রাজস্থানে কংগ্রেসের বিজয় মিছিলে পাকিস্তানের পতাকা ওড়ানো হয়নি

ভিডিওটির সাথে ক্যাপশনটিও বেশ প্ররোচক। হিন্দিতে লেখা - কংগ্রেসের বিজয় লাভের পর পাকিস্তানের পতাকা উড়িয়ে দেওয়া হয়। নিরপেক্ষ হিন্দুরা ভবিষ্যতে এই জন্যে আক্ষেপ করবেন।
রাজস্থানের ইন্ডিয়ান ন্যাশনাল কংগ্রেস (কংগ্রেস) পার্টির বিজয় সমাবেশে পাকিস্তানের জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়েছিল - এমন একটি ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়াতে ভাইরাল হয়। কিন্তু রাজস্থানের পুলিশের মতে ভিডিওটি সম্পূর্ণ ভাবে মিথ্যা। ভিডিওটি ভাইরাল হয় রাজস্থান, ছত্তিশগড়, মধ্যপ্রদেশ, মিজোরাম ও তেলঙ্গানার রাজ্য নির্বাচনের ফলাফলের পর, যেটি ১১ ডিসেম্বর, ২০১৮ এ ঘোষণা করা হয়। ভিডিওটির এক ঝলক এই লিঙ্কে দেখে নিন। ভিডিওটির সাথে ক্যাপশনটিও বেশ প্ররোচক। হিন্দিতে লেখা - কংগ্রেসের বিজয় লাভের পর পাকিস্তানের পতাকা উড়িয়ে দেওয়া হয়। নিরপেক্ষ হিন্দুরা ভবিষ্যতে এই জন্যে আক্ষেপ করবেন। ("कांग्रेस की जीत पे पाकिस्तान का झंडा लहराते हुए मूर्ख हिन्दूओ भविष्य मे बहुत पछताओगे।") ভিডিওটি BOOM কে তাদের WhatsApp হেল্পলাইন নম্বরে (+91 7700906111) একজন পাঠক পাঠান। ফেসবুক এবং টুইটারে একই পাঠ্য সহ ভিডিওটি অনুসন্ধান করে দেখা যায় যে সোশ্যাল মিডিয়া ইউজাররা একই নেতিবাচক ভিডিও শেয়ার করছে। পোস্টের আর্কাইভ ভার্সন দেখার জন্যে
এখানে
ক্লিক করুন। শুধুমাত্র হিন্দিতে নয়, ভিডিওটি ব্যাপক ভাবে বাংলায়ও শেয়ার করা হয়েছে ফেসবুকে। 'রাজস্থানে নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণা হওয়ার পর,কংগ্রেসের মিছিলে উড়লো জিহাদী মুসলিম পতাকা! আরও অনেক কিছু দেখার অপেক্ষায় থাকুন। - ছিল ভিডিওর ক্যাপশন। ভিডিওটিতে, ব্যাকগ্রাউন্ডে একজন ব্যেক্তির কথা শোনা যাচ্ছে। "এই কংগ্রেস সমাবেশে কীভাবে একটি পাকিস্তানি পতাকা উড়িয়ে দেওয়া হচ্ছে তা দেখুন। কংগ্রেস পাকিস্তানি পতাকা উড়িয়ে দিচ্ছে। এটি তিওয়ারির একটি প্রতিবেদন। সমাবেশে হিন্দু ভাইদের এই কথা বলার জন্য আমি লজ্জিত, তাদেরকে ভোট দেওয়ার জন্য আপনাদের লজ্জা হওয়া উচিৎ।" ভিডিওটিকে মনোযোগ সহকারে দেখে আমরা বিভিন্ন সূত্র খুঁজে পেয়েছি যা প্রমাণ করে যে ভিডিওটি রাজস্থানের। ভিডিওটিতে 18 সেকেন্ডে, RJ অক্ষর দিয়ে শুরু হওয়া একটি প্লেটের সাথে একটি জিপ দেখা যায় যা বোঝায় যে গাড়িটি রাজস্থান থেকে এসেছে।
ভিডিওটির ব্যাকগ্রাউন্ডে একটি বিল্ডিং রয়েছে যেখানে 'বিদ্যালয়ে' শব্দটি লেখা আছে যা বোঝায় যে বিল্ডিঙটি একটি স্কুল বা কলেজ। যদিও স্কুলের নামটি ভিডিওতে দৃশ্যমান নয়, এটি বহুবার দেখে আমরা স্কুলটির নাম অনুমান করতে পেরেছি - राजकीय आदर्श उच्च माध्यमिक विद्यालय,तिंवरी। আমরা গুগল এবং ফেসবুকে স্কুলের জন্য খুঁজেছি এবং স্কুলের একই নামের সাথে একটি ফেসবুক পেজ খুঁজে পেয়েছি। ফেসবুক পেজের প্রোফাইল ছবিটিতে একটি বিল্ডিং রয়েছে এবং বিল্ডিংয়ের কাঠামো ভিডিওতে দৃশ্যমান। পেজটি দেখতে এখানে
ক্লিক
করুন। প্রবেশদ্বারের কাঠামোটি ভিডিওতে দেখা কাঠামর রূপান্তর এবং স্কুলের নাম যেটি ভিডিওটি সম্পূর্ণরূপে দৃশ্যমান নয় তা একই। তাছাড়া, প্রবেশদ্বার এ দরজা একই। কংগ্রেসের সমাবেশে পাকিস্তানি পতাকা উড়িয়ে দেওয়া হয়েছে - ভিডিওটির মূল কথা। তবে ভিডিওর ফ্ল্যাগগুলির মাঝখানে দুটি সাদা স্ট্র্যাপ এবং গম্বুজ-মত কাঠামো রয়েছে, যা পাকিস্তানের পতাকার বইশিষ্ট নয়। পতাকাগুলি মিল্লাদ-অ-নবীর ধর্মীয় সময় মুসলিম দ্বারা ব্যবহৃত হয়। নীচে পাকিস্তানের পতাকার একটি ছবি।
তাছাড়া, রাজস্থান পুলিশ বুধবার নেট নাগরিকদের সতর্ক করে দেয় - সোশ্যাল মিডিয়াতে প্রচারিত ভিডিওটি দাবি করে যে, কংগ্রেসের বিজয় মিছিলের সময় পাকিস্তানের পতাকা উত্তোলন করা হয় কিন্তু সেটি সম্পূর্ণ ভাবে মিথ্যা ছিল। পুলিশ আরো টুইট করে বলেন যে ভিডিও তৈরির পেছনে ব্যক্তিটিকে চিহ্নিত করার চেষ্টা করা হচ্ছে।
Updated On: 2020-09-14T14:26:10+05:30
Show Full Article
Next Story