠিয়েছেন—“হ্যাঁ, আমিই আমার টুইটার হ্যান্ডেলে ভিডিওটি পাঠিয়েছি । এটা ছিল রাজনীতিকদের প্রতি আমার একটা আবেদন যাতে সীমান্তে কর্মরত আমাদের জওয়ানদের নিয়ে তাঁরা রাজনীতি না করেন” । রাও আম আদমি পার্টির একজন স্বেচ্ছাসেবক । তিনি জানালেন, তাঁর স্বামী সেনাবাহিনীর একজন কর্নেল, কিন্তু এর চেয়ে বিশদে আর কিছু বলতে চাননি ।

তিনি আরও বললেন—“ভিডিওটায় আমি তো স্পষ্টই বলেছি যে আমি একজন সেনা-অফিসারের স্ত্রী, আর অভিনন্দন তো বায়ুসেনার উইং কমান্ডার । তাহলে কেন লোকে ভিডিওটি শেয়ার করার সময় আমাকে অভিনন্দনের স্ত্রী বলে পরিচয় দিচ্ছে?”

(বুম হাজির এখন বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়াতে। উৎকর্ষ মানের যাচাই করা খবরের জন্য, সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের টেলিগ্রাম এবং হোয়াটস্‍অ্যাপ চ্যানেল। আপনি আমাদের ফলো করতে পারেনট্যুইটার এবং ফেসবুকে|)

Claim Review : Wing Commander Abhinandan's wife appeals to BJP to not politicise sacrifice of soldiers

Fact Check : FALSE


Continue Reading
Click to comment

Leave a Reply

Your e-mail address will not be published. Required fields are marked *

Most Popular

ফেক নিউজ

To Top