এক মুসলমান মহিলা মোদীর সমর্থনে প্ল্যাকার্ড হাতে দাঁড়িয়ে—ফোটোশপে তৈরি এই ছবি ভাইরাল

এক মুসলমান মহিলা মোদীর সমর্থনে লেখা প্ল্যাকার্ড হাতে দাঁড়িয়ে—আসলটি কিন্তু ভার্জিনিয়ায় এক ক্যাম্পেনের ছবি

হিজাব পরা এক মুসলমান তরুনী মোদীর সমর্থনে লেখা প্ল্যাকার্ড হাতে দাঁড়িয়ে—ছবিটি নকল, ফোটোশপে তৈরি। আসল ছবিটি তোলা হয়েছিল ইউনিভারসিটি অফ মেরি ওয়াশিংটন’এ, ২০১২ সালে। ফোটোশপে তৈরি নকল ছবিটি ‘পাপ্পুকে রাজনৈতিক ওয়াঙ্গ’ নামক পাবলিক গ্রুপে পোস্ট করেন জনৈক সতিন্দর মেহরা।

পোস্টের লিঙ্ক এখানে ; আরকাইভ সংস্করণের, এখানে

হিন্দিতে লেখা প্ল্যাকার্ডে বলা হয়েছে: “মোদী যদি নিজের বাড়ি ভরে তুলতে চাইতেন, তাহলে ১৩ বছর গুজরাটের মুখ্যমন্ত্রী থাকা কালেই তা করতে পারতেন। উনি তাঁর গদিকে নয়, দেশকে ভালবাসেন, এটা ১০০% সত্য।” হিন্দি বয়ানটি এই রকম: “मोदी को अपना घर भरना होता तो वह १३ साल गुजरात का CM रह कर भर लेता| उसे खुर्सी से नहीं, देश से प्रेम है १०० % सत्य”।

ফোটোশপকরা ছবিটি ইতিমধ্যেই ৩০০ বার শেয়ার করা হয়েছে। এবং অনেকেই প্ল্যাকার্ডের বক্তব্য সমর্থনে মত প্রকাশ করেছেন।

ওই মহিলার জ্যাকেটে ভারতীয় জনতা পার্টির লোগোও সুপারইম্পোজ করে বসিয়ে দেওয়া হয়েছে।

গুগুলে রিভার্স সার্চ করা হলে, আসল ছবিটির হদিস পাওয়া যায়।

গুগুলে রিভার্স সার্চের ফলাফল

ক্যাম্পাসে কিছু বাঁধাধরা চিন্তার বিরুদ্ধে প্রচার অভিযান চলাকালে ভার্জিনিয়ার মেরি ওয়াসিংটন ইউনিভারসিটিতে তোলা হয় ছবিটি। ‘ওয়ান বিউটি অফ ইসলাম’ নামের এক ব্লগ ওই প্রচার অভিযানের সব ছবি পোস্ট করে। সঙ্গে লেখা হয়, “মেরি ওয়াশিংটনের ইসলামিক স্টুডেন্টস অ্যাসোসিয়েশন কোনও বাঁধাধরা চিন্তা এবং সিদ্ধান্তে পৌঁছে যাওয়ার প্রবণতার বিরুদ্ধে প্রচার চালাতে উদ্বুদ্ধ হয়”।

মূল ছবির প্ল্যাকার্ডে লেখা ছিল, “আমি মুসলমান, কিন্তু আরব নই”। তার তলায় বড় হরফে লেখা রয়েছে, ‘আমায় কোনও ছাঁচে ফেলবেন না ইউএমএ’র ক্যাম্পেন চলছে’।
এএফপি ফ্যাক্টচেকও ফোটোশপকরা ছবিটি নস্যাৎ করে।

২০১২ সালের প্রচার অভিযানের আসল ছবি

বুম দেখে, একই লেখা ছবিটি ২০১৭ থেকে সোশাল মিডিয়ায় আছে।



Claim Review :   Pic of a Muslim woman with a placard supporting Modi
Claimed By :  FACEBOOK
Fact Check :  FALSE
Show Full Article
Next Story