প্যালেস্তাইনের কেবল কারে আগুন লাগার পুরানো ভিডিও হরিদ্বারের মনসা দেবী মন্দিরের ঘটনা বলে প্রচার করা হচ্ছে

বুম অনুসন্ধান করে দেখেছে চার বছর আগে জেরিকোয় একটি টিভি সিরিজের শুটিং চলার সময় এক কেবল কারে আগুন লেগেছিল।

প্যালেস্তাইনের জেরিকোয় চার বছর আগে কেবল কারে আগুন লাগার ঘটনার ভিডিও মিথ্যে দাবির সঙ্গে ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে। ওই আগুন লাগার ঘটনাটিকে হরিদ্বারের মনসা দেবী মন্দিরের ঘটনা বলে মিথ্যে দাবি করা হচ্ছে এবং ওই ঘটনায় তীর্থযাত্রীরা পুড়ে মারা গেছেন বলেও দাবি করা হচ্ছে।

ভিডিওটি বিভিন্ন ফেসবুক পেজ থেকে শেয়ার করা হয়েছে। সঙ্গে ক্যাপশন দেওয়া হয়েছে, “হরিদ্বারের মনসা দেবী মন্দিরের ঝুলায় আগুন লেগে অনেক লোক পুড়ে মারা গেছেন। খুব বেদনাদায়ক দুর্ঘটনা।”

(মূল হিন্দিতে ক্যাপশন: हरिद्वार के मनसा देवी झूले में आग लग जाने से लोग जिन्दा जले….बहुत दर्दनाक एक्सीडेंट)

২৫ সেকেন্ডের এই ক্লিপটিতে দেখা যাচ্ছে একটি কেবল কারে আগুন লেগেছে, এবং উপস্থিত দর্শকরা স্তম্ভিত, আতঙ্কিত।

ফেসবুকে ভাইরাল হওয়া ভিডিও।

অনেক নেটিজেনই অবশ্য জানিয়েছেন যে ভিডিওটি জেরকোয় কেবল কারে আগুন লাগার পুরানো ফুটেজ।

অনেক নেটিজেনই অবশ্য জানিয়েছেন যে ভিডিওটি জেরকোয় কেবল কারে আগুন লাগার পুরানো ফুটেজ।

বুম মনসা দেবী মন্দিরে ঝুলায় আগুন লাগা বিষয়ে কিওয়ার্ড সার্চ করে ইউটিউবে আর একটু বড় একটি ক্লিপ দেখতে পায়। এই ভিডিওতে ক্যাপশন ছিল ‘ইজরায়েলের জেরিকোয় কেবল কারে মাঝপথে আগুন লেগে যায়’।



ঘটনাচক্রে, এই ভিডিয়োটির মন্তব্যের জায়গায় বেশ কয়েক জন জানিয়েছেন, মনসা দেবী মন্দিরের ঝুলায় আগুনের কথাটি নিতান্তই ভুয়ো।

একই ভুয়ো দাবির সঙ্গে ভিডিওটি ইউটইউবে ভাইরাল হয়েছিল। পরে অবশ্য সেটি সংশোধন করা হয়।

এরপর আমরা Metro.co.uk-তে প্রকাশিত একটি সংবাদ প্রতিবেদন দেখতে পাই। ওই প্রতিবেদনে ২০১৫-র মার্চে প্যালেস্তাইনের ওই ভয়াবহ আগুন লাগার ঘটনাটি নিয়ে রিপোর্ট করা হয়েছে।

মেট্রোডটকোডটইউকে-তে প্রকাশিত সংবাদ প্রতিবেদন।

মেট্রো’র ওই প্রতিবেদনে লেখা হয়, “প্যালেস্তাইনের মিডিয়ায় দাবি করা হয়েছে যে ‘আবু-শারিক ভিজিটস দ্য কেবল কার’ নামক অনুষ্ঠানে একজন প্রোডাকশন আসিসট্যান্ট অনুমতি ছাড়াই বাজি পোড়ান এবং তার ফলেই আগুন লাগে। আগুন লাগা দেখে আশঙ্কা হয় যে কেবল কারটি হয়তো মাটিতে ভেঙে পড়বে। ভিডিওটিতে যাত্রীদের নিজেদের নিরাপত্তার জন্য কারটির পিছন দিকে সরে যেতে দেখা যায়। অবশ্য পরে যাত্রীদের নিরাপদ ভাবে সরিয়ে নিয়ে যেতেও দেখা যায়।শুধুমাত্র দুজনের অল্প আঘাত লাগে এবং তাঁদের চিকিৎসা করা হয় বলে সংবাদে প্রকাশ।

যখন কেবল কারে আগুন লাগে তখন প্যালেস্তাইন টিভির একটি জনপ্রিয় অনুষ্ঠানের শুটিং হচ্ছিল বলে জানা গেছে

প্যালেস্তাইনের এক খ্যাতনামা কৌতুকাভিনেতা, যিনি ওই কেবল কারটিতে ছিলেন, বুম তাঁর একটি ভিডিওর সন্ধান পায়।তিনি ওই ভিডিওটিতে তাঁর ভয়ানক অভিজ্ঞতার কথা জানান। সাক্ষাৎকারটি এখানে পড়তে পারেন।



চিনের দুর্ঘটনা বলে আগেও এই ভিডিও ভাইরাল হয়েছে

এই একই ভিডিও গত বছরও ভাইরাল হয়েছিল। সঙ্গে ক্যাপশন ছিল, “চিনে এক ভয়াবহ কেবল কার দুর্ঘটনায় অগ্নিদগ্ধ হয়ে মৃত ১৭।’’ ভিডিওটিতে লাল রঙের চিনা হরফে লেখা ছিল যেচিনের চাংচিয়াচি শহরে এই দুর্ঘটনাটি ঘটে, ১৭ জন অগ্নিদগ্ধ হয়ে মারা যান। এক জনকেও বাঁচানো যায়নি। খবরটি যে ভুয়ো, তার বিশদ বিশ্লেষণ পড়ার জন্য এখানেক্লিক করুন। 

Claim Review :  হরিদ্বারে মনসা দেবী ঝুলার কেবল কারে আগুন লেগেছে
Claimed By :  FACEBOOK POSTS
Fact Check :  FALSE
Next Story