মিথ্যে দাবি সমেত ভারতীয় বায়ু সেনার মহিলা পাইলটদের ছবি ছড়াচ্ছে

বালাকোট বিমান হানায় তাঁদের অংশগ্রহণ দাবি করে মহিলা ফাইটার পাইলটদের ভাইরাল হওয়া ছবি, আসলে এক ধাপ্পা

ভারতীয় মহিলা ফাইটার পাইলটদের ছবি বিভ্রান্তিকর দাবি সমেত সোশাল মিডিয়ায় শেয়ার করা হচ্ছে। বলা হচ্ছে, তাঁরা নাকি মঙ্গলবার ইন্ডিয়ান এয়ার ফোর্সের (আইএএফ)বালাকোট অভিযানে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন।

বিমান হামলার পরেই আমরা আইএএফ-এর স্কোয়ড্রন লিডার স্নেহা শেখাওয়াতের ছবি পাই। তাতে মিথ্যে দাবি করা হয় যে, তাঁর নাম উর্বশী জারিওয়ালা, এবং তিনিই নাকি ভারতের সীমার ওপারে ওই অভিযানের নেতৃত্ব দিয়েছিলেন।

একটি ফেসবুক পোস্টের স্ক্রিনশট

প্রতিরক্ষা বিষয়ক বিশ্লেষক নীতিন গোখেল ও একজন নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক আইএএফ সূত্রের সঙ্গে বুম কথা বলে। স্নেহা শেখাওয়াত ওই অভিযানের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন, ওই দাবি নস্যাৎ করতে তাঁরা আমাদের সাহায্য করেন।

এর কিছু পরেই ভারতের মহিলা ফাইটার পাইলটদের এক ঝাঁক ছবি আমাদের চোখে পড়ে। আর সেখানেও সেই একই দাবি করা হয় — তাঁরা নাকি ওই আক্রমণে অংশ নিয়েছিলেন।

বিভ্রান্তিকর ক্যাপশন সমেত মহিলা ফাইটার পাইলটদের বিভিন্ন ছবি

বুম রিভার্স সার্চ করে জানতে পারে যে, ওপরে প্রথম এবং তৃতীয় ছবিতে যাঁকে দেখা যাচ্ছে তিনি হলেন অবনী চতুর্বেদী। আর মাঝেরটিতে দেখা যাচ্ছে মোহনা সিংকে।

প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের এক প্রেস বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী, তাঁরা হলেন মহিলা ফাইটার পাইলটদের প্রথম ব্যাচের সদস্য, যাঁরা ২০১৬ সালে আইএএফ-এ যোগ দেন।



এঁদের মধ্যে কেউ কি মঙ্গলবারের বিমান হানায় যোগ দিয়ে থাকতে পারেন?

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক আইএএফ সূত্র আগেই জানিয়েছিলেন যে, বিমান হানায় অংশগ্রহণকারীদের নাম সম্পূর্ণ গোপন রাখা হয়েছে এবং তা জনসাধারণের জন্য প্রকাশ করা হবে না।

ফলে, পরিষ্কার হয়ে যাচ্ছে যে, সোশাল মিডিয়ায় যেসব পোস্ট বা মেসেজ বালাকোটে আইএএফ বিমান হানায় অংশগ্রহণকারীদের সম্পর্কে তথ্য জানাচ্ছে বলে দাবি করছে, সেগুলি সব ভুয়ো ।

Claim Review :  Image shows pilot who carried out the IAF air strike at Balakot
Claimed By :  SOCIAL MEDIA
Fact Check :  FALSE
Show Full Article
Next Story