প্রিয়াঙ্কা গান্ধী বডরার মেজাজ হারানোর পুরনো ভিডিও মিথ্যে দাবির সঙ্গে নতুন করে ভাইরাল

বুম দেখেছে যে ভিডিওটি এক বছরের পুরনো। প্রিয়াঙ্কা গান্ধী বডরা একটি মোমবাতি মিছিলে অংশ নেন সেসময়। ভিড়ের মধ্যে তাঁকে ও তাঁর মেয়েকে ধাক্কা দেওয়ায় বিরক্ত হন তিনি।

২০১৮-র একটি ভিডিও যেখানে দেখা যাচ্ছে যে প্রিয়াঙ্কা গান্ধী বডরা ভিড়ে ধাক্কার মধ্যে নিজের মেজাজ হারান। এই ভিডিওটি ফেসবুকে মিথ্যে দাবির সঙ্গে ছড়িয়ে পড়েছে।
৩৫ সেকেন্ডের ভিডিওটিতে প্রিয়াঙ্কা গান্ধীকে দেখা যাচ্ছে একদল মহিলার সঙ্গে ভিড়ের মধ্যে পথ করে এগিয়ে চলেছেন এবং এগিয়ে যাওয়ার সময় ভিড়ের মধ্যে একজনকে কনুইয়ের ধাক্কা দিচ্ছেন।

দাবি ১— ‘চৌকিদার চোর’ বলার জন্য ভিড় থেকে ধাক্কা দেওয়া হয়।

ফেসবুক পোস্ট

পোস্টটি দেখা যাবে এখানে এবং পোস্টটি আর্কাইভ করা আছে এখানে

ফেসবুকে জয় সিং বাস্তি নামে এক ব্যক্তি ভিডিওটি পোস্ট করেন এবং সঙ্গে দাবি করেন, “‘চৌকিদার চোর’ বলার মূল্য চোকাতে হল প্রিয়াঙ্কা গান্ধীকে। লোকজন দৌড়েছিল পেটানোর জন্য আপনারা সবাই দেখুন।”

হিন্দিতে লেখা পোস্টটি:(चौकीदार चोर है कहना प्रियंका गांधी को महंगा पड़ गया जनता ने दौड़ा लिया पीटने के लिए आप सब भी देखे)
এই প্রতিবেদনটি লেখার সময় পর্যন্ত পোস্টটি প্রায় ৩,৫০০ বার দেখা হয়েছে ও ১৬০ বার শেয়ার করা হয়েছে।

দাবি ২—প্রিয়াঙ্কা গরিব মানুষদের কনুই দিয়ে গুঁতো দিচ্ছে যখন কেউ দেখছে না।

প্রমোদ কুমার নামে এক ফেসবুক ব্যবহারকারী ‘উই সাপোর্ট নরেন্দ্র মোদী’ নামে ফেসবুক গ্রুপ-এ এই একই পোস্ট শেয়ার করেছেন সঙ্গে ক্যাপশন, “যখন কেউ দেখছে না তখন সাধারণ মানুষের সঙ্গে তাঁর ব্যবহার দেখুন। গরিবের ত্রাতাই তাঁদেরকে কনুইয়ের গুঁতো মারছেন”।

হিন্দিতে লেখা পোস্টটি: (देखो जब कोई ना देख रहा हो ,तब जनता के लिए उनका क्या रवैया रहता है आम जनता को कोहनी मारती हुई गरीबो की मसीहा।)

বিভ্রান্তিকর ফেসবুক পোস্ট

পোস্টটি দেখা যাবে এখানে এবং পোস্টটি আর্কাইভ করা আছে এখানে

বুম আগেই ‘উই সাপোর্ট নরেন্দ্র মোদী’ নামের এই ফেসবুক গ্রুপের ব্যাপারে এবং কী ভাবে তারা তাদের ২.৯ মিলিয়ন সদস্যের মধ্যে মিথ্যে খবর ছড়িয়ে দিচ্ছে সে সম্পর্কে রিপোর্ট করেছে। এ ব্যাপারে আরো পড়ুন এখানে

তথ্য যাচাই


বুম অনুসন্ধান করে দেখেছে যে ভিডিওটি এপ্রিল ১৩, ২০১৮ থেকে সারকুলে্ট করা হচ্ছে যখন নয়া দিল্লির ইন্ডিয়া গেটে কাঠুয়া ও উন্নাও ধর্ষণ কান্ডের প্রতিবাদে রাহুল গান্ধীর আয়োজিত একটি মোমবাতি মিছিলে প্রিয়াঙ্কা অংশগ্রহণ করেন।ঘটনাটি সম্পর্কে আরও পড়তে ক্লিক করুন এখানে

ইন্ডিয়া টুডের এক সাংবাদিক মৌসুমি সিং যিনি ওই মিছিল কভার করেছিলেন তাঁর লেখা একটি প্রতিবেদন থেকে জানা যায় যে কংগ্রেস সমর্থকরা প্রিয়াঙ্কার সঙ্গে সেলফি তোলার জন্য লোকজনকে ধাক্কা দিতে আরম্ভ করে।

প্রতিবেদনটির কিছু অংশ

মৌসুমি সিং ঘটনাটির রিপোর্টে লেখেন, “ইন্ডিয়া গেট পর্যন্ত ভিড়ের মধ্যে দিয়ে আক্ষরিক অর্থে তিনি দৌড়চ্ছিলেন।মাঝপথে হঠাৎ দাঁড়িয়ে পড়েন ও তাঁর মেয়ের কথা জিজ্ঞাসা করেন। কয়েক পা পিছনেই তাঁর মেয়ে মিরায়া দাঁড়িয়ে ছিল। তাকে দেখে বোঝা যাচ্ছিল যে ভিড় দেখে সে খুব ভয় পেয়েছে।”

ভিড়ের মধ্যে প্রিয়াঙ্কা যখন কনুই দিয়ে ধাক্কা দেন সে সম্পর্কে সিং আরো জানান, “সেই সুযোগে নেত্রীর চারপাশে থাকা হাল্কা ঘেরাটোপ ভেঙ্গে জনতা ঢুকে পড়ার চেষ্টা করে। তখন প্রিয়াঙ্কা নিজের মেজাজ হারান। আর যখন আবার ইন্ডিয়া গেটের দিকে হাঁটতে শুরু করেন তখন দেখা যায় তিনি কনুই দিয়ে একজনকে রীতিমতো ধাক্কা দিয়ে এগিয়ে যান”।
ইন্ডিয়া টুডের আপলোড করা ভিডিওতে দেখা যায় প্রিয়াঙ্কার মেয়েকে রীতিমতো ধাক্কা দেওয়া হয় এবং তাতেই তিনি রেগে যান।





Claim Review :   চৌকিদার চোর হ্যয় বলার জন্য প্রিয়াঙ্কা গান্ধীর মোজাজ হারানোর দাবি
Claimed By :  FACEBOOK POSTS
Fact Check :  FALSE
Show Full Article
Next Story