পুরনো বিমান দুর্ঘটনার ভিডিও আর ছবি ইথিওপিয়ান এয়ারলাইন্সের ট্র্যাজেডির দৃশ্য হিসেবে ভাইরাল

পুরনো এবং সম্পর্কহীন ভিডিও সাম্প্রতিক ইথিওপিয়ান এয়ারলাইন্সের বিমান দুর্ঘটনার ছবি বলে ভাইরাল হয়েছে

বিশ্বের নানা জায়গার প্লেন দুর্ঘটনার পুরনো ভিডিও আর ছবি মার্চ ১০, ২০১৯ তারিখে ইথিওপিয়ান এয়ারলাইন্সের ভেঙ্গে পড়া বোইং ৭৩৭ এমএএক্স’র দৃশ্য বলে চালিয়ে দেওয়ার চেষ্টা হয়েছে। প্লেনটি আদিস আবাবার কাছে ভেঙ্গে পড়ে। ক্রু সমেত বিমানটির ১৫৭ যাত্রী ওই দুর্ঘটনায় মারা যান।

তথ্য যাচাই

ভিডিও-১: আকাশে ঝঞ্ঝার ফলে যাত্রীরা ‘আল্লাহু আকবর’ আওয়াজ তুলছেন

সোর্স: হোয়াটসঅ্যাপ

‘ঘানা ইন আফ্রিকা’ (আফ্রিকায় ঘানা) নামের এক ফেসবুক পেজ একই ভিডিও একটি বিভ্রান্তিকর ক্যাপশন সমেত শেয়ার করে। বলা হয়, “দুর্ঘটনার আগে এটি ইথিওপিয়ান এয়ারলাইন্সের বোইং ৭৩৭ ম্যাক্সের ভিডিও”।

পোস্টের আর্কাইভ দেখেতে এখানে ক্লিক করুন।

পোস্ট দেখতে এখানে ক্লিক করুন; আরকাইভ সংস্করণের জন্য, এখানে

এই প্রতিবেদন লেখার সময়, ২৬ হাজার ‘ভিউ’ পায় পোস্টটি।

বুম রিভার্স ইমেজ সার্চ করে গুগুলে। ভিডিও যাচাই করার সরঞ্জাম ইনভিড ব্যবহার করা হয় তার জন্য। দেখা যায় মে ৪, ২০১৬’য় ভিডিওটি সিএনএন ব্যবহার করেছিল তাদের এক রিপোর্টে।

হোয়াটসঅ্যাপ ভিডিওতে সিএনএন’র লোগো দেখা যাচ্ছে

স্ক্রিনের এক কোণে সিএনএন’র লোগো লক্ষ করা যাচ্ছে।

ভিডিওটির জন্য সিএনএন ডেউয়ী রাচমায়ানিকে ক্রেডিট দেয়। একটি এথিহাদ এয়ারলাইনের বিমান আবু ধাবি থেকে জাকার্তা যাওয়ার পথে, ঝঞ্ঝার মধ্যে পড়লে উনি প্লেনের ভেতরের দৃশ্য ভিডিও করে রাখেন।



সোর্স: সিএনএন

ওই ঘটনার পর ওই এয়ারবাস ৩০০-২০০ প্লেনটি নিরাপদে অবতরণ করে। কিন্তু মে ৬, ২০১৬’য় বিবিসি নিউজ জানায় যে, ন’ জনকে হাসপাতালে ভর্তি করতে হয়।

ভিডিও-২: প্লেনের জ্বলন্ত ধ্বংসাবশেষ

আরও একটি ভিডিও এখন হোয়াটসঅ্যাপে ঘুরপাক খাচ্ছে। তাতে একটি বিমানের জ্বলন্ত ধ্বংসাবশেষ আর কিছু দেহ ছড়িয়ে থাকতে দেখা যাচ্ছে। বুম দেখে যে সেটি মার্চ ৯, ২০১৯ তারিখে কোলাম্বিয়ায় একটি বিমান দুর্ঘটনার দৃশ্য, যা ইথিওপিয়ান প্লেন অ্যাক্সিডেন্টের একদিন আগে ঘটেছিল।

কোলাম্বিয়া সংবাদ মাধ্যম ‘এল স্পেক্টেটর’ ওই একই ভিডিও আপলোড করেছিল। একই ধ্বংসাবশেষ দেখতে পাওয়া যায় দুই ভিডিওতে, যা প্রমাণ করে সেগুলি একই ঘটনার ছবি।

সোর্স: ইএনসিএ

বাঁ দিকে হোয়াটসঅ্যাপ ভিডিও; ডানদিকে এল স্পেক্টেটর ভিডিও

কোলাম্বিয়ার সংবাদ মাধ্যম ইএনসিএ জানায় যে, ওই দুর্ঘটনায় ১৪ জন মারা যান। তার মধ্যে ছিলেন সে দেশের তারাইরা মিউনিসিপ্যালিটির মেয়র ও তাঁর পরিবারের সদস্যরা।(বিস্তারিত জানতে এ্রখানে ক্লিক করুন)।



সোর্স: এল স্পেক্টেটর

প্লেনের অবশেষের ছবি

একটা প্লেনের ধ্বংসাবশেষের ছবি আদিস আবাবায় বোইং ৭৩৭ ভেঙ্গে পড়ার দৃশ্য বলে চালানো হচ্ছে।

বুম রিভার্স ইমেজ সার্চ করে দেখে যে সেটি ২০১৫ সালে একটি ইন্দোনেশীয় মিলিটারি প্লেন ভেঙ্গে পড়ার ছবি।

হারকিইউলিস সি-১৩০ মালবাহী বিমানটি ইন্দোনেশিয়ার মেডান শহরের এক বসতি এলাকার ওপর ভেঙ্গে পড়ে। ওই দুর্ঘটনায় ১৪২ মিলিটারি সদস্য ও তাঁদের পরিবারের লোকজন, যাঁরা বিমানটিতে ছিলেন, তাঁরা সকলেই মারা যান। (বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন)।

রয়টারের জন্য আসল ছবিটি তোলেন রনি বিনটাং, জুন ৩০. ২০১৫ তারিখে। (এখানে ক্লিক করুন)।

ছবির ক্যাপশানে বলা হয় যে, সুরক্ষাবাহিনীর সদস্য আর উদ্ধারকারীদের ইন্দোনেশিয়ার মিলিটারির হারকিউলিস সি-১৩০ মালবাহী প্লেনটির ধ্বংসাবশেষ পরীক্ষা করতে দেখা যাচ্ছে। প্লেনটি ইন্দোনেশিয়ার উত্তর সুমাত্রায় মেডান শহরের এক বসতিপূর্ণ এলাকায় ভেঙ্গে পড়ে।

Claim Review :   Video And Images Of The Ethiopian Airline Crash
Claimed By :  Social Media
Fact Check :  FALSE
Show Full Article
Next Story