অখিলেশ যাদবকে গ্রেপ্তার করার পুরনো ভিডিও ৩৭০ ধারা বাতিলের পরিপ্রেক্ষিতে ছড়ানো হচ্ছে

একটি ভাইরাল পোস্টে দাবি, ৩৭০ ধারা অবলুপ্তির প্রতিবাদে সভার জন্য ইউপি পুলিশ যাদবকে গ্রেপ্তার করে। কিন্তু ভিডিওটি ২০১১ সালের। কাশ্মীরের সঙ্গে তার কোনও সম্পর্ক নেই।

আট বছর আগে সমাজবাদী পার্টির নেতা অখিলেশ যাদবের গ্রেপ্তারির এক ভিডিও মিথ্যে দাবি সমেত ভাইরাল হয়েছে।

ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে, ইউপি পুলিশের সঙ্গে যাদবের ধস্তাধস্তি হচ্ছে। তারপর, তাঁকে জোর করে একটি গাড়িতে তুলে দিচ্ছে পুলিশ। ওই ভিডিওটি একাধিক ফেসবুক পেজ থেকে শেয়ার করা হয়েছে।

ভাইরাল ভিডিওটির সঙ্গে দেওয়া বিবরণে বলা হয়েছে, “আজ ৩৭০ ধারা বিলুপ্তির বিরুদ্ধে অনুষ্ঠিত এক জনসভা থেকে টিপুকে (অখিলেশ যাদব) পুলিশ থানায় টেনে নিয়ে যায়। মোদি আর অমিত শাহর পর, এবার কাজে নেমেছে যোগীর পুলিশ।”

(হিন্দিতে বলা হয়: घसीटते हुए टीपू को थाना ले जाया गया।।370 के खिलाफ हो रहा था प्रदर्शन।।
मोदी,अमित शाह के बाद योगीजी और उनकी पुलिस एक्शन में,धक्के मुक्के ओर इज्जत के साथ उठवाया अखिलेश को।)

ভিডিওটি নীচে দেখা যাবে। পোস্টটি আর্কাইভ করা আছে এখানে

ফেসবুকে বিভিন্ন পেজে ভাইরাল।

তথ্য যাচাই

ভাইরাল ক্লিপটি থেকে নেওয়া একটি ফ্রেম দিয়ে রিভার্স ইমেজ সার্চ করতেই আসল ভিডিওটি সামনে আসে। দেখা যায় সেটি আট বছরের পুরনো। ভিডিওটি নীচে দেখা যাবে।



ভিডিওটি ২০১১ সালের মার্চের। সেই সময়, ইউপিতে বহুজন সমাজ পার্টির (বিএসপি) মায়াবতী ক্ষমতায় ছিলেন।

বিএসপির বিরুদ্ধে তিন দিনের এক আন্দোলনের ডাক দেওয়ায়, অখিলেশকে লখনৌ বিমানবন্দর থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। এর পর, বিএসপি কর্ণধার মায়াবতী রাজ্যজুড়ে সমাজবাদী পার্টির কর্মীদের ধরপাকড়ের নির্দেশ দেন পুলিশকে। পুলিশ দাবি করে, সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবেই অখিলেশ যাদবকে গ্রেপ্তার করা হয়। সেই সময়, ওই রাজনৈতিক অস্থিরতা বিস্তারিতভাবে রিপোর্ট করে সংবাদমাধ্যমগুলি। এ ঘটনা নিয়ে প্রতিবেদনগুলি পড়া যাবে এখানেএখানে

Claim Review :  ৩৭০ ধারা রদের প্রেক্ষিতে এক প্রতিবাদ সভায় সমাজবাদী দলের প্রধান অখিলেশ যাদবকে গ্রেফতার করা হয়েছে
Claimed By :  FACEBOOK PAGES
Fact Check :  FALSE
Show Full Article
Next Story